• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

“মৃত্যু আসে তিল তিল শ্রান্তি ম্লান সুপ্তির বন্ধনে”

“মৃত্যু আসে তিল তিল শ্রান্তি  ম্লান সুপ্তির বন্ধনে”

উক্তি ডেস্ক১৪ জুন ২০১৯, ০৮:৪৩এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

ফররুখ আহমদ আধুনিক বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কবি ও শিশু সাহিত্যিকদের অন্যতম। ১৯১৮ সালের ১০ জুন মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার মাঝাইল গ্রামে তার জন্ম। তার পিতা খান সাহেব সৈয়দ হাতেম আলী ছিলেন পুলিশ ইন্সপেক্টর।

বিংশ শতাব্দীর চল্লিশের দশকে কাব্যক্ষেত্রে ফররুখ আহমদের আগমন ঘটে। ১৯৪৪ সনে ২৬ বছর বয়সে তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘সাত সাগরের মাঝি’ প্রকাশিত হয়। কিশোর বয়স থেকেই তিনি কাব্য-চর্চা শুরু করেন।

১৯৪৩ সালে দুর্ভিক্ষের মর্মন্তুদ দৃশ্য নিয়ে ফররুখ আহমদ অসংখ্য কবিতা রচনা করেন। ওই সময়ে লেখা তার প্রায় ১৯টি কবিতায় দুর্ভিক্ষের চিত্র ফুটে ওঠেছে। তিনি ছিলেন মুসলিম পুনর্জাগরণে বিশ্বাসী।

চল্লিশের দশকে ইংরেজ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলন অর্থাৎ পাকিস্তান আন্দোলন প্রবলতর হয়। ওই সময় স্বাধীনতার সপক্ষে গণজাগরণমূলক কবিতা লিখে ফররুখ আহমদ বিশেষ খ্যাতি অর্জন করেন।

ফররুখের প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্য উল্লেখযোগ্য সাত সাগরের মাঝি, আজাদ কর পাকিস্তান, সিরাজম মুনীরা, নৌফেল ও হাতেম, মুহূর্তের কবিতা, হাতেম তা’য়ী, হে বন্য স্বপ্নেরা, ইকবালের নির্বাচিত কবিতা, কাফেলা, হাবেদা মরুর কাহিনী প্রমুখ। এর মধ্যে ‘সাত সাগরের মাঝি’ ফররুখ আহমদের প্রথম এবং সর্বাধিক উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ।

ফররুখের পূর্ণাঙ্গ সনেট গ্রন্থের মধ্যে ‘মুহূর্তের কবিতা’, ‘দিলরুবা’, ও ‘অনুস্বার’ প্রধান। তিনি শিশু-কিশোরদের জন্য প্রচুর ছড়া ও কবিতা রচনা করেন।

১৯৭৪ সালের ১৯ অক্টোবর ইসলামী রেনেসাঁর এই কবি বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করেন। তার মৃত্যুর পর ১৯৭৭ সনে মরণোত্তর একুশে পদক দিয়ে ভাষা আন্দোলনে তার কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। ১৯৮০ সালে তাকে মরণোত্তর স্বাধীনতা পুরস্কার দেয়া হয়।

তার একটি উক্তি-

“মৃত্যু আসে তিল তিল শ্রান্তি

ম্লান সুপ্তির বন্ধনে।”

করোনায় আক্রান্ত আ'লীগের আরেক এমপি, এনিয়ে ৪ জন

করোনায় আক্রান্ত আ'লীগের আরেক এমপি, এনিয়ে ৪ জন

এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন জামালপুর-২ (ইসলামপুর) আসনের আওয়ামী লীগের এমপি

যেভাবে মাত্র ৭ দিনে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর করোনা জয়!

যেভাবে মাত্র ৭ দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর করোনা জয়!

আসলে কতটুকু সচেতনতা আমাদেরকে জয় এনে দিতে পারে নভেল করোনা

সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত গণস্বাস্থ্যের কিটের উদ্ভাবক ড. ফিরোজ

সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত গণস্বাস্থ্যের কিটের উদ্ভাবক ড. ফিরোজ

এবার সস্ত্রীক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ড. ফিরোজ আহমেদ। তিনি গণস্বাস্থ্য

আন্তর্জাতিক

করোনায় আক্রান্ত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিহত সেই জর্জ ফ্লয়েড!

করোনায় আক্রান্ত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিহত সেই জর্জ ফ্লয়েড!

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের হাতে নিহত কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বুধবার তার চূড়ান্ত ময়নাতদন্তের

জাতীয়

বরিশালে দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক

বরিশালে দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক

করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার কিছুদিন পর আবার করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বরিশালের এক চিকিৎসক। তার নাম মো. শিহাবউদ্দিন। তিনি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জুনিয়র কনসালট্যান্ট (সার্জারি)।

অর্থনীতি

চলতি জুন থেকেই শুরু শ্রমিক ছাঁটাই: রুবানা হক

চলতি জুন থেকেই শুরু শ্রমিক ছাঁটাই: রুবানা হক

‘চলতি জুন থেকে শ্রমিকদের ছাঁটাই করা হবে। এটি অনাকাঙ্ক্ষিত বাস্তবতা। কিন্তু করার কিছু নেই। কারণ শতকরা ৫৫ শতাংশ ক্যাপাসিটিতে ফ্যাক্টরি চলছে। আমাদের ছাঁটাই ছাড়া কোনো উপায় থাকবে না। তবে এ ছাঁটাই প্রক্রিয়ায় শ্রমিকদের জন্য কী করা হবে; এ বিষয়ে সরকারের সঙ্গে কথা বলছি, কীভাবে এ সংকট মোকাবিলা করা যায়। তবে এ অবস্থা হঠাৎ করে বদলেও যেতে পারে। তখন ছাঁটাই হওয়া শ্রমিকরাই কাজে যোগ দেয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন।’

জাতীয়

ভিন্ন নামে ২০০ বার একই নম্বর, সেই ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

ভিন্ন নামে ২০০ বার একই নম্বর, সেই ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রী নগদ আড়াই হাজার টাকা অর্থ সহায়তার তালিকায় ভিন্ন ভিন্ন নামে একই মোবাইল নম্বর সর্বোচ্চ ২০০ বার ব্যবহার করেছিলেন হবিগঞ্জের এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান। তার নাম রফিকুল ইসলাম মলাই। তিনি হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার মুড়িয়াউক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ ওই চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে সরকার।

জাতীয়

করোনা: নতুন শনাক্ত ২৪২৩, মৃত্যু ৩৫ জনের

করোনা: নতুন শনাক্ত ২৪২৩, মৃত্যু ৩৫ জনের

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও দুই হাজার ৪২৩ জন। ফলে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৭ হাজার ৫৬৩ জনে। একই সময়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে মারা গেছেন ৩৫ জন। ফলে করোনায় মোট মারা গেলেন ৭৮১ জন।

স্বাস্থ্য

মাস্ক না ফেস শিল্ড, কোনটি বেশি নিরাপদ?

মাস্ক না ফেস শিল্ড, কোনটি বেশি নিরাপদ?

কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তের গ্রাফ ক্রমেই উর্ধমুখী। এর মধ্যেই যেতে হচ্ছে বিভিন্ন অফিস ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। রাস্তা ও যানবাহনে সামাজিক দূরত্বের মাপকাঠি বজায় থাকছে না বললেই চলে। এদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে জানানো হচ্ছে- করোনাভাইরাসের মারণক্ষমতা একটুও কমেনি। কাজেই লকডাউন তোলার পর্যায়ে খুব সতর্ক থাকতে হবে। বাড়তি সতর্কতা হিসেবে অনেকেই মাস্কের উপর স্বচ্ছ প্লাস্টিকের মুখাবরণ বা ফেস শিল্ড পরছেন।