• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬
“অবিচারের চূড়ান্ত পরিণতিই হলো স্বাধীনতা”

“অবিচারের চূড়ান্ত পরিণতিই হলো স্বাধীনতা”

ফ্রঁসোয়া-মারি আরুয়ে, যিনি ছদ্মনাম ভলতেয়ার নামেই বেশি পরিচিত। ফরাসি আলোকময় যুগের একজন লেখক, প্রাবন্ধিক, দার্শনিক ও পথ প্রদর্শক। ১৬৯৪ সালের ২১ নভেম্বর ফ্রান্সের প্যারিসে এক মধ্যবিত্ত পরিবারে ভলতেয়ারের জন্ম।

বিস্তারিত
"নেতারাই দেবতা। দেবতাকে নৈবেদ্য  দাও। কিসের নৈবেদ্য? কলা নয়, মুলো  নয়, ভোট, ভোট দাও”

"নেতারাই দেবতা। দেবতাকে নৈবেদ্য দাও। কিসের নৈবেদ্য? কলা নয়, মুলো নয়, ভোট, ভোট দাও”

ভারতীয় বাঙালি লেখক সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়, যিনি মূলত হাস্যরসাত্মক রচনার জন্য খ্যাত। সঞ্জীব ১৯৩৬ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অনেক উপন্যাস,ছোটগল্প ও প্রবন্ধ রচনা করেছেন| কলকাতার স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে রসায়ন বিদ্যায় অনার্স পাশ করেন তিনি। এরপর বেশ কিছুদিন সরকারি চাকরি করেছেন।

বিস্তারিত
“যার দ্বারা নিশ্চয়জ্ঞান হয়, অর্থাৎ বিশ্বাস উৎপন্ন হয় তার নাম প্রমাণ”

“যার দ্বারা নিশ্চয়জ্ঞান হয়, অর্থাৎ বিশ্বাস উৎপন্ন হয় তার নাম প্রমাণ”

রাজশেখর বসু, একজন বিশিষ্ট ভারতীয় বাঙালি সাহিত্যিক, অনুবাদক, রসায়নবিদ ও অভিধান প্রণেতা। ‘পরশুরাম’ ছদ্মনামে তার ব্যঙ্গকৌতুক ও বিদ্রুপাত্মক কথাসাহিত্যের জন্য তিনি প্রসিদ্ধ। তিনি ১৮৮০ খ্রিষ্টাব্দের ১৮ মার্চ পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার শক্তিগড়ের সন্নিকটস্থ বামুনপাড়া গ্রামে তার মামার বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তার সাহিত্যিক কর্মজীবন শুরু হয় ১৯২০-এর দশকে। তার প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা মোট ২১টি।

বিস্তারিত
“দানের সঙ্গে শ্রদ্ধা ও প্রেম মিলিলে তবেই তাহা সুন্দর ও সমগ্র হয়”

“দানের সঙ্গে শ্রদ্ধা ও প্রেম মিলিলে তবেই তাহা সুন্দর ও সমগ্র হয়”

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৮৬১ সালের ৭ মে কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন অগ্রণী বাঙালি কবি, ঔপন্যাসিক, সঙ্গীতস্রষ্টা, নাট্যকার, চিত্রকর, ছোটগল্পকার, প্রাবন্ধিক, কণ্ঠশিল্পী ও দার্শনিক। রবীন্দ্রনাথকে বাংলা ভাষার সর্বশ্রেষ্ঠ সাহিত্যিক মনে করা হয়। এজন্য তাকে গুরুদেব, কবিগুরু ও বিশ্বকবি অভিধায় ভূষিত করা হয়।

বিস্তারিত
"প্রেম হলো বাতাসের মতো, যাকে দেখা যায় না, অনুভব করা যায়"

"প্রেম হলো বাতাসের মতো, যাকে দেখা যায় না, অনুভব করা যায়"

নিকোলাস স্পার্কস, একজন আমেরিকান চিত্রনাট্যকার এবং ঔপন্যাসিক। ১৯৬৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর আমেরিকার নেব্রাস্কার ওমাহাতে জন্মগ্রহণ করেন। তার প্রথম প্রকাশিত উপন্যাস দ্য নোটবুক। এটি প্রকাশিত হয় ১৯৯৬ সালের অক্টোবর মাসে। তার প্রেমের উপন্যাস অবলম্বনে একই নামে নির্মিত একটি চলচ্চিত্র বিশ্বব্যাপী তরুণ প্রজন্মের কাছে আলাদা ইমেজ তৈরি করেছে।

বিস্তারিত
“মৃত্যু আর ভালোবাসা ভালো মানুষের দুই পাখা যা তাকে স্বর্গের কাছাকাছি পৌঁছে দেয়”

“মৃত্যু আর ভালোবাসা ভালো মানুষের দুই পাখা যা তাকে স্বর্গের কাছাকাছি পৌঁছে দেয়”

রেনেসাঁস যুগের অন্যতম প্রধান ভাস্কর মাইকেলেঞ্জেলো। পুরো নাম মাইকেলেঞ্জেলো দ্য লোদোভিকো বুওনারোত্তি সিমোনি। ছিলেন চিত্রকর, স্থপতি ও কবি। তিনি ১৪৭৫ সালের ৬ মার্চ ইতালির ক্যাপ্রিসির আরেজ্জোতে জন্মগ্রহণ করেন। ১৪৮৮ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে তিনি বিখ্যাত চিত্রশিল্পী ডমেনিকো গিল্যান্ডায়োর কাছে শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ শুরু করেন। পরের বছরই শিল্পী হিসেবে গিল্যান্ডায়োর কাছ থেকে মাসোয়ারা পান।

বিস্তারিত
“মূর্খরা শান শওকত দেখানোর মধ্যে গৌরব খুঁজে পায়।”

“মূর্খরা শান শওকত দেখানোর মধ্যে গৌরব খুঁজে পায়।”

বয়স যখন ১২, তখন রাস্তার বখাটে ছেলেদের হাতে তাকে একবার মার খেতে হয়েছিল। এ ঘটনাটিই হয়তো তার জীবন পালটে দেয়। এরপরই তিনি মার্শাল আর্টে ঝুঁকে পড়েন। পরবর্তীকালে চলচ্চিত্রেও মার্শাল আর্টকে ব্যবহার করা হয় তারই হাত ধরে। তিনি ব্রুস লি। একই সঙ্গে মার্শাল আর্ট শিল্পী, শিক্ষক, চিত্রনাট্যকার ও অভিনেতা।

বিস্তারিত
“যত বিচিত্র মানুষ তত বিচিত্র তার পত্র” 

“যত বিচিত্র মানুষ তত বিচিত্র তার পত্র” 

প্রখ্যাত ভারতীয় বাঙালি লেখক, ঔপন্যাসিক সমরেশ বসু। তিনি ১৯২৪ সালের ১১ ডিসেম্বর ঢাকার বিক্রমপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি কালকূট ও ভ্রমর ছদ্মনাম ব্যবহার করতেন। তার রচনায় রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড, শ্রমজীবী মানুষের জীবন এবং যৌনতাসহ বিভিন্ন অভিজ্ঞতার সুনিপুণ বর্ণনা ফুটে ওঠে।

বিস্তারিত
“ভুল সংশোধনে লজ্জাবোধ করো না”

“ভুল সংশোধনে লজ্জাবোধ করো না”

চীনের ঐতিহ্যিক আর সংস্কৃতির কথা বলতে গেলে সে দেশের একজন বিখ্যাত ব্যক্তির কথা অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে, তিনি হলেন কনফুসিয়াস। কনফুসিয়াস জন্মেছিলেন প্রাচীন চীনের লু নামক ক্ষুদ্র রাজ্যে (বর্তমানে শ্যানডং প্রদেশের অন্তর্গত) আনুমানিক ৫৫০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে।

বিস্তারিত
“যে ভুল করে না, সে মানুষ নয়”

“যে ভুল করে না, সে মানুষ নয়”

ফার্সি সাহিত্যে একটি প্রবাদ আছে- ‘সাতজন কবির সাহিত্যকর্ম রেখে যদি বাকি সাহিত্য দুনিয়া থেকে মুছে ফেলা হয়, তবু ফার্সি সাহিত্য টিকে থাকবে। এই সাতজন কবির অন্যতম শেখ সাদি।’

বিস্তারিত