• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭

চট্টগ্রামে ডা.আকাশ আত্মহত্যা: স্ত্রীসহ ৫ জন অভিযুক্ত

চট্টগ্রামে ডা.আকাশ আত্মহত্যা: স্ত্রীসহ ৫ জন অভিযুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশকে আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় তার স্ত্রীসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চান্দগাঁও থানার এসআই আবদুল কাদের সোমবার বিকালে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আদালতের প্রসিকিউশন শাখায় অভিযোগপত্রটি জমা দিলেও বুধবার বিষয়টি জানা যায়।

অভিযোগপত্রভুক্ত আসামিরা হলেন- চিকিৎসক আকাশের স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতু, তার মা শামীমা শেলী, বাবা আনিসুল হক চৌধুরী, ছোট বোন সানজিলা হক চৌধুরী আলিশা এবং মিতুর কথিত বন্ধু ডা. মাহবুবুল আলম।

মামলার ছয় আসামির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী ভারতীয় নাগরিক উত্তম প্যাটেল নামের একজনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) মো. কামরুজ্জামান গণমাধ্যমকে জানান, ‘আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে মিতু, তার বাবা-মা ও বোন এবং ডা. মাহবুবুল আলমসহ মোট পাঁচজনকে অভিযোগপত্রে আসামি করা হয়েছে। সোমবার এটি প্রসিকিউশন শাখায় জমা পড়ে। বুধবার অভিযোগপত্রটি সংশ্লিষ্ট আদালতে পাঠানো হয়েছে’।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ডা. আকাশের মা জোবেদা খানম বাদি হয়ে দণ্ডবিধির ৩০৬ ধারায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে ছয়জনকে আসামি করে মামলাটি করেন।

চট্টগ্রাম হাসপাতালে চাকরির পাশাপাশি ৩২ বছর বয়সী আকাশ  সেখানে ‘থ্রি ডক্টরস’ নামে মেডিকেল ভর্তির একটি কোচিং সেন্টার চালাতেন। ২০১৬ সালে আকাশের স্ত্রী মিতু কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস শেষ করে চট্টগ্রাম মেডিকেলে ইন্টার্ন করেন। সেখান থেকেই তাদের মধ্যে পরিচয় এবং পরে বিয়ে।

বিয়ের পরপরই উচ্চ শিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান মিতু। সেখান থেকে ১৩ জানুয়ারি দেশে ফেরেন তিনি। এরপর ৩১ জানুয়ারি ভোরে নগরীর চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার বাসায় ইনজেকশনের মাধ্যমে নিজের শরীরে বিষ প্রয়োগ করে আত্মহত্যা করেন আকাশ।

আত্মহত্যার আগে ফেসবুক স্ট্যাটাসে স্ত্রীর বিরুদ্ধে ‘বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্ক’ ও ‘প্রতারণার’ অভিযোগ করে যান। এর ‘প্রমাণ’ হিসেবে মিতুর সঙ্গে তার ‘বন্ধুদের’ বেশ কিছু ছবিও তিনি ফেইসবুকে তুলে দিয়ে যান তিনি।

এরপর ৩১ জানুয়ারি রাতে নন্দনকানন এলাকায় এক আত্মীয়র বাসা থেকে মিতুকে আটক করে পুলিশ।

 

টাইমস/এমএস 

 

 

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই, আরও ২৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই, আরও ২৯ জনের মৃত্যু

দেশে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। গত ২৪

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল, ঢাকার চার প্রকৌশলী বরখাস্ত

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল, ঢাকার চার প্রকৌশলী বরখাস্ত

ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল করার অভিযোগে ঢাকা পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের

করোনায় স্থগিত যশোর-বগুড়ার উপনির্বাচন ১৪ জুলাই

করোনায় স্থগিত যশোর-বগুড়ার উপনির্বাচন ১৪ জুলাই

আগামী ১৪ জুলাই যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখ

জাতীয়

করোনায় মৃতের হিসেবে শীর্ষে যে এলাকা

করোনায় মৃতের হিসেবে শীর্ষে যে এলাকা

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর থেকে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা একই গতিতে এগিয়ে চলেছে। খুব বেশি উত্থান পতন নেই মৃত্যু ও আক্রান্তের হারে। বলা যেতে পারে, দেশে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই ছকে বাঁধা। তারপরও প্রতিদিনই মানুষ মরছে, আক্রান্ত হচ্ছে অনেকে।

জাতীয়

১০ ঘণ্টার ব্যবধানে পাঁচশ গজ দূরে মিলল বাবা-ছেলের লাশ

১০ ঘণ্টার ব্যবধানে পাঁচশ গজ দূরে মিলল বাবা-ছেলের লাশ

ট্রলার বোঝাই চাই নিয়ে (মাছ ধরায় ব্যবহার হয়) ইয়াসিন হাওলাদার (২৫) ও তার বাবা হেলাল উদ্দিন হাওলাদার (৫০) শুক্রবার বরিশালের বাকেরগঞ্জের কবাই হাটে আসে। সেখানকার এক ব্যক্তি তাদের কাছ থেকে ৬০টি চাই ক্রয় করেন। এরপর ওই চাই তার বাড়িতে দিয়ে আসতে বলেন। ট্রলারসহ চাই পৌঁছে দিতে গিয়ে তারা আর ফিরে আসেনি।

জাতীয়

ঈদের আগেই শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধ করুন: কাদের

ঈদের আগেই শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধ করুন: কাদের

ঈদুল আজহার আগেই পোশাক শিল্পসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে কর্মরত শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধের আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এছাড়া কারখানা মালিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, শ্রমিকদের প্রতি সহমর্মিতা দেখান। মানুষের পাশে দাড়ান।

জাতীয়

বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েও ভর্তি হতে না পারা ছেলেটি এখন বিসিএস ক্যাডার!

বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েও ভর্তি হতে না পারা ছেলেটি এখন বিসিএস ক্যাডার!

আল আমিন (নাফিস)। ৩৮ তম বিসিএসে আনসার ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন। মেধাক্রম ৮ম। তিনি ৩৬ তম বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে বর্তমানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর সরকারি কলেজে বোটানি বিভাগের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

জাতীয়

বিএসএফের সঙ্গে তর্ক করায় বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

বিএসএফের সঙ্গে তর্ক করায় বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বেপরোয়া ভাব থামছেই না। প্রতিদিনই কোনো না কোনো বাংলাদেশীকে নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করছে বিএসএফ। এনিয়ে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ্য থেকেও কোনো প্রতিক্রিয়া দেখানো হচ্ছে না। এতে করে আরও পেয়ে বসেছে বিএসএফ। সীমান্তে বেড়েই চলেছে বিএসএফের বর্বরতা।

স্বাস্থ্য

হাই ব্লাড প্রেসারে ভয়াবহ হতে পারে কোভিড সংক্রমণ

হাই ব্লাড প্রেসারে ভয়াবহ হতে পারে কোভিড সংক্রমণ

দীর্ঘদিন ধরে রক্তচাপজনিত অসুখ বা হাই ব্লাড প্রেসারের সমস্যায় ভুগছেন, এসব ব্যক্তির ক্ষেত্রে লিঙ্গ, বয়স নির্বিশেষে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটাই বেশি। তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকি কেন বেশি, এই নিয়ে ক্লিনিক্যাল মেডিসিন জার্নালের রিসার্চ বলছে, উচ্চ রক্তচাপ মানেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। তাই ভাইরাস যুদ্ধে জয়ের সম্ভাবনাও কম।