• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭

জেনে নিন, রক্ত বিশুদ্ধিকরণ কেন জরুরি এবং কিভাবে করা যায়

জেনে নিন, রক্ত বিশুদ্ধিকরণ কেন জরুরি এবং কিভাবে করা যায়

ফিচার ডেস্ক২০ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:২৮এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

আমাদের দেহের সুস্থতা ও স্বাভাবিকতা বজায় রাখতে রক্ত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রক্তের মাধ্যমে অক্সিজেন, হরমোন, শর্করা, চর্বি ও বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান প্রবাহিত হয়। নানা ধরণের খাবার, দূষণ, স্ট্রেস ইত্যাদি কারণে প্রতিদিন আমাদের রক্তে বিষাক্ত পদার্থ জমা হয়। রক্ত হতে এই সব ক্ষতিকর উপাদান বা পদার্থসমূহ দূর করার প্রক্রিয়াকে ব্লাড ডিটক্সিফিকেশন বা রক্ত বিশুদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া বলা হয়ে থাকে।

রক্ত বিশুদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, ত্বকের উন্নতি ঘটায় এবং স্বাস্থ্যকর পরিবর্তন সমূহ ত্বরান্বিত করে। আপনার ফুসফুস, কিডনি ও লিভার প্রাকৃতিকভাবে আপনার রক্তকে বিশুদ্ধ করার লক্ষ্যে কাজ করে। আবার এমন কিছু খাবার রয়েছে, যা এই প্রক্রিয়াটি কিছুটা সহজ করে তুলতে পারে।

যেসব কারণে রক্ত বিশুদ্ধিকরণ প্রয়োজন-

  • আপনার ব্রণ, দাগ ও শুষ্কতার মতো ত্বকের সাধারণ সমস্যাসমূহ দূরীভূত হবে।
  • রক্ত পরিষ্কারের মাধ্যমে দূষিত রক্তের কারণে সৃষ্ট বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যা যেমন অ্যালার্জি, মাথা ব্যথা, বমি বমি ভাব প্রভৃতি হ্রাস হবে।
  • স্বাস্থ্যকর রক্ত সরবরাহ দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ সমূহ এবং তাদের কাজগুলিকে প্রভাবিত করে। কিডনি, হৃদপিণ্ড, লিভার, ফুসফুস এবং লিম্ফ্যাটিক সিস্টেম সবই স্বাস্থ্যকর রক্ত সরবরাহের উপর নির্ভরশীল।
  • ফুসফুস এবং শরীরের বাকী অংশে কার্বন ডাই অক্সাইড ও অক্সিজেনের নিরবচ্ছিন্ন পরিবহণের জন্য রক্ত পরিষ্কার করা গুরুত্বপূর্ণ।
  • রক্ত পরিশোধন প্রক্রিয়া আপনার দেহের পিএইচ মান, জলের ভারসাম্য এবং তাপমাত্রাকে নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে।
  • স্বাস্থ্যকর রক্তে পর্যাপ্ত পরিমাণ শ্বেত রক্তকণিকা থাকে, যা আঘাত থেকে রক্তক্ষয় হ্রাস করতে এবং রক্তে স্বাস্থ্যকর প্লেটলেট বাজায় রাখতে সহায়তা করে।

যেসব প্রাকৃতিক উপাদান আপনাকে রক্ত বিশুদ্ধিকরণে সহায়তা করবে-

হলুদ
হলুদ একটি শক্তিশালী প্রাকৃতিক পরিশোধক এবং দুর্দান্ত নিরাময়কারী। এটি আমাদের রক্ত পরিষ্কার করে এবং রোগ নিরাময়ের প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে। হলুদে বিদ্যমান কারক্যুমিন প্রদাহ এবং দেহের অন্যান্য সমস্যাগুলির বিরুদ্ধে লড়াই করে।

এটি লোহিত রক্তকণিকা তৈরি করতেও সহায়তা করে। এর ওষধিগুণের কথা বিভিন্ন আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে উল্লেখ রয়েছে। এক কাপ গরম দুধে ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো বা কাঁচা হলুদ বাটা মিশিয়ে পান করতে পারেন। এই পানীয় লিভারকে সর্বোত্তম কার্যক্রমে সহায়তা করে। এছাড়াও প্রতিদিন সকালে খালি পেটে কাঁচা হলুদ খেলে এটি আপনাকে রক্ত বিশুদ্ধ করতে এবং হজমের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করবে।

পানি
পানিকে বলা হয় অন্যতম প্রাকৃতিক ডিটক্সিফাংয়িং এজেন্ট। আপনি যত বেশি জল পান করবেন তত বেশি আপনার রক্ত বিশুদ্ধ থাকবে। পানি পানের কোনো বিকল্প নেই। এটি আমাদের শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলি বের করে দেয় এবং অঙ্গগুলোকে সঠিকভাবে কাজ করতে সহায়তা করে। এটি খনিজ ও ভিটামিন সমূহের প্রবাহকে সহায়তা করে এবং প্রস্রাবের মাধ্যমে বিষাক্ত পদার্থের অপসারণ ঘটায়।

লেবুর রস
এটি আপনার রক্ত ও পাচনতন্ত্রকে পরিষ্কার করতে সহায়তা করে, যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। লেবুর রস অম্ল প্রকৃতির এবং এটি আপনার পিএইচ স্তরের পরিবর্তন করতে পারে। লেবু রক্ত থেকে বিষাক্ত পদার্থ অপসারণে খুবই কার্যকর। বিভিন্ন ভাইরাস এবং রোগজীবাণু ক্ষারীয় পরিবেশে টিকে থাকতে অক্ষম। আপনার শরীর থেকে অযাচিত উপাদানগুলি দূর করতে খালি পেটে প্রতিদিন সকালে তাজা লেবুর রস পান করুন। এক গ্লাস গরম জলে ১/২ টি লেবুর রস নিন এবং আপনার প্রাতরাশের আগে পান করুন।

সবুজ শাকসবজি
আপনি সবুজ শাক-সবজির অনুরাগী নাও হতে পারেন, তবে এই সবজিগুলি প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পরিপূর্ণ থাকে। স্বাস্থ্যকর রক্ত প্রবাহ নিশ্চিত করতে এবং রক্ত বিশুদ্ধ করতে সরিষার শাক, মূলা শাক, তিতা করলা প্রভৃতি খেতে পারেন। এইসব সবুজ সবজিগুলি লিভারে এনজাইম বাড়াতে কার্যকর, যা রক্তের বিশুদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে সহায়তা করে। তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া ও এনডিটিভি

 

টাইমস/এনজে/জিএস

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি আরও বাড়ছে, ২৯ অক্টোবর সিদ্ধান্ত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি আরও বাড়ছে, ২৯ অক্টোবর সিদ্ধান্ত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরও বাড়ানো হচ্ছে। মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে শিক্ষার্থীদের

‘লিটল আইনস্টাইন’ বাংলাদেশি সুবর্ণকে নিউইয়রর্কে সর্বোচ্চ সম্মাননা

‘লিটল আইনস্টাইন’ বাংলাদেশি সুবর্ণকে নিউইয়রর্কে সর্বোচ্চ সম্মাননা

বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী (সাড়ে ৮ বছর) অধ্যাপক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত

‘আল্লাহ হাফেজ’ নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য, ঢাবির সেই শিক্ষককে নোটিশ!

‘আল্লাহ হাফেজ’ নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য, ঢাবির সেই শিক্ষককে নোটিশ!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. জিয়া রহমান একটি টেলিভিশনের

জাতীয়

স্কুল-কলেজে টিউশন ফি’র কিছু অংশ মওকুফ হতে পারে

স্কুল-কলেজে টিউশন ফি’র কিছু অংশ মওকুফ হতে পারে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আর্থিক সংকটে থাকা অভিভাবকদের সন্তানদের টিউশন ফি’র কিছু অংশ ছাড় দেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। চলতি মাসে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হবে বলে জানা গেছে।

আন্তর্জাতিক

মার্কিন ভোটারদের তথ্য ইরান-রাশিয়ার হাতে : ইমেইলে হুমকি

মার্কিন ভোটারদের তথ্য ইরান-রাশিয়ার হাতে : ইমেইলে হুমকি

মার্কিন মুলুকের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর মাত্র ১০ দিন বাকি। যুক্তরাষ্ট্র দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্রেটিক প্রার্থী জো বাইডেন। করোনার কারণে সরাসরি প্রচারণার চেয়ে এবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা বেশি হচ্ছে। চলছে নানা সমীকরণ।

খেলাধুলা

বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপের ফাইনাল আগামীকাল :  সরাসরি দেখাবে বিটিভি

বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপের ফাইনাল আগামীকাল : সরাসরি দেখাবে বিটিভি

আগামীকাল শুক্রবার বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনাল। বহুল প্রতীক্ষিত এ টুর্ণামেন্টের ফাইনালে লড়বে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও নাজমুল হোসেন শান্ত’র দল। খেলাটি বাংলাদেশ টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করবে। এর আগে ১১ অক্টোবর এ দুই দলের প্রথম খেলার মধ্যদিয়ে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের পর্দা উঠেছিল।

জাতীয়

গাজীপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গার্মেন্টকর্মীকে গণধর্ষণ

গাজীপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গার্মেন্টকর্মীকে গণধর্ষণ

এবার গাজীপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে এক গার্মেন্টলকর্মীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (২১ অক্টোবর) রাতে নগরীর কাশিমপুরের সারদাগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

জাতীয়

পুলিশের উর্ধ্বতন ১৯ কর্মকর্তার বদলি

পুলিশের উর্ধ্বতন ১৯ কর্মকর্তার বদলি

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) কমিশনার গোলাম কিবরিয়াসহ উর্ধ্বতন ১৯ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস সাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বদলির আদেশ দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ভূয়া ছবি শনাক্তের নতুন প্রযুক্তি

ভূয়া ছবি শনাক্তের নতুন প্রযুক্তি

ছবি আসল নাকি নকল, তা খালি চোখে ধরা সহজ নয়। এর ফলে অনেকেই সামাজিক মর্যাদাহানীর শিকার হন। আবার ভূয়া ছবির ওপর ভিত্তি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে নানা ধরণের ভূয়া সংবাদ।