• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০, ২৭ চৈত্র ১৪২৬

দই খেলে দূর হবে পেটের ব্যথাসহ নানা সমস্যা

দই খেলে দূর হবে পেটের ব্যথাসহ নানা সমস্যা

ফিচার ডেস্ক২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৩৫এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

দই আমাদের অতিপরিচিত ও প্রিয় একটি খাবার। আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ লোকই দই খেতে পছন্দ করেন। এটি যে কেবল স্বাদেই অসাধারণ তা কিন্তু নয়, হজমে সহায়তা করাসহ ত্বককে সুস্থ রাখতে দইয়ের ভূমিকাও অতুলনীয়।

মশলাদার খাবারের পর দই খাওয়ার রীতি আমাদের সমাজে এখনো অনেক জায়গায় প্রচলিত রয়েছে। এটি কিন্তু এমনি এমনি সৃষ্টি কোনো রীতি নয়, বরং এর পেছনে রয়েছে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা। একটি নতুন গবেষণায় দেখা গেছে যে, দই পেট ব্যথাসহ নানা রকমের হজমজনিত সমস্যা দূর করতে সহায়তা করতে পারে। তাই ভারী খাবারের পর দই খাওয়া অত্যন্ত স্বাস্থ্য সম্মত।

প্রোবায়োটিকস ও অ্যান্টিমিক্রোবিয়াল প্রোটিন জার্নালে প্রকাশিত এই গবেষণায় বলা হচ্ছে, গরুর খাঁটি দুধের তৈরি দইতে একটি বিশেষ প্রজাতির ব্যাকটেরিয়া রয়েছে, যা পেটের ব্যথার জন্য দায়ী বিষাক্ত আফলাটক্সিন বি-১ এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়ক।

আফলাটক্সিন অনেক সময় গম ও বাদামের মতো খাবারে সংক্রামিত হতে পারে। এই আক্রান্ত খাবারগুলি খেলে আমাদের স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে, ফলে পাকস্থলীতে হালকা ব্যথা থেকে শুরু করে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে। আফলাটোসিন বি-১ আসলে খাদ্যে বিষক্রিয়া বা ফুড পয়জনিংয়ের অন্যতম সাধারণ কারণ।

দইয়ে বিদ্যমান বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া ফুড পয়জনিংয়ের জন্য দায়ী আফলাটোসিন বি-১ এর বিরুদ্ধে কার্যকর। আফলাটোসিনের বিনাশের মধ্য দিয়ে এটি আমাদের ফুড পয়জনিং ও অন্যান্য হজমজনিত সমস্যা থেকে দূরে রাখে।

দই খাওয়ার অন্যান্য উপকারিতা
হজম সমস্যা ও পেটে ব্যথা দূর করা ছাড়াও দই নানাভাবে আমাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে থাকে। এর মধ্যে রয়েছে-

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করে
ভালো ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতি আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যকে ভালো রাখতে এবং দিনের বেলা বায়ুবাহিত রোগের বিরুদ্ধে একটি শক্তিশালী প্রতিরোধ ব্যবস্থা তৈরি করতে সহায়তা করে।

শক্তিশালী হাড় ও দাঁত
ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস সমৃদ্ধ দই শক্তিশালী হাড় এবং দাঁত বিকাশে সহায়তা করে।

ওজন কমাতে সহায়তা করে
দই আমাদের দেহে স্থূলত্ব এবং উচ্চ রক্তচাপের জন্য দায়ী করটিসোল জমতে বাধা দেয়। প্রতিদিন দই খেলে তা আপনাকে ওজন কমাতে সহায়তা করবে।

স্বাস্থ্যকর ও উজ্জ্বল ত্বকের জন্য
দইতে অ্যাসিডিক যৌগ থাকে, যা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সঙ্গে লড়াই করতে অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল ও অ্যান্টিফাঙ্গাল হিসেবে কাজ করতে পারে। কিছুটা চুনের রসের সঙ্গে দই মিশিয়ে দশ মিনিটের জন্য আপনার মুখে লাগান। হালকা গরম পানি দিয়ে পরে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বকের কুঁচকে যাওয়া প্রতিরোধ করে
দইয়ে বিদ্যমান অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ত্বকের যৌবন ধরে রাখতে এবং অকালে কুচকে যাওয়া হতে ত্বককে রক্ষা করতে সহায়তা করে।

দাগ দূর করে
দই কোমল উপায়ে ত্বককে এক্সফোলাইটেড করতে সহায়তা করে। যদি আপনার মুখে দাগ থাকে এবং আপনি যদি প্রাকৃতিকভাবে চিকিৎসা করতে চান, তবে দই আপনার প্রাকৃতিক প্রতিকার হতে পারে।

খুশকি দূর করে
অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্যযুক্ত দই খুশকি দূর করার জন্য আপনার প্রাকৃতিক প্রতিকার হতে পারে। তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

 

টাইমস/এনজে/জিএস

ইতালিতে করোনায় প্রাণ হারালেন ১০০ চিকিৎসক

ইতালিতে করোনায় প্রাণ হারালেন ১০০ চিকিৎসক

মহামারী করোনাভাইরাসের ভয়াল থাবায় ইতালি যেন মৃত্যুপুরী। এখনো থামছেনা মৃত্যুর

সন্ধ্যা ৬টার পর ঘরের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ

সন্ধ্যা ৬টার পর ঘরের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ

দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সন্ধ্যা ৬টার পর নাগরিকদের ঘরের বাইরে

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৬ জনের

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৬ জনের

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৬ জনের

জাতীয়

সাধারণ ছুটি বাড়ল ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত

সাধারণ ছুটি বাড়ল ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত

মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবারের ঘোষণার মধ্য দিয়ে চতুর্থ দফায় সাধারণ ছুটি বাড়ানো হলো। এর আগে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আমহদ কায়কাউস সাধারণ ছুটি বাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

জাতীয়

সিঙ্গাপুরে আরও ১১৬ বাংলাদেশী করোনায় আক্রান্ত

সিঙ্গাপুরে আরও ১১৬ বাংলাদেশী করোনায় আক্রান্ত

সিঙ্গাপুরে গত ২৪ ঘন্টায় ১১৬ প্রবাসী বাংলাদেশীসহ মোট ২৮৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের বাংলাদেশী প্রবাসীদের সংখ্যা গিয়ে দাড়াল ৩৬০ জনে। সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য বিভাগ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

জাতীয়

করোনা : রাজধানীর মিরপুরে দুটি আবাসিক ভবন লকডাউন

করোনা : রাজধানীর মিরপুরে দুটি আবাসিক ভবন লকডাউন

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রাজধানীর মিরপুরে আরও দুটি আবাসিক ভবন লকডাউন করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্রে এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জাতীয়

রাজধানীতে আরও দুই সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত

রাজধানীতে আরও দুই সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত

রাজধানী ঢাকায় আরও দুইজন সাংবাদিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের এক সংবাদকর্মী করোনায় আক্রান্ত হন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে তিনজন সংবাদকর্মী প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

স্বাস্থ্য

করোনাভাইরাস : অ্যাজমা রোগীদের যা জানা প্রয়োজন

করোনাভাইরাস : অ্যাজমা রোগীদের যা জানা প্রয়োজন

নোভেল করোনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগটির অন্যতম প্রধান উপসর্গ হলো- কফ ও শ্বাসকষ্ট। সাধারণ ঠাণ্ডা বা ইনফ্লুয়েঞ্জার মতোই কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তির শ্বাসযন্ত্রে সংক্রমণ ঘটায়, শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় এবং অনেক সময় কৃত্রিম শ্বাসপ্রশ্বাস গ্রহণের প্রয়োজন পড়ে। ফলে যাদের অ্যাজমা বা শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে, রোগটি তাদের জন্য মারাত্মক হুমকি হয়ে উঠতে পারে। বিভিন্ন গবেষণা বলছে, যাদের ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ কিংবা অ্যাজমার মতো দুরারোগ্য ব্যাধি রয়েছে, কোভিড-১৯তে আক্রান্ত হলে তাদের ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বেশি। তবে রোগটি অ্যাজমা রোগীদেরকে কিভাবে প্রভাবিত করবে কিংবা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ায় কিনা, সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি।

বিনোদন

প্রবাসীদের পাশে দাঁড়ালেন সুজানা, দিলেন ১৫ দিনের খাবার!

প্রবাসীদের পাশে দাঁড়ালেন সুজানা, দিলেন ১৫ দিনের খাবার!

মডেল অভিনেত্রী সুজানা জাফর। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আটকা পড়েছেন তিনি। পরিস্থিতি যখন স্বাভাবিক ছিল তখন সেখানে গিয়েছিলেন সুজানা, পরে আর ফিরতে পারেননি তিনি।