• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭

‘এক-দুই সন্তান নীতি’ প্রত্যাশা ও প্রভাব

‘এক-দুই সন্তান নীতি’ প্রত্যাশা ও প্রভাব

সাঈদা জাহান২২ জানুয়ারি ২০২০, ১০:৫০এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

চীনের one-child policy (এক সন্তান নীতি) সম্পর্কে আমরা মোটামুটি সবাই জানি। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চীনে ১৯৭৯ সালে এই নীতি চালু হয়। এই নীতি পৃথিবীর বৃহৎ জনসংখ্যার দেশ চীনকে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ‘লিঙ্গ ভারসাম্যহীনতা’ উপহার দিয়েছে! যার ফলে ২০১৫ সালে সেই নিয়ম ভেঙে দেয় চীনা সরকার।

এই ‘এক সন্তান নীতি’ ৪-২-১ সমস্যারও জনক। ৪-২-১ সমস্যা হচ্ছে- একজন বাচ্চা তার বয়স্ক দুই বাবা-মা (এখানে বাবা-মা এক সন্তান নীতির ফলে উনারা তাদের বাবা মার একমাত্র বাচ্চা) এবং চার গ্র্যান্ড পেরেন্টস (নানা-নানী ও দাদা-দাদী) সবাইকে দেখে রাখার একমাত্র অবলম্বন। যেহেতু তার অন্য কোনো ভাইবোন নেই এই বয়স্ক মানুষদের দেখভাল করতে।

আমাদের দেশে যদিও এ রকম কোনো নীতি নেই, তারপরও সবার মাঝে ছেলেমেয়ে যাইহোক- দুটো বাচ্চা নেয়ার একটি সুপ্ত চাপ বিদ্যমান। যেমন ধরা যাক, চাকুরীজীবী মায়েদের জন্য মাত্র দুইটি মাতৃত্বকালীন ছুটি বরাদ্দ দেয়া। আর বাবাদের তো তাও নেই।

অথচ ছোট বাচ্চা বড় করাতো চাট্টিখানি কথা নয়- তাই উচ্চশিক্ষা শেষে ক্যারিয়ারের চাপ সামলানো ক্লান্ত মায়েদের আর বেশি বাচ্চা নেয়ার এনার্জিও থাকে না।

এতে করে যে সমস্যা হচ্ছে, তা নিয়ে নিজের একটা উদাহরণ দেই- পরে সবাই যার যার জীবনের সঙ্গে মিলিয়ে নিতে পারবেন।

আমার দাদী-নানী কেউই চাকুরী করতেন না এবং খুবই অল্প বয়সে (দাদীর ১২ বছর বয়সে) উনাদের বিয়ে হয়েছিল। আলহামদুলিল্লাহ্‌ আমার মামা, খালা, চাচা থাকলেও কোনো ফুফু নেই। এরপর আসলো আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম। আমার মেয়ের কোনো ফুফু কিংবা খালা নেই।

এবার যদি আমরা ভবিষ্যতের দিকে তাকাই তাহলে দেখবো, এই ‘এক-দুই সন্তান নীতি’ প্রত্যাশার জাঁতাকলে আমাদের নাতি-নাতনিদের প্রজন্মের বেশির ভাগের কপালেই মামা কিংবা চাচা কিংবা খালা কিংবা ফুফু না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। তবে, সমাজের বেশির ভাগ মানুষের জন্য এই দশা হওয়া দুঃখজনক।

আমাদের তিন ভাইবোনের নির্বিঘ্নে ও নিরাপদে বেড়ে উঠার পিছনে আমাদের মামা-খালাদের বিরাট অবদান রয়েছে। যেটা আমাদের বাচ্চাদের পাওয়ার আর সুযোগ নেই।

অভিভাবক বিশেষজ্ঞদের মতে, একটা বাচ্চার মানসিক বিকাশের জন্য প্রসবকালীন ও পৈতৃক মামা কিংবা চাচা থাকার গুরুত্ব অপরিসীম।

ছহীহ আবু দাউদের এক হাদিসের বর্ণনা অনুযায়ী “খালা মায়ের মতো একই মর্যাদার।”

বর্তমানে আমরা দেখতে পাচ্ছি, বিশ্বব্যাপী পারিবারিক বন্ধনের ভালোবাসার অভাবে তরুণ প্রজন্ম একাকী বেড়ে উঠছে। যার ফলে তারা শারীরিক ও মানসিক বিকাশে বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে। এর পেছনে আমাদের ‘এক-দুই সন্তান নীতি’ প্রত্যাশার প্রভাব কোনো অংশেই কিন্তু কম নয়।

লেখক: সাঈদা জাহান তানিয়া, গবেষণা সহযোগী, সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)।

 

টাইমস/জিএস

ফরম পূরণের আংশিক টাকা ফেরত পাবেন এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা

ফরম পূরণের আংশিক টাকা ফেরত পাবেন এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা

করোনাভাইরাসের কারণে বাতিল হওয়া এবছরের এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের আংশিক

লাইফ সাপোর্টে ব্যারিস্টার রফিক-উল-হক

লাইফ সাপোর্টে ব্যারিস্টার রফিক-উল-হক

সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল

দেশের মাটিতে পা রাখলেই গ্রেপ্তার হবেন পি কে হালদার

দেশের মাটিতে পা রাখলেই গ্রেপ্তার হবেন পি কে হালদার

অর্থপাচার মামলার আলোচিত আসামি পি কে হালদারকে (প্রশান্ত কুমার হালদার)

জাতীয়

শয়তান ভর করায় ভাই ভাবি ভাতিজিকে গলাকেটে হত্যা

শয়তান ভর করায় ভাই ভাবি ভাতিজিকে গলাকেটে হত্যা

ডিআইজ ওমর ফারুক বলেন, পারিবারিক বিরোধের জেরে পরিকল্পিতভাবে বড় ভাই, ভাবি ও দুই ভাতিজা-ভাতিজিকে গলাকেটে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছেন রায়হান। রায়হানুল বলেছেন, ‘শয়তান আমার ওপর ভর করেছিল। তাই আমি এটা করেছি।’

জাতীয়

রায়হান হত্যার আলামত নষ্ট করায় এসআই হাসান বরখাস্ত

রায়হান হত্যার আলামত নষ্ট করায় এসআই হাসান বরখাস্ত

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই হাসান উদ্দিনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। থানায় নিয়ে পুলিশী নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ঘটনার সিসি ক্যামেরা ফুটেজসহ আলামত নষ্ট ও অভিযুক্ত এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তা করায় তাকে বরখাস্ত করা হয়।

জাতীয়

এবার মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষাও বাতিল

এবার মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষাও বাতিল

অবশেষে এবছরের মাধ্যমিক স্তরের সব শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল করে দিয়েছে সরকার। করোনা মহামারীর কারণে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

রাজনীতি

কামাল হোসেনকে বহিষ্কার করবে গণফোরাম

কামাল হোসেনকে বহিষ্কার করবে গণফোরাম

দলের গঠনতন্ত্র বিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনকে শোকজ করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির নির্বাহী সভাপতি ও মুখপাত্র সুব্রত চৌধুরী। তিনি আরও বলেন, ড. কামাল হোসেন যদি শোকজের জবাব সন্তোষজনক ভাবে দিতে ব্যর্থ হন, তাহলে তাকে দল থেকে চূড়ান্ত ভাবে বহিষ্কার করা হবে।

আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানে ভিসা নিতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ১৫ জনের মৃত্যু

আফগানিস্তানে ভিসা নিতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ১৫ জনের মৃত্যু

আফগানিস্তানে ভিসার আবেদন করতে গিয়ে ধাক্কাধাক্কির একপর্যায়ে পদদলিত হয়ে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন বহু মানুষ। দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় জালালাবাদ শহরে পাকিস্তান কনস্যুলেটের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

খেলাধুলা

এবার মাশরাফির দুই সন্তান করোনা পজিটিভ

এবার মাশরাফির দুই সন্তান করোনা পজিটিভ

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার দুই সন্তান হুমায়রা মর্তুজা ও সাহেল মর্তুজা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মাশরাফির দুই সন্তানকে বাসায় রেখেই চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তারা এখন পর্যন্ত শারীরিকভাবে সুস্থ রয়েছে।