• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ঘুষের মামলায় নাজমুল হুদার জামিন

ঘুষের মামলায় নাজমুল হুদার জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক২১ জানুয়ারি ২০১৯, ০২:৩০পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

ঘুষ গ্রহণের মাধ্যমে দুর্নীতির দায়ে চার বছর দণ্ডের মামলায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ থেকে জামিন পেয়েছেন সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।

সোমবার চার বছরের সাজার রায়ের বিরুদ্ধে নাজমুল হুদার লিভটু আপিল গ্রহণ করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন নেতৃত্বাধীন চার বিচারকের আপিল বেঞ্চ তাকে জামিন দেন।

আদালতে নাজমুল হুদার পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফ, মনসুরুল হক চৌধুরী ও নাজমুল হুদার স্ত্রী অ্যাডভোকেট সিগমা হুদা। অপরদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে দুদকের উপ-পরিচালক মোঃ শরিফুল ইসলাম ২০০৭ সালের ২১ মার্চ নাজমুল হুদা ও তার স্ত্রী সিগমা হুদার বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

নাজমুল হুদা ও তার স্ত্রী সিগমা হুদার বিরুদ্ধে অভিযোগ সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘খবরের অন্তরালের’ নামে মীর জাহের হোসেন নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২ কোটি ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেন।

এই মামলায় ২০০৭ সালের ২৭ অগাস্ট বিশেষ জজ আদালতে নাজমুল হুদাকে সাত বছরের কারাদণ্ড এবং আড়াই কোটি টাকা জরিমানা করে। পাশাপাশি তার স্ত্রী সিগমা হুদাকে তিন বছরের দণ্ড দেয়।

পরে মামলাটির পুনরায় শুনানি নিয়ে ২০১৭ সালের ৮ নভেম্বর হাই কোর্ট রায়ে নাজমুল হুদার সাত বছরের সাজা কমিয়ে চার বছরের কারাদণ্ড দেয়।

২০১৮ সালের ১৯ নভেম্বর হাই কোর্টের ওই রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্ট। সেখানে ৪৫ দিনের মধ্যে নাজমুল হুদাকে আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়।

২০১৯ সালের ৬ জানুয়ারি এ মামলায় আত্মসমর্পণের পর নাজমুল হুদা জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু ৭ জানুয়ারি সে আবেদনটি উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেয় আপিল বিভাগ।

 

টাইমস/এএস/এইচইউ

সড়ক আইন নিয়ে শ্রমিকদের সুপারিশ মন্ত্রণালয়ে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সড়ক আইন নিয়ে শ্রমিকদের সুপারিশ মন্ত্রণালয়ে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নতুন সড়ক পরিবহন আইন নিয়ে শ্রমিকদের সুপারিশ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে পাঠানো

পরিবহন ধর্মঘট আর নেই: কাদের

পরিবহন ধর্মঘট আর নেই: কাদের

পরিবহন ধর্মঘট আর নেই উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী

প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় শিশুদের বহিষ্কার কেন অবৈধ হবে না: হাইকোর্ট

প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় শিশুদের বহিষ্কার কেন অবৈধ হবে না: হাইকোর্ট

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় শিশুদের বহিষ্কার করা কেন অবৈধ

জাতীয়

যুবককে বেঁধে পেটানো সেই ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

যুবককে বেঁধে পেটানো সেই ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

বিচারের নামে যুবককে বেঁধে পেটানো সেই ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার কানাইঘাট সীমান্ত এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক আব্দুস সালাম জকিগঞ্জ উপজেলার কাজলশাহ ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য। এই তথ্য নিশ্চিত করে সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম জানান, সালাম আটগ্রাম গুচ্ছগ্রামের গিয়াস উদ্দিন আফজাল নামে এক যুবককে বাঁশের সঙ্গে ঝুলিয়ে নির্মমভাবে নির্যাতন করছেন এমন একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

জাতীয়

গুজবে কান দেবেন না: প্রধানমন্ত্রী

গুজবে কান দেবেন না: প্রধানমন্ত্রী

গুজবে কান না দেয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মাঝে মাঝে আমরা দেখি, অপপ্রচার চালিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হয়। আমি সবাইকে একটা কথা বলবো, এই অপপ্রচারে কান দেবেন না।’ বৃহস্পতিবার ঢাকা সেনানিবাসের আর্মি মাল্টিপারপাস হলে অনুষ্ঠিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধে বীরশ্রেষ্ঠ পরিবারের সদস্য এবং সশস্ত্র বাহিনীর খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০১৯ উপলক্ষ্যে এই সংবর্ধনার আয়োজন করেন প্রধানমন্ত্রী।

আন্তর্জাতিক

রোহিঙ্গা গণহত্যা: বিচারের মুখোমুখি হচ্ছেন সু চি

রোহিঙ্গা গণহত্যা: বিচারের মুখোমুখি হচ্ছেন সু চি

নেদারল্যান্ডসের হেগে অবস্থিত আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারের মুখোমুখি হচ্ছেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি। রোহিঙ্গা গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী অপরাধে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার করা মামলার শুনানিতে অংশ নিতেই সেখানে যাচ্ছেন তিনি। এ মামলায় মিয়ানমারের পক্ষে আইনি লড়াইয়ের জন্য টিম গঠিত হয়েছে। সেই টিমের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন অং সান সু চি।

জাতীয়

ছেলের চাকরি ফেরতের দাবিতে রংপুরে অনশনে মুক্তিযোদ্ধা বাবা

ছেলের চাকরি ফেরতের দাবিতে রংপুরে অনশনে মুক্তিযোদ্ধা বাবা

রংপুরে ছেলের চাকরি ফিরিয়ে দেয়ার দাবিতে সপরিবারে অনশন করছেন মুক্তিযোদ্ধা রঙ্গলাল মহন্ত। বৃহস্পতিবার টানা তৃতীয় দিনের মতো অনশনে অসুস্থ হয়ে পড়েন এই মুক্তিযোদ্ধা বাবা।

জাতীয়

যশোরে দুই ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দিতে চাওয়ায় ৫ জনের কারাদণ্ড

যশোরে দুই ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দিতে চাওয়ায় ৫ জনের কারাদণ্ড

দুই ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দেয়ার সময় পাঁচজনকে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার রাতে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলায় শালবরাট ও ঠাকুরকাঠি গ্রামে অভিযান চালিয়ে দুই ছাত্রীর বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। বাঘারপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী হাকিম তানিয়া আফরোজ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

আন্তর্জাতিক

শুধু গাঁজা খেয়েই বেতন আড়াই লাখ টাকা

শুধু গাঁজা খেয়েই বেতন আড়াই লাখ টাকা

বিভিন্ন ধরনের গাঁজার স্বাদ পরীক্ষা করে লিখিতভাবে মতামত দিতে হবে। আর তার জন্য বেতন দেয়া হবে তিন হাজার ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় দুই লাখ ৫৪ হাজার টাকা)। আমেরিকান মারিজুয়ানা নামে একটি মার্কিন ম্যাগাজিন সম্প্রতি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এমন কর্মী খুঁজছে। আমেরিকান মারিজুয়ানার সম্পাদক ডুয়াইট কে ব্লেক জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে তারা তিন হাজারের বেশি আবেদনপত্র পেয়েছেন এই পদের জন্য।