• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

শিক্ষকের ওপর হামলা: মামলায় নাম নেই নির্দেশদাতার

শিক্ষকের ওপর হামলা: মামলায় নাম নেই নির্দেশদাতার

সেন্ট্রাল ডেস্ক১৬ মে ২০১৯, ০৯:২৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের শিক্ষক মাকসুদুর রহমানের ওপর হামলার ঘটনায় বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন কলেজের অধ্যক্ষ এস এম আব্দুল কুদ্দুস। তবে মামলায় প্রধান অভিযুক্ত কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি শামসু্দ্দীন জুন্নুনকে আসামি করা হয়নি। হামলার শিকার ওই শিক্ষক এর আগে ছাত্রলীগ সভাপতিকে হামলার নেতৃত্ব দানকারী হিসেবে অভিযোগ করেন।

গত ১২ মে কলেজের মূল ফটকের ভেতরে দুষ্কৃতিকারীদের হামলার শিকার হন শিক্ষক মাকসুদুর রহমান। তিনি ৩৬ তম বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে ওই কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পান। তার দাবি এইচএসসি পরীক্ষা নকলে বাধা দেয়ার জের ধরে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতির পরোক্ষ হুকুমে ছাত্রলীগের কতিপয় সন্ত্রাসী তাকে মারধর করে।

ওই মার ধরের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর গত ১৫ মে রাতে কলেজের অধ্যক্ষ বাদি হয়ে পাবনা সদর থানায় মামলাটি করেন। মামলায় দুইজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা তিন থেকে চারজনকে আসামি করা হয়। মামলার পর ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত দুই আসামি সজল ইসলাম ও শাফিন শেখকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এদিকে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ সভাপতিকে বাদ দিয়ে মামলা করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষকও। গণমাধ্যমকে তিনি জানান, ৬ মে এইচএসসি পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন কালে তিনি পরীক্ষার হলে দুই ছাত্রীকে নকল করা থেকে বিরত রাখেন। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ওই দুই ছাত্রী কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতিকে জানায়। এরপর ১২ মে তার উপর হামলা চালানো হয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি জুন্নুন এ হামলার নির্দেশ দেন। ওই দুই ছাত্রী জুন্নুনের পরিচিত। হামলার সময় জুন্নুন, ‘ধর শালারে, ধর- বলে নির্দেশ দেন।

কোনো একটি মহলের চাপে কৌশলে তাকে মামলা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। 

তবে ছাত্রলীগ সভাপতির দাবি হামলাকারীরা বহিরাগত। হামলার সময় পাবনা অ্যাডওয়ার্ড কলেজ থেকেও ছাত্রলীগের কর্মীরা এসেছিল।

এ বিষয়ে শিক্ষক মাকসুদুর রহমান জানান, অধ্যক্ষ যেভাবে মামলা করেছেন তাতে তিনি সন্তুষ্ট নন। তিনি ভিন্ন কোনো চিন্তা করবেন।

হামলার সময় ঘটনাস্থলে নিজে উপস্থিত না থাকায় ছাত্রলীগ সভাপতিকে মামলায় আসামী করা হয়নি জানিয়ে কলেজের অধ্যক্ষ এস এম আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ওই মামলায় দুইজনকে আসামী করা হয়েছে। আমি যেহেতু সরাসরি দেখিনি তাই শামসুদ্দীন জুন্নুনের নাম দেইনি। হামলার তিনটি ভিডিও ফুটেজ পুলিশকে দেওয়া হয়েছে তারা দেখে ব্যবস্থা নেবে।

 

টাইমস/এমএস

 

বান্ধবীকে হয়রানির প্রতিবাদ, রিফাত স্টাইলে ছাত্র খুন (ভিডিও)

বান্ধবীকে হয়রানির প্রতিবাদ, রিফাত স্টাইলে ছাত্র খুন (ভিডিও)

বরগুনায় আবারও রিফাত স্টাইলে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। বান্ধবীকে

করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্য, আক্রান্ত ১১৬৬

করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্য, আক্রান্ত ১১৬৬

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ৮০তম দিনে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে আরও

ভারতের বিরুদ্ধে নেপালের যুদ্ধের হুঙ্কার!

ভারতের বিরুদ্ধে নেপালের যুদ্ধের হুঙ্কার!

ক’দিন আগেই ভারত তাদের বলে দাবি করা বিতর্কিত ভূখণ্ড কালাপানি

স্বাস্থ্য

রক্তের টি-সেল বাড়িয়ে কোভিড-১৯ রোগী চিকিৎসার সম্ভাবনা

রক্তের টি-সেল বাড়িয়ে কোভিড-১৯ রোগী চিকিৎসার সম্ভাবনা

কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় একটি কার্যকরী ভ্যাকসিন ঠিক কখন পাওয়া যাবে সেটি এখনও পরিষ্কার নয়। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই ভাইরাস প্রতিরোধে ভ্যাকসিন ও প্রতিষেধক আবিষ্কারের চেষ্টা করছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের গবেষণায় কখনো আলো দেখা গেলেও তা পরে আর প্রজ্বল হয়নি। এবার ব্রিটেনের একদল বিজ্ঞানী করোনাভাইরাসে সংক্রমিত গুরুতর রোগীদের চিকিৎসায় নতুন একটি পথের সন্ধান পেয়েছেন। তারা ভাবছেন, শরীরের টি-সেল বাড়িয়ে গুরুতর কোভিড-১৯ রোগীকে সারিয়ে তোলা যেতে পারে।

বিনোদন

গায়ক নোবেল ঢাকায়, বাড়িতে করোনায় আক্রান্ত বাবা

গায়ক নোবেল ঢাকায়, বাড়িতে করোনায় আক্রান্ত বাবা

জনপ্রিয় গায়ক নোবেলম্যান খ্যাত মাঈনুল আহসান নোবেলের বাবা মোজাফফর হোসেন নান্নু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সপ্তাহ খানেক আগে

আন্তর্জাতিক

দ্বিতীয় পর্যায়ে সংক্রমণের আশঙ্কা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হুঁশিয়ারি

দ্বিতীয় পর্যায়ে সংক্রমণের আশঙ্কা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হুঁশিয়ারি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কমে যাওয়ায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ লকডাউন শিথিল অথবা সামাজিক দুরত্ব নীতি তুলে নিয়েছে। এসব দেশে দ্বিতীয় বারের মত করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হতে পারে বলে নতুন করে সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

স্বাস্থ্য

দাঁতের যত্নে ডেন্টাল ফ্লস

দাঁতের যত্নে ডেন্টাল ফ্লস

দুইবেলা দাঁত ব্রাশ করার উপদেশ পায়নি এমন মানুষ খুঁজে যাওয়া সম্ভব না। তারপরও অনেকেই সেটুকু করেন না। চিকিৎসাবিজ্ঞানের তথ্যানুসারে স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়, দুইবেলা দাঁত ব্রাশ করার মাধ্যমে ‘ক্যাভিটি’ আর মুখের দুর্গন্ধ দূর হওয়ার পাশাপাশি আরও অনেক রোগের ঝুঁকি নিয়ন্ত্রণে থাকে।

জাতীয়

জমি লিখে নিয়ে মাকে রাস্তায় ফেলে রাখল ছেলেরা

জমি লিখে নিয়ে মাকে রাস্তায় ফেলে রাখল ছেলেরা

বৃদ্ধ মা’কে রাস্তায় ফেলে যাওয়ায় তিন ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত তিনজন হলেন- আবদুর রাজ্জাক, মোয়াজ্জেম হোসেন ও মোজাম্মেল হক। ঈদের দিন সকালে তারা তাদের মাকে রাস্তায় ফেলে যান।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বুয়েটে ভর্তিতে ফার্স্ট হওয়া সেই অনিক ডাক পেলেন গুগলে

বুয়েটে ভর্তিতে ফার্স্ট হওয়া সেই অনিক ডাক পেলেন গুগলে

চট্টগ্রামের ছেলে অনিক সরকার ২০১৪ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই সেরা ছাত্র অনিক সরকার এবার ডাক পেলেন গুগলে