• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  কবি আল মাহমুদের শারীরিক অবস্থার অবনতি, দোয়া চেয়েছে পরিবার  

   কবি আল মাহমুদের শারীরিক অবস্থার অবনতি, দোয়া চেয়েছে পরিবার   

নিজস্ব প্রতিবেদক১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮:২৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

 

নিউমোনিয়াসহ বার্ধক্যজনিত বেশকিছু রোগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে আইসিইউতে ভর্তি থাকা কবি আল মাহমুদের শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার প্রেসার ও হার্টবিট কমে গেছে।

কবির সুস্থতা কামনা করে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন কবির ছোট ছেলে মীর আনিস।

এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে কবি আল মাহমুদের সহকারী আবিদ আজমও দোয়া কামনা করেন।

দেশবরেণ্য এই কবি নিউমোনিয়াসহ বার্ধক্যজনিত বেশকিছু রোগে ভুগছেন। তার কিডনি ও লিভারে আগেই থেকে ইনফেকশন ছিল।

এর আগে আল মাহমুদকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় শনিবার রাতে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

প্রথমে সিসিইউ'তে রাখা হয়েও শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় রাত ৪টার দিকে চিকিৎসকেরা তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

তিনি ইবনে সিনার নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. আবদুল হাইয়ের তত্ত্বাবধানে আছেন।

আল মাহমুদ আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি।তিনি একাধারে একজন কবি, ঔপন্যাসিক, প্রাবন্ধিক, ছোটগল্প লেখক, শিশুসাহিত্যিক ও সাংবাদিক।

১৯৩৬ সালের ১১ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মোড়াইল গ্রামে জন্ম তার। বাবা-মায়ের দেয়া নাম মীর আবদুস শুকুর আল মাহমুদ। তবে বাংলা সাহিত্যে আল মাহমুদ নামেই তিনি পরিচিত।

সাহিত্যে অবদানের জন্য ১৯৬৮ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান তিনি। পেয়েছেন একুশে পদকসহ অনেক সম্মাননা।

১৯৬৩ সালে তার কাব্যগ্রন্থ লোক লোকান্তর সর্বপ্রথম তাকে স্বনামধন্য কবিদের সারিতে জায়গা করে দেয়।

কালের কলস, সোনালি কাবিন ও মায়াবী পর্দা দুলে উঠো কাব্যগ্রন্থগুলো বাংলা সাহিত্যে তার অমরকীর্তি। ১৯৫৪ সালে কবি আল মাহমুদ দৈনিক মিল্লাত পত্রিকায় প্রুফ রিডারের দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৭১ সালে তিনি সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন এবং যুদ্ধের পর দৈনিক গণকণ্ঠ পত্রিকায় সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন।

 

টাইমস/এমএএইচ/জেডটি

রোহিঙ্গাদের কারণে ঝুঁকিতে স্থানীয়রা: টিআইবি   

রোহিঙ্গাদের কারণে ঝুঁকিতে স্থানীয়রা: টিআইবি  

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বিলম্বিত হওয়ায় স্থানীয় জনগণ বিভিন্ন ঝুঁকির মুখোমুখি

শীতে ত্বক ও চুলের সুরক্ষায় যা খেতে হবে

শীতে ত্বক ও চুলের সুরক্ষায় যা খেতে হবে

শীতের শুষ্কতা ও রুক্ষতায় সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় আমাদের

গুণে অনন্য সরিষা

গুণে অনন্য সরিষা

আমাদের উপমহাদেশে রান্নায় নানাবিধ মশলার ব্যবহার চলে আসছে যুগ যুগ

জাতীয়

টঙ্গীতে পোশাক কারখানায় আগুন

টঙ্গীতে পোশাক কারখানায় আগুন

টঙ্গীর মুদাফা এলাকার একটি পোশাক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে টঙ্গী-আশুলিয়া বেড়িবাঁধে অবস্থিত এননটেক্স পোশাক কারখানায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

রাজনীতি

গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হলে আ.লীগকে বাঁচাতে হবে: সিলেটে কাদের

গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হলে আ.লীগকে বাঁচাতে হবে: সিলেটে কাদের

মুক্তিযুদ্ধ ও গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয়

অবৈধ অনুপ্রবেশ: মহেশপুর সীমান্তে আটক আরও ১৬ অনুপ্রবেশকারী   

অবৈধ অনুপ্রবেশ: মহেশপুর সীমান্তে আটক আরও ১৬ অনুপ্রবেশকারী  

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের সময় দুই দালালসহ ১৬ জনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। বৃহস্পতিবার সকালে মহেশপুর উপজেলার জলুলী ও পলিয়ানপুর বিওপির অধীন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

জাতীয়

‘গাঁজা’ সেবনের অভিযোগে নোয়াখালী বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন ছাত্রীর সাজা   

‘গাঁজা’ সেবনের অভিযোগে নোয়াখালী বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন ছাত্রীর সাজা  

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) গাঁজা সেবনের অভিযোগে দুই আবাসিক ছাত্রীর সিট বাতিল করা হয়েছে। একই অভিযোগ ও কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে হলে অবস্থান করায় আরেক ছাত্রীকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

জাতীয়

বেনাপোলে ছয়তলা থেকে পড়ে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু   

বেনাপোলে ছয়তলা থেকে পড়ে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু  

যশোরের বেনাপোল বাজারে নির্মাণাধীন ৬ তলা ভবন থেকে পড়ে নাজিম উদ্দিন (৩০) নামে এক ইলেকট্রিশিয়ান মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে বেনাপোল বাজারের রহমান চেম্বার ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

স্বাস্থ্য

শীতে মেজাজ ভালো রাখতে যা খেতে হবে

শীতে মেজাজ ভালো রাখতে যা খেতে হবে

মৌসুম পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে মেজাজের পরিবর্তন খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। হঠাৎ করে মেজাজ পরিবর্তন হয়ে যাবার ঘটনাকে ইংরেজিতে বলা হয় ‘মুড সুয়িং’। আর মৌসুমের সঙ্গে মেজাজ খারাপ হবার ঘটনাকে বলা হয় সিজনাল অ্যাফেক্টিভ ডিজঅর্ডার (মৌসুম প্রভাবিত অসুখ)।