• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জামের বীজ

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জামের বীজ

স্বাস্থ্য ডেস্ক১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:২০এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

জাম এমন একটি ফল, যা বাংলাদেশে খুবই পরিচিত। আপনি একটু লক্ষ্য করলেই হয়ত আপনার বাড়ির আঙ্গিনা বা পাড়াতে জাম গাছ পেয়ে যাবেন। জামের মৌসুমে পথে ঘাটে, বাজারে, ট্রেন-বাসে বিক্রি হয় অত্যন্ত জনপ্রিয় জাম মাখা।

জাম ফল শুধু খেতেই সুস্বাদু তাই নয়, বরং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যও এটি সমান পরিচিত। জামের বীজও ফেলনা নয়, স্বাস্থ্য উপকার আর ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রয়োজনীয় অনন্য সব উপাদানে সমৃদ্ধ এই বীজ।

জাম একটি চিরসবুজ গ্রীষ্মমন্ডলীয় গাছ। যা ভারত, ইন্দোনেশিয়া ও বাংলাদেশের স্থানীয় উদ্ভিদ। জামের বীজে জাম্বোসিন ও জাম্বোলিন থাকে। উক্ত উপাদান দুটি রক্তে চিনির নিঃসরণ কমিয়ে দেয়। এর চেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে জামের বীজ ইনসুলিন উৎপাদন বাড়িয়ে তুলতে সহায়তা করে, যা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের পক্ষে খুবই সহায়ক হতে পারে।

জাম বা কালো জাম বা ভারতীয় ব্লুবেরি সেরা আয়ুর্বেদিক পরিপূরক হিসাবে বিবেচিত হয়। এই অতিপরিচিত ফলের আশ্চর্যজনক পুষ্টিকর প্রোফাইল রয়েছে। যা হলো-

  1. জামে ক্যালোরি কম থাকে এবং এটি ফাইটোকেমিক্যালস ও ভিটামিন-সি এর প্রাচুর্যপূর্ণ উৎস।
  2. জামকে বলা হয় মূত্রবর্ধক, যা হৃদরোগ, হাঁপানি, বাত, পেট ফাঁপা ও আমাশয়ের চিকিৎসার জন্য আয়ুর্বেদ চর্চায় ব্যবহৃত হয়।
  3. জামের মূত্রবর্ধক প্রভাব কিডনি থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করতে সহায়তা করে।
  4. ফলটি ফাইবারের সমৃদ্ধ উৎস, হজম শক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। বমি বমিভাব প্রতিরোধের জন্যও জাম উপকারী।

এবার চলুন জেনে নিই, জামের বীজ কীভাবে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের জন্য উপকারী-

  • জামের বীজে থাকা জাম্বোলিন ও জাম্বোসিন প্রাকৃতিক উপাদান দুটির এমন ওষুধি গুণ রয়েছে, যা যে কোনো রোগ থেকে দ্রুত সেরে উঠতে সহায়তা করতে পারে। এই ফাইটোকেমিক্যালগুলি চিনির নিঃসরণ কমিয়ে আনে এবং ইনসুলিন উৎপাদন বাড়াতে সহায়তা করে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য এই দুটি কাজ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
  • জামের বীজে ক্ষারক থাকে, যা স্টার্চকে শক্তিতে রূপান্তরিত করে এবং ডায়াবেটিসের লক্ষণগুলি হ্রাস করতে সাহায্য করে। ক্রমাগত তৃষ্ণার্ত লাগা, ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া প্রভৃতি রোধ হয়।
  • জামের বীজ গুঁড়া করে খেলে তা রক্তে শর্করার মাত্রা হ্রাস করতে সহায়তা করে। জামের বীজে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে, যা হজম শক্তি বাড়িয়ে দেয়। এটি স্বাস্থ্যকর পাচনতন্ত্র বজায় রাখতে এবং ডায়াবেটিসের সঙ্গে যুক্ত ঝুঁকি ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হ্রাস করতে সহায়তা করে।
  • ডায়াবেটিসে আক্রান্ত পুরুষরা প্রায়শই ইরেক্টাইল ডিসফাংশন এবং লো সেক্স ড্রাইভ অনুভব করেন। নিয়মিত জামের বীজ সেবন করলে তা আপনার লিবিডো বা সেক্স হরমোনকে প্রাকৃতিকভাবে বৃদ্ধি করতে সহায়তা করবে।
  • আপনি জাম কাঁচা খেতে পারেন বা শুকানোর পরে এর বীজ গ্রহণ করতে পারেন। শুকনো জামের বীজ গুঁড়ো করে গরম দুধ ও পানিতে মিশিয়ে খাওয়া যায়। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য এই পানীয়টি খাবারের আগে খাওয়া যেতে পারে।

জামের বীজের আরও কিছু ব্যবহার-

  • জামের বীজ গুঁড়ো করে মধু সঙ্গে মিশিয়ে ফেসপ্যাক হিসাবে ত্বকে প্রয়োগ করা যেতে পারে। এটি আপনার মুখে লাগান এবং সারারাত রেখে দিন। এই ফেসপ্যাকটি আপনার মুখের ব্রণ, কালো দাগ ও পোড়া ভাব দূর করবে।
  • জাম একটি পটাসিয়াম সমৃদ্ধ ফল, যা হৃদরোগের জন্য ভালো। ১০০ গ্রাম জামে ৭৯ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম থাকতে পারে। ফলটি ধমনীতে যে কোনো ধরনের বাধা বা ব্লোকেজ রোধ করতে পারে, ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস পায়। পটাসিয়াম উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের জন্য ভালো, কারণ এটি সোডিয়ামের প্রভাব হ্রাস করে।
  • জামে ক্যালরি কম থাকে, তাই ওজন হ্রাস করার ডায়েটে কার্যকরভাবে অন্তর্ভুক্ত করা যায়। এই ফলটি প্রচুর পরিমাণে ফাইবারযুক্ত, যা হজমে উন্নতি ঘটায়। এই সমস্ত বৈশিষ্ট্য আপনাকে স্বাস্থ্যকরভাবে ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করবে।
  • দাঁত ও মাড়ি শক্তিশালীকরণের জন্য আপনি দাঁতের মাজন হিসাবে জামের শুকনো এবং গুঁড়ো পাতা ব্যবহার করতে পারেন। জামের পাতায় অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা গলার সমস্যা হ্রাস করতে পারে এবং দুর্গন্ধ দূর করতে সক্ষম। তথ্যসূত্র: এনডিটিভি.কম

 

টাইমস/এনজে/জিএস

অটো নয়, মূল্যায়নের মাধ্যমে অষ্টম থেকে নবম শ্রেণিতে প্রমোশন

অটো নয়, মূল্যায়নের মাধ্যমে অষ্টম থেকে নবম শ্রেণিতে প্রমোশন

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবছরের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা বাতিল হলেও শিক্ষার্থীদের নবম শ্রেণিতে

এবার কক্সবাজারের ৩৪ পুলিশ পরিদর্শককে একযোগে বদলি

এবার কক্সবাজারের ৩৪ পুলিশ পরিদর্শককে একযোগে বদলি

পুলিশের কক্সবাজার জেলার ৩৪ জন ইন্সপেক্টরকে (পরিদর্শক) দেশের বিভিন্ন জেলা

ক্রেডিট কার্ডে সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ

ক্রেডিট কার্ডে সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ

ক্রেডিট কার্ডের ওপর সুদের হার ২০ শতাংশের বেশি নির্ধারণ করা

জাতীয়

বেসরকারি হাসপাতালগুলো চিকিৎসার নামে ‘ডাকাতের’ মতো টাকা নিচ্ছে: মেয়র আতিক

বেসরকারি হাসপাতালগুলো চিকিৎসার নামে ‘ডাকাতের’ মতো টাকা নিচ্ছে: মেয়র আতিক

চিকিৎসা ও পরীক্ষার নামে বেসরকারি হাসপাতালগুলো মানুষের কাছ থেকে ‘ডাকাতের মত’ টাকা নিচ্ছে মন্তব্য করে ক্ষোভ ঝেরেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। হাসপাতালগুলো বেশি টাকা নিলেও নিজেদের চিকিৎসাবর্জ্য ঠিকমত ব্যবস্থাপনা করছে না জানিয়ে শিগগিরই তাদের বিরুদ্ধে সমন্বিত অভিযান শুরুর তাগিদ দেন তিনি।

স্বাস্থ্য

ঘরোয়া উপায়ে কফ উপশম করবেন কীভাবে?

ঘরোয়া উপায়ে কফ উপশম করবেন কীভাবে?

আপনি চাইলেই সে অর্থে সর্দি জ্বর বা ফ্লু চিকিৎসা করতে পারবেন না, তবে এসব রোগের উপসর্গ হিসেবে দেখা দেয়া কফ, কাশি এবং গলা ব্যথা উপশম করতে পারবেন।

জাতীয়

করোনায় আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪০

করোনায় আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪০

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৫ হাজার ৭২ জনে। একই সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৫৪০ জন। ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হল ৩ লাখ ৫৫ হাজার ৩৮৪ জন।

জাতীয়

মসজিদে বিস্ফোরণ: ৩৫ পরিবারে ৫ লাখ টাকা করে অনুদান প্রধানমন্ত্রীর

মসজিদে বিস্ফোরণ: ৩৫ পরিবারে ৫ লাখ টাকা করে অনুদান প্রধানমন্ত্রীর

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তল্লায় মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত এবং আহত ৩৫ পরিবারের প্রতিটি পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে মোট ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকার আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজনীতি

চট্টগ্রামে নাশকতার আট মামলায় বিএনপির ১৬ নেতাকর্মী কারাগারে

চট্টগ্রামে নাশকতার আট মামলায় বিএনপির ১৬ নেতাকর্মী কারাগারে

২০১৮ সালের ৩০ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানায় নাশকতার অভিযোগে করা নাশকতার আট মামলায় বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের ১৬ নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। এছাড়া বয়স ও শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় ১০ জনের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

স্বাস্থ্য

কফি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিষয়ে যা জানা আবশ্যক

কফি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিষয়ে যা জানা আবশ্যক

কফি লিভারের জন্যও অনেক উপকারী। কারণ কফি পানকারীদের লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি অনেক কম। এটি লিভার, হৃদরোগ, স্ট্রোক এবং কোলোরেক্টাল ক্যান্সারের ঝুঁকি কমিয়ে দিতে পারে। নিয়মিত কফি পান আপনার অ্যালঝেইমার এবং পারকিন্সন রোগের ঝুঁকি ৩২-৬৫% কমিয়ে দেয়।