• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭

গর্ভনিরোধক পিল সম্পর্কে প্রচলিত পাঁচ ভুল ধারণা

গর্ভনিরোধক পিল সম্পর্কে প্রচলিত পাঁচ ভুল ধারণা

স্বাস্থ্য ডেস্ক১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:৩৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

গর্ভনিরোধক পিল সম্পর্কে আমাদের সমাজে অনেক ভ্রান্ত ধারণা প্রচলিত রয়েছে। এই সব ভুল ধারণার কারণে অনেকের মাঝেই এসব পিল গ্রহণে অনীহা দেখা দেয়, যা ফলে অনাকাঙ্খিত গর্ভধারণের ঘটনা ঘটে।

এসব ভুল ধারণা সম্পর্কে ভারতের ফোর্টিস হিরানান্দানি হসপিটালের কনসাল্টেন্ট গাইনোকোলজিষ্ট ড. নেহা বোথারার মতামত তুলে ধরা হলো-

গর্ভনিরোধক পিল মানেই তা ওজন বাড়িয়ে দেয়

প্রথম প্রজন্মের গর্ভনিরোধক পিল গ্রহণের ফলে ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দিত। কিন্তু বর্তমানে প্রচলিত নতুন ফর্মুলায় তৈরি পিল সমূহে এ জাতীয় সমস্যা দেখা দেয় না। বরং নতুন গর্ভনিরোধক পিলগুলি পলিসিস্টিক ওভারি সিন্ড্রোম রয়েছে এমন ব্যক্তিদের ওজন কমাতে সহায়তা করে।

গর্ভনিরোধক পিলের ফলে ব্রণ হতে পারে

নতুন ফর্মুলায় তৈরি গর্ভনিরোধক পিলগুলিতে ভিন্নধর্মী প্রজেস্টেরন যৌগ ব্যবহার করা হয়, যা টেস্টোস্টেরন নিঃসরণ কম করে। ফলে এতে করে ব্রণ হওয়া বা মুখমন্ডলের মতো অনাকাঙ্খিত স্থানে চুল গজানোর সমস্যা হয় না।

এক বা একাধিক পিল গ্রহণ করতে ভুলে গেলে কোনো সমস্যা হয় না

এটি মারাত্মক ভুল ধারণা। আপনি চক্রের (সাইকেল) মধ্যে এক বা একাধিক পিল গ্রহণ করতে ভুল করলে এর ফলে অনাকাঙ্খিত গর্ভধারণ হতে পারে। তাই পিল গ্রহণে ভুল হয়ে গেলে অবশ্যই গাইনোকোলজিস্টের পরামর্শ নিন।

গর্ভনিরোধক পিল গর্ভধারণের ক্ষমতা হ্রাস করে

গর্ভনিরোধক পিল গ্রহণের ফলে গর্ভধারণের ক্ষমতা কমে যায় এই দাবির পক্ষে কোনো তথ্য প্রমাণ পাওয়া যায় না। গর্ভধারণের পিল সাময়িক ভাবে গর্ভধারণ রোধ করে মাত্র।

গর্ভনিরোধক পিল গ্রহণের ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞের পরামর্শের দরকার নেই

গর্ভনিরোধক পিল সাধারণত নিরাপদ, কিন্তু আপনার দেহে অন্তর্নিহিত কোনো সমস্যা থেকে থাকলে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে।

তাই গর্ভনিরোধক পিল গ্রহণের আগে অবশ্যই গাইনোকোলজিস্ট বা স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করতে হবে। তিনি আপনার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে কোনো ঝুঁকি আছে কিনা তা নির্ধারণ করবেন এবং কোন পিলটি আপনার জন্য কার্যকর হবে তা নির্ধারণ করে দেবেন। তথ্যসূত্র: দ্যা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

 

টাইমস/এনজে

 

ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, একটি চিহ্নিত মহল দেশকে অস্থিতিশীল

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

ভ্যাকসিন নেয়ার ১২ দিন পর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, চট্টগ্রামে যুবক গ্রেপ্তার

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, চট্টগ্রামে যুবক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভিকটিমের

আন্তর্জাতিক

জামাল খাশোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ

জামাল খাশোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ

বিশ্বব্যাপী আলোচিত ২০১৮ সালে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাÐের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করতে যাচ্ছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ। প্রতিবেদনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে খাশোগি হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা হিসেবে উপস্থাপন করা হতে পারে।

জাতীয়

শাহবাগে বিক্ষোভ : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক

শাহবাগে বিক্ষোভ : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হওয়া সকল পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় বিক্ষোভ থেকে অন্তত ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

জাতীয়

পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে ইয়াবাসহ যুবক ভাইরাল (ভিডিও)

পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে ইয়াবাসহ যুবক ভাইরাল (ভিডিও)

ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার এক যুবক। তবে ধরা পড়ার আগে পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন নূরনবী নামের ওই যুবক। তার এই পালিয়ে যাওয়ার একটি ভিডিও এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

আন্তর্জাতিক

তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি : মমতার অভিনব প্রতিবাদ (ভিডিও)

তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি : মমতার অভিনব প্রতিবাদ (ভিডিও)

পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের দাম বেড়ে যাওয়ায় অভিনব প্রতিবাদ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। জ¦ালানির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলে চেপে অফিস নবান্নে গেছেন। একই মোটরসাইকেলে করে তিনি বাসায় ফিরবেন।

জাতীয়

মাকে আনতে গিয়ে সড়কে নিহত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র

মাকে আনতে গিয়ে সড়কে নিহত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র

মাকে আনতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের ছাত্র আবদুল্লাহ আল মাহমুদ শাফি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের (৪৭তম ব্যাচ) এবং আল-বেরুনী হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার সোনাপুর গ্রামে।

অর্থনীতি

সীমানা পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ঝিনাইদহের সবজি

সীমানা পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ঝিনাইদহের সবজি

ঝিনাইদহে মাঠের পর মাঠ সবজি ক্ষেত। সময়ের চাহিদার সাথে পাল্লা দিয়ে সবজি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে কৃষক। পান, কলা এ জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল হলেও প্রান্তিক কৃষকরা এখন ঝুঁকে পড়ছে সবজি চাষে। বদলে গেছে এ অঞ্চলের সবজি চাষের পদ্ধতি। কৃষি বিভাগের জৈব কৃষি ও জৈবিক বালাই দমন ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করা হচ্ছে। যে কারনে বাণিজ্যিক ভাবে অনেকেই এখন সবজি চাষ শুরু করেছেন। এসব সবজি দেমের সীমানা পেরিয়ে রপ্তানী করা হচ্ছে দূর পরবাসে।