• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬

নিরাপত্তার অভাবে দেশ ছেড়েছেন ৫ হাজার ভারতীয় ধনকুবের

নিরাপত্তার অভাবে দেশ ছেড়েছেন ৫ হাজার ভারতীয় ধনকুবের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক১৬ এপ্রিল ২০১৯, ০৭:৫৮পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

দেশ ছেড়ে বিদেশের মাটিতে দলে দলে পা রাখছেন ভারতীয় বিত্তশালীরা। শুধু ২০১৮ সালেই ভারত ছেড়েছেন অন্তত পাঁচ হাজার জন ভারতীয় ধনকুবের। সারা পৃথিবীতে দেশত্যাগী ধনকুবেরদের তালিকায় এখন চীন, রাশিয়ার পরেই ভারত।

অ্যাফ্রো এশিয়া ব্যাংক এবং নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েলথ -এর যৌথ উদ্যোগে ‘গ্লোবাল ওয়েলথ মাইগ্রেশন রিভিউ রিপোর্ট ২০১৯’ নামের একটি গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়েছে সম্প্রতি। সেখানেই মিলছে দলে দলে ভারতীয় ধনকুবেরদের দেশ ছাড়ার পরিসংখ্যান।

বিত্তশালী বলতে এখানে বলা হয়েছে ধনীদের কথাই। অর্থনীতির ভাষায় তার নাম ‘এইচএনডাব্লিউআই বা হাই নেটওয়ার্দ ইন্ডিভিজুয়াল’।

যাদের ব্যক্তিগত সম্পত্তির পরিমাণ এক মিলিয়ন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় ৭ কোটি রুপি, তাদেরকেই রাখা হয়েছে বিত্তশালী বা ধনকুবেরদের তালিকায়। সারা পৃথিবীতে এই ধরনের বিত্তশালীদের সংখ্যা প্রায় দেড় কোটি। তার মধ্যে ভারতীয়দের সংখ্যাই হল তিন লাখ ২৭ হাজার। বিত্তশালীদের সংখ্যার নিরিখে এখন নয় নম্বরে আছে ভারত।

ভারতে বিত্তশালীদের সংখ্যা বাড়লেও বাড়ছে দেশত্যাগী ধনকুবেরদের সংখ্যাও। 

সদ্য প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, শুধু ২০১৮ সালেই দেশ ছেড়েছেন অন্তত পাঁচ হাজার জন ভারতীয় ধনকুবের। দেশ ছাড়া ধনকুবেরদের তালিকায় এখন চীন আর রাশিয়ার পরেই ভারত।

যে কারণে ভারতীয় বিত্তশালীরা দেশ ছেড়ে বিদেশের মাটিতে পা রাখছেন, তার প্রধান কারণই হলো নিরাপত্তা। নিরাপত্তাহীনতার জন্যই তারা ভারতে থাকা আর ঠিক বলে মনে করছেন না, এমনটাই বলা হয়েছে রিপোর্টটিতে।

এই নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রাখা হয়েছে— মহিলা ও শিশুদের নিরাপত্তা, জলবায়ু, পরিবেশ, সন্তানের শিক্ষার পরিকাঠামো, কাজের পরিবেশ, আর্থিক দুশ্চিন্তা, স্বাস্থ্য পরিকাঠামো, জীবনযাত্রার মান  এবং ধর্মীয় উত্তেজনা।

২০২৮ সালের মধ্যেই জার্মানি এবং ব্রিটেনকে টপকে পৃথিবীর চতুর্থ বৃহত্তম অর্থনীতি হওয়ার দৌড়ে এখন ভারত। আগামী দশ বছরের মধ্যে ভারতের জাতীয় উৎপাদন ৮ হাজার ১৪৮ বিলিয়ন ডলার (৫ কোটি ৬৭ লাখ কোটি রুপি) থেকে বেড়ে ২২ হাজার ৮১৪ বিলিয়ন ডলার (১৫ কোটি ৮৮ লাখ কোটি রুপি) হবে; এমনটাই লক্ষ্যমাত্রা ভারতের। গত এক বছরে মোট উৎপাদন কমলেও এই মুহূর্তে পৃথিবীর ষষ্ঠ বৃহত্তম অর্থনীতি ভারত।

ভারতের মোট উৎপাদন বাড়তে থাকলেও একই সঙ্গে বাড়ছে ধনী-দরিদ্র বৈষম্য । অর্থাৎ বিত্তশালীদের সংখ্যা বাড়লেও আরও গরিব হচ্ছেন অর্থনীতির নিচের তলায় থাকা মানুষজন।

সদ্য প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের ৪৮ শতাংশ সম্পত্তিই সাড়ে তিন লাখ মানুষের হাতে। বাকি ৫২ শতাংশ সম্পত্তি আছে প্রায় ১৩০ কোটি মানুষের হাতে। তাই বিত্তশালীরা দেশ ছাড়লে  সেই সম্পত্তিও দেশ ছাড়ার আশঙ্কা থেকে যায়। দেশের অর্থনীতি ও সমাজকে নিরাপদ করার মাধ্যমেই বিত্তশালীদের দেশ ছাড়ার সংখ্যা কমানো যেতে পারে বলে বলা হয়েছে গবেষণা প্রতিবেদনটিতে।

যদিও ভারতীয় অর্থনীতির জন্য আশার কথাও আছে এই প্রতিবেদনে। সেখানে বলা হয়েছে, ভারতে এখনো যত ধনকুবের দেশ ছাড়ছেন, তার থেকে বেশি সংখ্যায় ধনকুবের তৈরিও করছে এই দেশ। তাই স্থায়িত্ব এবং নিরাপত্তা ফিরলে আবার ভারতে থেকেই সম্পদের পরিমাণ বাড়াতে পারবেন তারা।

সূত্র: আনন্দবাজার

 

টাইমস/এসআই

কারাবন্দীদের নাস্তায় যুক্ত হলো মুখরোচক খাবার

কারাবন্দীদের নাস্তায় যুক্ত হলো মুখরোচক খাবার

কারাগার প্রতিষ্ঠার পর সেই ব্রিটিশ আমল থেকে একই মেন্যুতে সকালের নাস্তা খেয়ে আসছেন বাংলাদেশের কারাবন্দীরা। অবশেষে সেই ব্রিটিশ আমল থেকে কারাবন্দীদের জন্য বরাদ্দ সকালের নাস্তার মেন্যু পরিবর্তন হল। রোববার (১৬ জুন) থেকে তাদের মেন্যুতে যুক্ত হচ্ছে মুখরোচক কিছু খাবার। কারাগার সূত্রে জানা যায়, কারাগার প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত সকালের নাস্তায় একটি মেন্যু ছিল।

২৮ মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসালো ভারত   

২৮ মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসালো ভারত  

আপেল, অ্যালমন্ডসহ ২৮ টি মার্কিন পণ্যের ওপর শুল্ক বসানোর ঘোষণা দিয়েছে ভারত। ভারতের ওপর থেকে যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য সুবিধা তুলে নেওয়ায় পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নিলো দিল্লি। রোববার থেকেই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। নতুন এই শুল্ক হার সর্বোচ্চ ৭০ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর হতে পারে। খবর বিবিসির।

তুচ্ছ ঘটনায় মা-কে হত্যা করল ছেলে

তুচ্ছ ঘটনায় মা-কে হত্যা করল ছেলে

ঘটনা গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুম্মারবাড়ি ইউনিয়নের উত্তর বগারভিটা গ্রামের। শনিবার রাত আটটার দিকে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে মা তাহেরা বেগমের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়ান ছেলে কালাম শেখ। একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে কালাম তার মায়ের পাঁজরে ছুরিকাঘাত করেন। তাহেরা বেগমকে সোনাতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মারা যান।

জাতীয়

কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল দু'জনের

কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল দু'জনের

কুষ্টিয়ায় পৃথক স্থানে ট্রাকের নিচে চাপায় দুই সাইকেলের আরোহী নিহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কে ভেড়ামারার বারোমাইল মতিয়া ফিলিং স্টেশন ও কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ সড়কের ভাদালিয়া এলাকায় দুর্ঘটনা দুটি ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

আন্তর্জাতিক

কিশোর মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড থেকে সরে এলো সৌদি সরকার

কিশোর মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড থেকে সরে এলো সৌদি সরকার

সৌদি আরবে ১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজা কুরেইরিসকে দেয়া মৃত্যুদণ্ড দেশটির সরকার বাতিল করেছে বলে জানিয়েছে দেশটির এক কর্মকর্তা। শনিবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান ওই কর্মকর্তা। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সরকারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো বিবৃতি দেয়া হয়নি।

জাতীয়

কুমিল্লায় সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

কুমিল্লায় সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

কুমিল্লায় সদর দক্ষিণ উপজেলার সীমান্তবর্তী মথুরাপুর এলাকায় শনিবার রাত আড়াইটার দিকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি)’র সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত হয়েছেন।

উক্তি প্রতিদিন

“দুঃখের সময় প্রকৃত  বন্ধু ভালোবাসা প্রদর্শন করে”

“দুঃখের সময় প্রকৃত বন্ধু ভালোবাসা প্রদর্শন করে”

প্রাচীন গ্রিক কবি ও নাট্যকার ইউরিপিডিস (খ্রিস্টপূর্ব ৪৮০-৪০৬)। বিখ্যাত গ্রিক ট্র্যাজেডির তিন রচয়িতার মধ্যে তিনি একজন। ইউরিপিডিসের জন্ম এথেন্সের একটি দ্বীপ অঞ্চলে। অল্প বয়স থেকেই তিনি কবিতা ও নাটক লেখা শুরু করেন। ইউরিপিডিসের নাটকে উঠে আসে সমকালীন রাজনীতির উত্থান-পতন ও নতুন জীবনদর্শনের বিষয়।

জাতীয়

টেকনাফে র‌্যাবের গুলিতে তিনজন নিহত

টেকনাফে র‌্যাবের গুলিতে তিনজন নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে‌’ তিন মাদক কারবারি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং-বাহারছড়া সড়কের পাহাড়ি ঢালা নামক এলাকায় কথিত এই বন্দুকযুদ্ধ হয়।

পথিকৃৎ

আবুল মনসুর আহমদের সংক্ষিপ্ত জীবনী

আবুল মনসুর আহমদের সংক্ষিপ্ত জীবনী

বাংলাদেশের একজন বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব আবুল মনসুর আহমদ। বাঙালির উন্নতি এবং সকল ধরনের ধর্মীয় গোঁড়ামির বিরুদ্ধে যে সকল সমাজ সংস্কারক এগিয়ে এসেছিলেন তার মধ্যে অন্যতম ছিলেন আবুল মনসুর আহমদ। আবুল মনসুর আহমদ বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টাদের মধ্যে অন্যতম। তিনি ছিলেন একাধারে রাজনীতিবিদ, আইনজ্ঞ ও সাংবাদিক এবং বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্রূপাত্মক রচয়িতা।