• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৩ মাঘ ১৪২৬

প্রাকৃতিক ‘এনার্জি ড্রিংক’ খেজুরের রস

প্রাকৃতিক ‘এনার্জি ড্রিংক’ খেজুরের রস

ফিচার ডেস্ক১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:১৯এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

শীতকালীন খাদ্য তালিকায় প্রথমেই আসে অতিপ্রিয় খেজুরের রস। কুয়াশাচ্ছন্ন শীতের সকালটা যেন খেজুরের রস ছাড়া জমেই না। শীত ও খেজুরের রস যেন ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। এই রস হচ্ছে- খেজুরের গাছ বা মধুবৃক্ষ থেকে আহুত মুখরোচক পানীয়।

মধুবৃক্ষ থেকে আহৃত রস কাঁচা ও জ্বাল দিয়ে খেতে যেমন সুস্বাদু, তেমনি এ রস দিয়ে তৈরি গুড় ও পাটালিরও তুলনা নেই। শীতের পিঠা-পায়েসের একটি উপাদেয় উপাদান খেজুরের রস। এই রসে তৈরি দানা, ঝোলা ও নলেন গুড়ের স্বাদ এবং ঘ্রাণই আলাদা।

পুষ্টি বিজ্ঞানীদের মতে, খেজুরের রস প্রচুর খনিজ ও পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ, যা আমাদের জন্য বেশ উপকারী। এতে প্রচুর এনার্জি বা শক্তি রয়েছে। এতে জলীয় অংশও বেশি। তাই এই রসকে প্রাকৃতিক ‘এনার্জি ড্রিংক’ বলা যেতে পারে। যারা শারীরিক দুর্বলতায় ভোগেন, কাজকর্মে জোর পান না, খেজুরের রস তাদের জন্য দারুণ উপকারী।

খেজুরের রসে ১৫-২০% দ্রবীভূত শর্করা থাকে, যা থেকে গুড় ও সিরাপ উৎপাদন করা হয়। এ রস কাঁচা খাওয়া যায়, আবার জ্বাল দিয়ে গুড় তৈরি করেও খাওয়া যায়। খেজুরের গুড় আখের গুড় থেকেও বেশি মিষ্টি, পুষ্টিকর ও সুস্বাদু এবং বেশি প্রোটিন, ফ্যাট ও মিনারেল রয়েছে।

কখন খাবেন, কখন খাবেন না
খেজুরের রস ভোর বেলায় খাওয়া ভালো। সারা রাত ধরে রস জমে থাকার পর সকাল সকাল এ রস খেলে উপকার পাওয়া যায়। তবে সময় যত গড়াতে থাকে, তত এতে ফারমেন্টেশন বা গাঁজন প্রক্রিয়া হতে থাকে। এতে রসের স্বাদ নষ্ট হয় এবং অম্লতা বাড়ে। অন্ধকারে এই প্রক্রিয়া কম হয়, কিন্তু দিনের আলোতে গাঁজন বেশি হয়। তাই দিনের বেলা রস খাওয়া ঠিক নয়। এতে বমিসহ পেটের নানা সমস্যা হতে পারে।

কতটুকু রস খাবেন
একজন সুস্থ মানুষ সকালে এক থেকে দুই গ্লাস রস খেতে পারেন। সকালে খালি পেটে খেলেও সমস্যা নেই। যেহেতু এটি এনার্জি ড্রিংক, তাই শরীরে শক্তি জোগাতে পরিমাণ মতো রস খাওয়া ভালো।

কীভাবে খাবেন
পুষ্টিবিদদের পরামর্শ হচ্ছে, রাতে বা সকালে রস খেতে পারেন বা রসের তৈরি বিভিন্ন খাবার খেতে পারেন। তবে রস যেহেতু খোলা অবস্থায় গাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়, তাই এতে জীবাণু থাকতে পারে। এটা অস্বাস্থ্যকর। এ জন্য রস হালকা আঁচ দিয়ে বা ফুটিয়ে নিয়ে খাওয়া ভালো। এছাড়া রস জ্বাল দিয়ে বিভিন্ন খাবার তৈরি করে খেতে পারেন।

সতর্কতা
যাঁদের ডায়াবেটিস আছে, তাঁরা খেজুরের রস এড়িয়ে যাবেন। এতে চিনির পরিমাণ বেশি। এছাড়াও খেয়াল রাখতে হবে, খেজুরের রসে যেন কোনো পোকামাকড় মুখ না দেয়। বাদুড় বা পাখির মুখ দেয়া রস খেলে রোগ হতে পারে।

 

টাইমস/জিএস

চীনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬

চীনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬

দিন যতোই যাচ্ছে চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রভাব ততই ভয়ঙ্কর হচ্ছে।

বাঁশখালীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩১ জেলে হত্যার আসামি নিহত

বাঁশখালীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩১ জেলে হত্যার আসামি নিহত

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩১ জেলেকে

মুক্তাগাছায় ট্রাকচাপায় প্রকৌশলীসহ দুইজনের প্রাণহানি

মুক্তাগাছায় ট্রাকচাপায় প্রকৌশলীসহ দুইজনের প্রাণহানি

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় এক প্রকৌশলীসহ অটোরিকশার দুই যাত্রী

স্বাস্থ্য

জেনে নিন, ‘করোনাভাইরাস’ কী, এর লক্ষণ ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা

জেনে নিন, ‘করোনাভাইরাস’ কী, এর লক্ষণ ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা

বাতাসে একটি নতুন প্রাণঘাতী ছড়িয়ে পড়ছে, যাকে বিজ্ঞানীরা ‘করোনাভাইরাস’ গোত্রের বলে মত প্রকাশ করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, চীনের উহান শহরে ২০১২ সালের ডিসেম্বরের পর থেকে এই ভাইরাসটির সংক্রমণ শুরু হয়, প্রথমে কয়েকশ ব্যক্তি সংক্রামিত হয়েছিল।

জাতীয়

গোদাগাড়ীতে নসিমন উল্টে মাছ ব্যবসায়ী নিহত   

গোদাগাড়ীতে নসিমন উল্টে মাছ ব্যবসায়ী নিহত  

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় নসিমন উল্টে খাদে পড়ে এক মাছ ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। তার নাম শরীফুল ইসলাম (৪৮)। রোববার সকালে উপজেলার রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কের বিজয়নগর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্বাস্থ্য

জীবাণু ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে হাঁচি দিন সাবধানে

জীবাণু ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে হাঁচি দিন সাবধানে

আমরা সবাই হাঁচি দেই, কিন্তু বিভিন্ন জন বিভিন্ন কারণে হাঁচি দিয়ে থাকি। এটা মানুষের শরীরের অনিচ্ছাকৃত কর্মকাণ্ডের অংশ। নাকের ভেতরের ত্বকের বহিরাংশে উত্তেজনা সৃষ্টির মাধ্যমে, নাক-মুখ থেকে আকস্মিক প্রচুর পরিমাণে বায়ু নিঃসরণকে হাঁচি বলে।

জাতীয়

ভারতে গরু আনতে গিয়ে নিহত হলে দায় নেবে না সরকার: খাদ্যমন্ত্রী

ভারতে গরু আনতে গিয়ে নিহত হলে দায় নেবে না সরকার: খাদ্যমন্ত্রী

অবৈধভাবে ভারত থেকে গরু আনতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে মারা গেলে তার দায় সরকার নেবে না বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

জাতীয়

ফেব্রুয়ারির শুরুতে মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহ

ফেব্রুয়ারির শুরুতে মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহ

মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহ আসছে ফেব্রুয়ারির শুরুতেই। এই শৈত্যপ্রবাহের মধ্য দিয়ে এবারের শীত বিদায় নেবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তবে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হওয়ার আগে ও পরে দুই চারদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

বিনোদন

বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী মম!

বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী মম!

দুই পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মম। ভালোবাসার মানুষের কাছ থেকে আঘাত পেয়ে বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেছেন তিনি। এরপর থেকে হাজার চেষ্টা করেও কথা ফোটানো যায়নি তার মুখে।