• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের ছয় উপায়

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের ছয় উপায়

স্বাস্থ্য ডেস্ক১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৭:৫১পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো আমাদের দেশেও ডায়াবেটিস রোগটির সংক্রমণ দিনদিন বেড়ে চলছে। ডায়াবেটিসকে বলা হয়ে থাকে সকল রোগের আতুরঘর। একবার এই রোগটি আপনার দেহে বাসা বাঁধলে অন্যান্য জটিল রোগ সমূহে আক্রান্ত হবার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ডায়াবেটিস একটি দুরারোগ্য ব্যাধি, অর্থাৎ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে তার থেকে সম্পূর্ণ সেরে ওঠা সম্ভব নয়। তবে সচেতনতা ও জীবনযাত্রা পরিবর্তনের মাধ্যমে এটি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

আসুন এমন ৬টি বিষয় সম্পর্কে জেনে নিই, যা আপনাকে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করবে-

বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিদের পরামর্শ নিন

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ডায়াবেটিস এডুকেশন প্রোগ্রামের চেয়ার লিন্ডা সিমিনেরিওর এ বিষয়ে বলেন, “ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে পুরো একটি গ্রাম/পাড়ার লোক প্রয়োজন হয়।” এই কথার সারমর্ম হলো এই রোগটি নিয়ন্ত্রণ করতে আপনার একাধিক লোকের সহায়তা দরকার।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ছাড়াও ডায়াবেটিস এডুকেটর, পুষ্টি বিশেষজ্ঞ, ফার্মাসিস্ট, থেরাপিষ্ট প্রভৃতি ব্যক্তিদের সহায়তা নিতে হবে। যারা আপনার জন্য স্বাস্থ্যকর জীবনাচরণের দিক নির্দেশনা এবং প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবেন।

নিজে সম্পৃক্ত হোন

বিশেষজ্ঞরা আপনাকে পরামর্শ ও দিক-নির্দেশনা দিতে পারবেন, কিন্তু বাকীটা নির্ভর করবে আপনার নিজের উপর। আপনাকে সক্রিয় ভাবে এই বিষয়ে জানতে হবে এবং তা প্রয়োগে সচেষ্ট থাকতে হবে।

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন

অতিরিক্ত ওজন স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর এবং ডায়াবেটিস আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য তা মারাত্মক ঝুঁকির কারণ। তাই ওজন নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে আপনাকে অবশ্যই সচেতন থাকতে হবে।

কারণ অতিরিক্ত ওজনের কারণে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা কষ্টসাধ্য হয়ে দাড়ায়। তাছাড়া অতিরিক্ত ওজন আমাদের দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ সমূহকে প্রভাবিত করে, ডায়াবেটিস থাকলে যা মারাত্মক জটিল অবস্থায় পৌঁছে যেতে পারে।

সক্রিয় থাকুন

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে আপনাকে শরীরচর্চা করতে হবে। প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০-৬০ মিনিট শরীরচর্চা করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

এটি একইসাথে রক্তে সুগারের মাত্রা কম করে, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে, হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখে এবং দেহে ইনসুলিনের প্রতিক্রিয়া উন্নত করে।

খাবারের বিষয়ে সচেতন হোন

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের অন্যতম একটি চাবিকাঠি হচ্ছে খাবার নিয়ন্ত্রণ। ডায়াবেটিস আক্রান্ত ব্যাক্তিদের অতি অবশ্যই খাবার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

বিশেষ করে এমন খাবার এড়িয়ে যেতে হবে যা খুব দ্রুত রক্তে সুগারের মাত্রা বৃদ্ধি করে। তবে প্রচুর পরিমাণে শাক-সবজি ও ফলমূল খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। একবারে বেশি না খেয়ে বারবার অল্প অল্প করে খেতে হবে।

মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন

মানসিক চাপ আমাদের রক্তে শর্করা বা সুগারের মাত্রা এবং রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। ফলে আমাদের হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্যের জন্য এটি মারাত্মক ক্ষতিকর।

মানসিক চাপের ফলে আমাদের দেহ ফাইট ওর ফ্লাইট মুডে চলে যায়। দেহে ইনসুলিনের প্রতিক্রিয়া সঠিকভাবে কাজ না করলে এ সময় রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা মারাত্মক বৃদ্ধি পায়, যা ডায়াবেটিস রোগিদের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

তাই সব সময় মানসিক চাপ মুক্ত থাকার চেষ্টা করুন। মেডিটেশন, যোগা বা মাইন্ডফুলনেসের মতো অভ্যাসগুলি এক্ষেত্রে আপনাকে সহায়তা করবে। তথ্যসূত্র: ওয়েবএমডি

 

টাইমস/এনজে/এসএন

 

 

ব্যাংকে লেনদেনের সময় বাড়লো

ব্যাংকে লেনদেনের সময় বাড়লো

ঈদের কারণে ব্যাংকে চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় লেনদেনের সময় বাড়ানো হয়েছে।

সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ১৭ মে

সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ১৭ মে

আগামী ১৭ মে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খুলে দেয়ার পূর্ব

অটোপাসের সুযোগ নেই, এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা হবেই

অটোপাসের সুযোগ নেই, এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা হবেই

করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেই নেয়া হবে এসএসসি ও এইচএসসি

আন্তর্জাতিক

ইরাকে মার্কিন বিমানঘাঁটিতে আবারও রকেট হামলা

ইরাকে মার্কিন বিমানঘাঁটিতে আবারও রকেট হামলা

ইরাকে অবস্থিত মার্কিন নিয়ন্ত্রিত বিমানঘাঁটি আইন আল আসাদে আবারও রকেট হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে এই বিমানঘাঁটিতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিন বার হামলার ঘটনা ঘটলো। এর আগে শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা কাশেম সোলেইমানি নিহতের প্রতিক্রিয়ায় এই বিমানঘাঁটিতে মিসাইল হামলা চালিয়েছিল ইরান।

জাতীয়

ঝুঁকি নিয়ে উৎসব উদযাপন করবেন না : সেতুমন্ত্রী

ঝুঁকি নিয়ে উৎসব উদযাপন করবেন না : সেতুমন্ত্রী

ঈদে ঘরমুখো মানুষের উদ্দেশ্যে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বেঁচে থাকলে অনেক উৎসব করা যাবে। ঝুঁকি নিয়ে উৎসব করতে গিয়ে বারবার মর্মান্তিক ঘটনা ঘটছে। পদ্মায় নৌ দুর্ঘটনায় ২৬ জনের প্রাণ গেছে। করোনা বাড়ছে। যে যেখানে আছেন, সেখানে থেকেই উৎসব করুন। কর্মস্থল ছেড়ে কেউ অন্য কোথাও যাবেন না।

জাতীয়

চীনের দেয়া উপহার সিনোভ্যাকের টিকা আসছে ১২ মে

চীনের দেয়া উপহার সিনোভ্যাকের টিকা আসছে ১২ মে

উপহার হিসেবে চীনের দেয়া সিনোভ্যাকের পাঁচ লাখ ডোজ করোনার টিকা আগামী ১২ মে দেশে আসছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জাতীয়

দেশে ফিরলেন লিবিয়ায় আটকে পড়া ১৬০ প্রবাসী

দেশে ফিরলেন লিবিয়ায় আটকে পড়া ১৬০ প্রবাসী

করোনাভাইরাস ও সহিংসতার ঘটনায় লিবিয়ায় আটকে পড়া ১৬০ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন। দেশটির বৃহত্তম শহর বেনগাজি ও সংঘাতপূর্ণ এলাকায় আটকে পড়েন এসব বাংলাদেশি প্রবাসীরা। ১৬০ জনের সঙ্গে একই ফ্লাইটে এক বাংলাদেশির লাশও দেশে এসেছে।

জাতীয়

ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন না কর্মজীবীরা

ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন না কর্মজীবীরা

লকডাউন চলাকালে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ঈদুল ফিতরের ছুটিতে কর্মজীবীদির নিজ নিজ কর্মস্থলে থাকার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

বিনোদন

তৃণমূলের জয় নিয়ে কটাক্ষ, কঙ্গোনার টুইটার আইডি স্থগিত

তৃণমূলের জয় নিয়ে কটাক্ষ, কঙ্গোনার টুইটার আইডি স্থগিত

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেতিবাচক মন্তব্য করে অনেক আগেই কুখ্যাতি অর্জন করেছে বলিউড তারকা কঙ্গনা রানাউত। এবার পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে টুইট করে বিপাকে পড়েছেন তিনি। আক্রমণাত্মক ও উস্কানিমূলক মন্তব্য করার কারণে কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে স্থগিত করেছে টুইটার কর্তৃপক্ষ।