• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬

প্রবীণদের চোখে পহেলা বৈশাখ

প্রবীণদের চোখে পহেলা বৈশাখ

তানভীর রায়হান১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০:২৬পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বাংলা নববর্ষকে বরণ করতে সারা বাংলা প্রস্তুত। এই উৎসবকে ঘিরে কয়েক দশক ধরেই পান্তা-ইলিশ নিয়ে একটা হইচই পড়ে যায়। তবে বিংশ শতাব্দীর শেষ দশকের আগে এই সংস্কৃতির প্রচলন ছিল না। প্রবীণরা বলছেন, আধুনিককালের কিছু মানুষ পান্তা-ইলিশের রীতি চালু করেছে।

তারা জানান, আগে পহেলা বৈশাখ উদযাপন করা হতো খুব অল্প পরিসরে। সেসময়ে পান্তা ইলিশ খাওয়া হতো না। এই সংস্কৃতি চালু হয়েছে ১৯৯০ সালের পর।

ঢাকা শহরে বিভিন্ন প্রান্তের ছয়জন প্রবীণের সাথে কথা বলেছে বাংলাদেশ টাইমস। তাদের কাছে প্রশ্ন ছিল, ১৯৭০ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত তাদের বৈশাখ উদযাপন কেমন ছিল? সেসময় খাবারের ধরনই বা কেমন ছিল?

এ বিষয়ে উত্তর-পশ্চিম যাত্রাবাড়ীর স্থানীয় এক বাড়িওয়ালী সাবিহা বেগম বলেন, আমার আব্বা ও আম্মা পহেলা বৈশাখে ফলমূল নিয়ে আসতো; তা আমরা খেতাম। পোলাও পাক করতাম। কারো বাড়িতে আমরা ওইদিন যেতাম না। আর পান্তা ইলিশের যে রীতি এখন বের হয়েছে তা আগে ছিল না। এছাড়াও গোস্ত, মুরগি খেতাম। ভালো ভালো খাবার খেতাম। যাতে বছরের সবদিনই ভালো খাবার খেতে পারি। আর তখন এখনকার মতো এতো আয়োজন হতো না।

গেন্ডারিয়ার স্থানীয় বাসিন্দা এম এ আওয়াল পহেলা বৈশাখের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, এসব বলতে গেলে আমাদের অনেক অতীতে যেতে হয়। তখন পহেলা বৈশাখে পান্তা-ইলিশের প্রচলন ছিল না। বর্ষবরণের দিন স্বাভাবিক খাবার খাওয়া হতো। তখন অনেক ছিল ইলিশ। আর এখন তো ইলিশের দামও বেশি। অদূর ভবিষ্যতে এই প্রথাও থাকবে কিনা জানি না।

তিনি বলেন, আমাদের সময় পহেলা বৈশাখে বাচ্চাদের নিয়ে মেলায় যেতাম। বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয় স্বজন বেড়াতে আসতো।

পুরান ঢাকার নারিন্দার স্থায়ী বাসিন্দা মো. মজিবুর রহমান বলেন, পহেলা বৈশাখ ছিল ব্যবসায়ীদের হালখাতার উৎসব। সেসময় আমরা আত্মীয়দের নিয়ে পোলাও-কোরমা খেতাম। পান্তা-ইলিশ ছিল না। বর্তমানে পান্তা-ইলিশটাকে ব্যবসায় রুপান্তর করা হয়েছে।

রাজধানীর সায়েদাবাদের মোটরসাইকেল গ্যারেজে কাজ করেন সেলিম। তিনি বলেন, আমরা মুসলিম পরিবারের মানুষ। সেসময় আমাদের মেলাতেও যেতে দিতো না। এখনকার ছেলেমেয়েরা যেভাবে ফুর্তি করে তা আমাদের সময়ে ছিল না। এটা এসেছে সম্রাট আকবর থেকে। পান্তা-ইলিশ তো নব্বই এর আগে চোখেও দেখিনি।

ইতিহাস থেকে জানা গেছে, খাজনা আদায়ে সুষ্ঠুতার জন্য মুঘল সম্রাট আকবর বাংলা সনের প্রবর্তন করেন। তিনি মূলত প্রাচীন বর্ষপঞ্জিতে সংস্কার আনার আদেশ দেন। সম্রাটের আদেশ মতে তৎকালীন বাংলার বিখ্যাত জ্যোতির্বিজ্ঞানী ও চিন্তাবিদ ফতেহউল্লাহ সিরাজি সৌর সন এবং আরবি হিজরি সনের ওপর ভিত্তি করে নতুন বাংলা সনের নিয়ম বিনির্মাণ করেন।

১৫৮৪ খ্রিস্টাব্দের ১০ মার্চ বা ১১ মার্চ থেকে বাংলা সন গণনা শুরু হয়। তবে এই গণনা পদ্ধতি কার্যকর করা হয় আকবরের সিংহাসন আরোহণের সময় (৫ই নভেম্বর, ১৫৫৬) থেকে। প্রথমে এই সনের নাম ছিল ফসলি সন, পরে ‘বঙ্গাব্দ’ বা বাংলা বর্ষ নামে পরিচিত হয়।

আকবরের সময়কাল থেকেই পহেলা বৈশাখ উদযাপন শুরু হয়। তখন প্রত্যেককে বাংলা চৈত্র মাসের শেষ দিনের মধ্যে সকল খাজনা, মাশুল ও শুল্ক পরিশোধ করতে বাধ্য থাকত।

পহেলা বৈশাখে ভূমির মালিকরা নিজ নিজ অঞ্চলের অধিবাসীদেরকে মিষ্টান্ন দ্বারা আপ্যায়ন করতেন। এ উপলক্ষে বিভিন্ন উৎসবের আয়োজন করা হত। তখনকার সময় এই দিনের প্রধান ঘটনা ছিল একটি হালখাতা তৈরি করা। হালখাতা বলতে একটি নতুন হিসাব বই বোঝানো হয়েছে।

 

টাইমস/টিআর/জেডটি

কারাবন্দীদের নাস্তায় যুক্ত হলো মুখরোচক খাবার

কারাবন্দীদের নাস্তায় যুক্ত হলো মুখরোচক খাবার

কারাগার প্রতিষ্ঠার পর সেই ব্রিটিশ আমল থেকে একই মেন্যুতে সকালের নাস্তা খেয়ে আসছেন বাংলাদেশের কারাবন্দীরা। অবশেষে সেই ব্রিটিশ আমল থেকে কারাবন্দীদের জন্য বরাদ্দ সকালের নাস্তার মেন্যু পরিবর্তন হল। রোববার (১৬ জুন) থেকে তাদের মেন্যুতে যুক্ত হচ্ছে মুখরোচক কিছু খাবার। কারাগার সূত্রে জানা যায়, কারাগার প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত সকালের নাস্তায় একটি মেন্যু ছিল।

২৮ মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসালো ভারত   

২৮ মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসালো ভারত  

আপেল, অ্যালমন্ডসহ ২৮ টি মার্কিন পণ্যের ওপর শুল্ক বসানোর ঘোষণা দিয়েছে ভারত। ভারতের ওপর থেকে যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য সুবিধা তুলে নেওয়ায় পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নিলো দিল্লি। রোববার থেকেই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। নতুন এই শুল্ক হার সর্বোচ্চ ৭০ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর হতে পারে। খবর বিবিসির।

তুচ্ছ ঘটনায় মা-কে হত্যা করল ছেলে

তুচ্ছ ঘটনায় মা-কে হত্যা করল ছেলে

ঘটনা গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুম্মারবাড়ি ইউনিয়নের উত্তর বগারভিটা গ্রামের। শনিবার রাত আটটার দিকে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে মা তাহেরা বেগমের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়ান ছেলে কালাম শেখ। একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে কালাম তার মায়ের পাঁজরে ছুরিকাঘাত করেন। তাহেরা বেগমকে সোনাতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মারা যান।

জাতীয়

কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল দু'জনের

কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল দু'জনের

কুষ্টিয়ায় পৃথক স্থানে ট্রাকের নিচে চাপায় দুই সাইকেলের আরোহী নিহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কে ভেড়ামারার বারোমাইল মতিয়া ফিলিং স্টেশন ও কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ সড়কের ভাদালিয়া এলাকায় দুর্ঘটনা দুটি ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

আন্তর্জাতিক

কিশোর মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড থেকে সরে এলো সৌদি সরকার

কিশোর মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড থেকে সরে এলো সৌদি সরকার

সৌদি আরবে ১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজা কুরেইরিসকে দেয়া মৃত্যুদণ্ড দেশটির সরকার বাতিল করেছে বলে জানিয়েছে দেশটির এক কর্মকর্তা। শনিবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান ওই কর্মকর্তা। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সরকারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো বিবৃতি দেয়া হয়নি।

জাতীয়

কুমিল্লায় সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

কুমিল্লায় সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

কুমিল্লায় সদর দক্ষিণ উপজেলার সীমান্তবর্তী মথুরাপুর এলাকায় শনিবার রাত আড়াইটার দিকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি)’র সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত হয়েছেন।

উক্তি প্রতিদিন

“দুঃখের সময় প্রকৃত  বন্ধু ভালোবাসা প্রদর্শন করে”

“দুঃখের সময় প্রকৃত বন্ধু ভালোবাসা প্রদর্শন করে”

প্রাচীন গ্রিক কবি ও নাট্যকার ইউরিপিডিস (খ্রিস্টপূর্ব ৪৮০-৪০৬)। বিখ্যাত গ্রিক ট্র্যাজেডির তিন রচয়িতার মধ্যে তিনি একজন। ইউরিপিডিসের জন্ম এথেন্সের একটি দ্বীপ অঞ্চলে। অল্প বয়স থেকেই তিনি কবিতা ও নাটক লেখা শুরু করেন। ইউরিপিডিসের নাটকে উঠে আসে সমকালীন রাজনীতির উত্থান-পতন ও নতুন জীবনদর্শনের বিষয়।

জাতীয়

টেকনাফে র‌্যাবের গুলিতে তিনজন নিহত

টেকনাফে র‌্যাবের গুলিতে তিনজন নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে‌’ তিন মাদক কারবারি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং-বাহারছড়া সড়কের পাহাড়ি ঢালা নামক এলাকায় কথিত এই বন্দুকযুদ্ধ হয়।

পথিকৃৎ

আবুল মনসুর আহমদের সংক্ষিপ্ত জীবনী

আবুল মনসুর আহমদের সংক্ষিপ্ত জীবনী

বাংলাদেশের একজন বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব আবুল মনসুর আহমদ। বাঙালির উন্নতি এবং সকল ধরনের ধর্মীয় গোঁড়ামির বিরুদ্ধে যে সকল সমাজ সংস্কারক এগিয়ে এসেছিলেন তার মধ্যে অন্যতম ছিলেন আবুল মনসুর আহমদ। আবুল মনসুর আহমদ বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টাদের মধ্যে অন্যতম। তিনি ছিলেন একাধারে রাজনীতিবিদ, আইনজ্ঞ ও সাংবাদিক এবং বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্রূপাত্মক রচয়িতা।