• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

রাবির ভিসি নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আইনি নোটিস

রাবির ভিসি নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আইনি নোটিস

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী১৬ মে ২০১৯, ০৩:০৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক শিক্ষার্থীর পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মুহা. মুজাহিদুল ইসলাম বুধবার রেজিস্ট্রি ডাক যোগে এই নোটিশ পাঠান।

নোটিসদাতা সালমান ফিরোজ ফয়সাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার কানাইডাংগা গ্রামের বাসিন্দা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের লিগ্যাল সেলের প্রশাসক ড. শাহিন জোহরা নোটিশের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য এখনও অফিসিয়ালি নোটিশের কপি গ্রহণ করেননি।

রাবির উপাচার্য, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব, শিক্ষা সচিব, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সচিব, রাবির রেজিস্ট্রার, ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতির বরাবরে নোটিসটি পাঠানো হয়েছে।

নোটিশ প্রাপ্তির সাত দিনের মধ্যে উপাচার্যকে অপসারণ করে তা লিখিতভাবে নোটিশদাতাকে জানাতে বলা হয়েছে। অন্যথায় সুপ্রিম কোর্টে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, অধ্যাপক ড. এম. আব্দুস সোবহান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হিসেবে ২০১৭ সালের ৭ মে চার বছরের জন্য দ্বিতীয় মেয়াদে নিয়োগ পান এবং ওইদিনই দায়িত্ব গ্রহণ করেন। দায়িত্ব গ্রহণের পর ২১ জুন তিনি উপাচার্যের পদে থেকে ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে অধ্যাপক হিসাবে যোগদান করেন। আবার ওইদিনই স্বেচ্ছায় অবসর গ্রহণ করেন।

এর ফলে উপাচার্যের পদে সাময়িক শূন্যতা সৃষ্টি হয়। উপাচার্য পদের সাময়িক শূন্যতা পূরণকল্পে রাষ্ট্রপতির অনুমতি ছাড়াই একদিনের জন্য বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. আখতার ফারুককে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য নিয়োগ দেয়া হয়। যা ১৯৭৩ সালের বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাদেশের পরিপন্থী।

এতে আরও বলা হয়, ২০১৭ সালের ২১ জুন বিভাগে যোগদান ও স্বেচ্ছা-অবসর গ্রহণের তথ্য গোপন করে ২৪ জুন তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে একটি আবেদন করেন। যেখানে ২৯ জুন তারিখে স্বপদে যোগদান ও স্বেচ্ছা-অবসর গ্রহণের অনুমতি চাওয়া হয়। রাষ্ট্রপতি সেই আবেদন গ্রহণ করে তাকে যোগদান ও স্বেচ্ছা অবসরের অনুমতি দেন। অথচ আবেদনের পূর্বেই তিনি যোগদান ও স্বেচ্ছা-অবসর গ্রহণ করেছেন।

আইনজীবী মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, এসব কাজের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে ড. এম. আব্দুস সোবহান তথ্য গোপন ও প্রতারণার মাধ্যমে যোগদান ও স্বেচ্ছা-অবসরের অনুমতি নিয়েছেন। অবসরের পূর্ণ সুবিধা এককালীন পাওয়ার জন্যই এই কাজ করেছেন তিনি। কারণ ওই বছরের ১ জুলাইয়ের পর অবসর নিলে ড. আব্দুস সোবহান অবসরকালীন ৫০ শতাংশের বেশি টাকা একবারে উত্তোলন করতে পারতেন না।

তাই বেআইনি কাজ সম্পাদন, তথ্য গোপন ও প্রতারণার অভিযোগে উপাচার্য আব্দুস সোবহান এর এই পদত্যাগ চাওয়া হয়েছে বলে জানান আইনজীবী মুজাহিদুল ইসলাম।

 

টাইমস/এইচইউ

মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বলব তারা যেন মিয়ানমারে যায়। এজন্য একটি কমিশন গঠন করা যেতে পারে। কমিশন, জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা এবং অন্যান্য সবার এখন কাজ হচ্ছে মিয়ানমার যাওয়া। সেখানে গিয়ে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের জন্য অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করা। আমাদের এখানে তাদের আর কাজ নেই।

নারী ও শিশু নির্যাতন ঠেকাতে তারেকের নির্দেশে বিএনপির নতুন সংগঠন

নারী ও শিশু নির্যাতন ঠেকাতে তারেকের নির্দেশে বিএনপির নতুন সংগঠন

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় ‘নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম’ গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান ও কেন্দ্রীয় নেতা নিপুণ রায় চৌধুরীর নেতৃত্বে ৬৬ সদস্যের গঠিত কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়।

রাঙামাটিতে সেনা টহলের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

রাঙামাটিতে সেনা টহলের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

রাঙামাটিতে সেনাবাহিনীর টহলের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইউপিডিএফ প্রসীতপন্থী দলের শীর্ষ সন্ত্রাসী সুমন চাকমা নিহত হয়েছেন। নিহত সুমন নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা হত্যার অন্যতম আসামি।

জাতীয়

রংপুরে প্রসূতির জরায়ুতে সুই রেখেই সেলাই

রংপুরে প্রসূতির জরায়ুতে সুই রেখেই সেলাই

রংপুর শহরের আদর্শ পাড়া এলাকার অটোরিকশা চালক তানজিদ হোসেনের স্ত্রী আফরোজা বেগমকে প্রসববেদনা নিয়ে ভর্তি করা হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নরমাল ডেলিভারির সময় কষ্ট হলে পায়খানা ও প্রস্রাবের রাস্তা কেটে নবজাতককে বের করা হয়। পরে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে চিকিৎসক ছাড়াই নার্স ও আয়া সুই রেখে সেলাই করে দেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিশ্বে ঝুঁকি বাড়াচ্ছে কিলার রোবট

বিশ্বে ঝুঁকি বাড়াচ্ছে কিলার রোবট

রোবটকে আমরা মানুষের সাহায্যকারী বা কাজের চাপ কমানোর যন্ত্র হিসেবেই মনে করি। কিন্তু বর্তমানে সারা বিশ্বের আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে কিলার রোবট। যার কাজ হবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মানুষ খুন করা। অ্যামাজন, মাইক্রোসফট ও ইনটেলের মতো বিখ্যাত টেক কোম্পানি এসব কিলার রোবট তৈরি করছে। বিভিন্ন দেশের সামরিক বাহিনী যুদ্ধক্ষেত্রে এসব রোবট ব্যবহার করতে চায়।

বিনোদন

পূর্ণাঙ্গ ভূত হয়ে খুনিদের খুঁজছেন জয়া!

পূর্ণাঙ্গ ভূত হয়ে খুনিদের খুঁজছেন জয়া!

দুই বাংলার জনপ্রিয় নায়িকা জয়া আহসান। একের পর এক দর্শকনন্দিত ছবিগুলোর নায়িকা হয়ে বাংলাদেশ-কলকাতায় সমানভাবে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। কিছুদিন আগে বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছে তার সিনেমা 'দেবী'। হ‌ুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এই সিনেমায় জয়াকে দেখা গিয়েছিলে আধা-ভৌতিক এক চরিত্রে। যেখানে পুরোপুরি ভূত রূপ ধারণ করতে পারেননি তিনি।

লাইফস্টাইল

ব্লুটুথ হেডসেট ব্যবহারে সাবধান

ব্লুটুথ হেডসেট ব্যবহারে সাবধান

আমাদের বর্তমান ফ্যাশনে কানে ব্লুটুথ হেডসেট রাখাটা যেন বাধ্যতামূলক। বাসে চলার পথে, অফিসে, অবসরে, রাস্তায় হাঁটাহাঁটিসহ বিভিন্ন সময়ে ব্লুটুথ হেডসেট যেন তরুণদের সবচেয়ে পছন্দের। পরিস্থিতি যাই হোক, গান শোনা চাই-ই চাই।

বিনোদন

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন  এষা

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন এষা

বলিউড অভিনেত্রী এষা গুপ্তা। এবার সড়কে অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন তিনি। দুর্ঘটনায় আহত হলেও খারাপ কিছু হয়নি এই অভিনেত্রীর। পরে আহত অবস্থায় মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। সেখানে নায়িকাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, এষা ভালো আছেন। অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন।

বিনোদন

বিয়ের পরই রিয়ার সেক্স বাণিজ্য!

বিয়ের পরই রিয়ার সেক্স বাণিজ্য!

অন স্ক্রিন কিংবা অফ স্ক্রিন, কোথাও চমক দিতে ভোলেন না রিয়া সেন। তবে বেশ কিছুদিন ধরে চমক দেয়া’তো দূরের কথা, হারিয়েই গেলেন তিনি। বহুদিন ক্যামেরার সামনেই দেখা যায়নি তাকে।