• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

আজ তারা, কাল হয়তো আমি কিংবা তুমি

আজ তারা, কাল হয়তো আমি কিংবা তুমি

অতিথি লেখক২৯ মার্চ ২০১৯, ০৪:২৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

চারদিকে আগুনের লেলিহান শিখা। আকাশ ঢেকে গেছে কালো ধোঁয়ায়। বাতাসে শুধু পোড়া লাশের গন্ধ। মর্গে জমা হচ্ছে সারি সারি লাশ। একের পর এক লাশ এসে শামিল হচ্ছে মৃত্যুর মিছিলে।

কেউ কেউ ছবি তুলছেন মৃত্যুপুরীর। বাঁচাও বাঁচাও আর্তনাদে প্রকম্পিত হয়ে ওঠছে আকাশ-বাতাস। কেউ কেউ নির্বাক শ্রোতা হয়ে সেই আহাজারি শুনছে। শত শত গণমাধ্যমকর্মীরা সেই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দী করতে ব্যস্ত।

দমকল কর্মীদের অক্লান্ত চেষ্টার ফলে একসময় সেই ধ্বংসলীলার ইতি ঘটে। আর দিন শেষে খবরের শিরোনাম হয় ‘অবশেষে আগুন নিয়ন্ত্রণে’।

ওপরের দৃশ্যপট কোনো সিনেমার নয়। এটা বাস্তব। বাংলাদেশে রোজকার ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে আগুন লাগার ঘটনা। ঘটনা যখন ঘটে তখন সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে সাংবাদিক আর প্রশাসন সবাই ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে দোষারোপ করতে থাকি। সরকার ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি ও পরিবারকে কিছু টাকা ক্ষতিপূরণ দেবার আশ্বাস দেন। এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হবার একটি আনুষ্ঠানিকতার প্রতিশ্রুতি দেন। যে প্রতিশ্রুতি অধিকাংশ ক্ষেত্রেই কেবল সম্মান রক্ষার্থে করা হয়। সংবাদ সংগ্রহ করতে করতে দিন শেষে সাংবাদিকরাও ক্লান্ত হয়ে পড়েন। ধীরে ধীরে ঘটনার রেশ কেটে যায়। আর এ নিয়ে কারো মাথা ব্যাথাও থাকে না।

তবে এসব নিয়ে কিন্তু অনেক তদন্ত কমিটি গঠিত হয়। কমিটি প্রতিবেদন জমা দেয়, সুবিধা মতো দোষারোপ করে এবং সমস্যা প্রতিরোধে এক বিশাল লম্বা সুপারিশমালা তুলে ধরে। তবে সেই সুপারিশ ওই প্রতিবেদনের পাতায়ই আটকে থাকে। বাস্তবায়নের কোনো চেষ্টাও দেখা যায় না। কিছু দিন পত্রপত্রিকার শিরোনাম হবার পর সাংবাদিকরাও বিরক্ত হয়ে পড়েন। ফলে অবস্থা দাঁড়ায় এমন যে, ‘যেই লাউ সেই কদু’।

কিছুদিন পর আবারো সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। সেই কান্না, সেই আহাজারি, সেই লাশের মিছিল। আবারো সেই তদন্ত কমিটি, পারস্পরিক দোষারোপ আর প্রতিশ্রুতির সংস্কৃতি।

অথচ আমরা কখনো এটা ভাবতে পারি না যে, আজ হয়ত এই হতভাগা মানুষগুলোর মৃত্যু হয়েছে, কাল তো আপনার কিংবা আমার একই পরিণতি হতে পারে? তবে কেন আমরা এই দোষারোপ আর প্রতিশ্রুতির ন্যাক্কারজনক সংস্কৃতি থেকে বের হতে পারি না? আমাদের সমস্যাটা কোথায়? আমাদের কি এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি প্রতিরোধ করার সামর্থ্য নেই? না কি আমাদের একটু সদিচ্ছা আর মানুষের প্রতি ভালোবাসার অভাব আছে? তা না হলে কেন আমরা প্রতিনিয়ত একের পর এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সম্মুখীন হচ্ছি? আমাদের গলদ কোথায়?

পুরান ঢাকার নিমতলীর অগ্নিকাণ্ডের কথা তো সবারই মনে আছে? আর ২০ ফেব্রুয়ারি পুরান ঢাকার চুড়িহাট্টার ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। যা প্রায় ৮০ জনেরও বেশি নিরীহ মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছে। এর মাত্র কয়েকদিন আগে চট্টগ্রামে আরেকটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নয় জন মারা যায়।

চুড়িহাট্টা ট্রাজেডির রেশ কাটতে না কাটতেই আবার সেই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। ২৮ মার্চ বনানীর ২২ তলা ভবন এফআর টাওয়ারে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ২৫ জন মারা যায় এবং অর্ধশতাধিক মানুষ গুরুতর আহত হয়। ক্যামেরার সামনে জীবন্ত মানুষগুলো পুড়ে যাওয়ার সেই দৃশ্য আর বেঁচে থাকার আকুতি দেখলে গা শিউরে ওঠে।

অথচ দুঃখজনক হলেও সত্য আধুনিক বহুতল ভবনটিতেও ছিল সেই অব্যবস্থাপনা। একটি আধুনিক বহুতল ভবন হওয়া সত্ত্বেও সেখানে পর্যাপ্ত অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না বলে অভিযোগ ওঠেছে। যে সামান্য ব্যবস্থাটুকু ছিল তাও কার্যকর ছিল না বলে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা জানিয়েছেন। তাছাড়া ভবন নির্মাণেও নীতিমালা অনুসরণ করা হয়নি।

কিন্তু প্রশ্ন হলো- এখন কেন আমরা এরকম দোষারোপ করছি? এতে কি যারা হারিয়ে গেছে তাদের ফিরে পাওয়া যাবে? তা না হলে এতদিন এই বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হলো না কেন? একটি অভিজাত এলাকায় এরকম একটি আধুনিক ভবন নির্মাণে নীতিমালা মানা হয়নি, অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা  নেই- এই বিষয়গুলো কীভাবে প্রশাসন থেকে আড়াল থাকে? এর দায়ভার কি কোনো ভাবে প্রশাসন এড়াতে পারবে?

না, প্রশাসন কোনো ভাবেই এই দায়ভার এড়াতে পারে না? তাই এখনই সময়, আমি, আমরা, প্রশাসন সবাইকেই একসঙ্গে এগিয়ে আসতে হবে। এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করতে হবে। এবং এটা আমাদের স্বার্থেই। অন্যথায়, আজ হয়ত এই হতভাগা লোকগুলোর জীবন গেছে। কাল তো হতে পারে আমি কিংবা তুমি?

 

 

লেখক: এনামুক হক, সাংবাদিক

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় ৫৫ হাজার ২৯৫ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যায় এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এফ এম মনজুর কাদির জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮’ ৬৩ জেলার লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। সারাদেশে লিখিত পরীক্ষায় মোট ৫৫ হাজার ২৯৫ জন প্রার্থী পাস করেছেন।

দুই প্যাকেট খাবার দিয়ে অবৈধদের বাংলাদেশে পাঠানো হবে: বিজেপি নেতা

দুই প্যাকেট খাবার দিয়ে অবৈধদের বাংলাদেশে পাঠানো হবে: বিজেপি নেতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আপত্তি থাকা সত্ত্বেও জাতীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি) করা হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন বিজেপির বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। তিনি হুমকি দিয়ে বলেছেন, এনআরসিতে যারা অবৈধ চিহ্নিত হবেন, তাদেরকে হাতে দুই প্যাকেট করে খাবার ধরিয়ে দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে। শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন বিজেপির এই নেতা।

অন্যায়-দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না: কাদের

অন্যায়-দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশে এই প্রথম শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নজিরবিহীন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হলো। তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এবং বাধ্যতামূলক পদত্যাগ করানো হয়েছে। বাংলাদেশের অন্য কোন ছাত্র সংগঠনে এ ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণের নজির নেই। নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে রোববার দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আন্তর্জাতিক

‘ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে হারতে পারে পাকিস্তান’

‘ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে হারতে পারে পাকিস্তান’

ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে পাকিস্তান হারতে পারে উল্লেখ করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, আমি নিশ্চিত, যখন পারমাণবিক শক্তিধর দুটি দেশের মধ্য যুদ্ধ শুরু হয়, তখন সেটা অবশ্যই পারমাণবিক যুদ্ধের দিকে গড়াবে। ঈশ্বর না করুক, যদি এমন কোনো যুদ্ধ হয়, আর আমরা হেরে যাই তাহলে আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করব। রোববার আল জাজিরাকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে ইমরান খান এসব কথা বলেন।

জাতীয়

জনগণের আস্থা অর্জনে পুলিশ নিয়োগে স্বচ্ছতা গুরুত্বপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী

জনগণের আস্থা অর্জনে পুলিশ নিয়োগে স্বচ্ছতা গুরুত্বপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করার জন্য পুলিশ সদস্য নিয়োগে স্বচ্ছতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এবার পুলিশ সদস্য নিয়োগ নিয়ে কোনভাবেই কোন লোক দুর্নীতি ও ঘুষ দেয়ার কথা বলতে পারেনি। আগামীতে এ পদক্ষেপে এগিয়ে যেতে হবে।

জাতীয়

নোয়াখালীতে পুলিশের দুই কর্মকর্তা প্রত্যাহার

নোয়াখালীতে পুলিশের দুই কর্মকর্তা প্রত্যাহার

নোয়াখালী পুলিশের বিশেষ শাখার দুই এএসআইকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়ার পর এবার দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তিন রোহিঙ্গার পাসপোর্ট করার ঘটনায় শনিবার রাতে জেলা বিশেষ শাখার (ডিএসবি) দুই এএসআই আবুল কালাম ও নুরুল হুদাকে জেলা পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন।

জাতীয়

ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়া

ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়া

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফওজিয়া রেজওয়ান ভিকারুননিসা ন্যূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। রোববার জারি করা এক প্রজ্ঞাপনের এই নিয়োগের বিষয়টি প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। ফওজিয়া এর আগে রাজধানীর সবুজবাগ সরকারি মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ ছিলেন।

রাজনীতি

সোমবার ছাত্রলীগের দায়িত্ব নেবেন জয়-লেখক

সোমবার ছাত্রলীগের দায়িত্ব নেবেন জয়-লেখক

ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত দুই শীর্ষ নেতা আনুষ্ঠানিকভাবে সোমবার দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। এদিন তারা ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান ছাত্রলীগের নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ ছাত্রলীগের আরও অনেক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

বিনোদন

আরও চার শিল্পী পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

আরও চার শিল্পী পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

এবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও চার শিল্পীকে ২০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে অসুস্থ এই শিল্পীদের হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন তিনি।