• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

মঙ্গলে বসবাসের হাতছানি

মঙ্গলে বসবাসের হাতছানি

ফিচার ডেস্ক০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:২৩এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বহুকাল ধরে মানুষ মঙ্গলে বসবাসের স্বপ্ন দেখে চলেছেন। তাই মঙ্গলগ্রহকে কিভাবে বসবাস উপযোগী করে তোলা যায়, তা নিয়ে ভাবনার শেষ নেই। এ নিয়ে লেখা হয়েছে অনেক বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী ও উপন্যাস।

তবে কল্পনার জগত থেকে বেড়িয়ে এসে ১৯৭১ সালে কার্ল সেগান সর্বপ্রথম মঙ্গলের আবহাওয়া ও প্রকৃতিকে পৃথিবীর মতো করে গড়ে তোলা বা টেরাফর্মিংয়ের কথা বলেন। এক গবেষণাপত্রে, মঙ্গলের উত্তরাংশের বরফ বাষ্পীভূত করে এবং গ্রীণহাউজ এফেক্টের মাধ্যমে উষ্ণতা বৃদ্ধি করার মধ্যদিয়ে একে মানুষ বসবাসের উপযোগী করে তোলার সম্ভাবনার কথা সেগান তুলে ধরেন।

২০১৮ সালে নাসার উদ্যোগে ইউনিভার্সিটি অব কোলোরাডো, বোউল্ডার এবং নর্দান অ্যারিজোনা ইউনিভার্সিটির গবেষকরা আবিষ্কার করেন যে, মঙ্গলের সব উপাদান ব্যবহার করলেও এর উষ্ণতা পৃথিবীর ৭ শতাংশের বেশি বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হবে না। ফলে মঙ্গলে বসবাসের স্বপ্নপূরণ প্রায় অসম্ভব হয়ে উঠেছিল।

কিন্তু সম্প্রতি হার্ভাড ইউনিভার্সিটি, নাসার জেট ল্যাব এবং ইউনিভার্সিটি অব এডিনবার্গে গবেষকরা উক্ত সমস্যাটি সমাধানে একটি নতুন ধারণা সামনে নিয়ে এসেছেন। তারা বলছেন, পুরো গ্রহটিকে বদলে দেয়া হয়তো সম্ভব নয়, কিন্তু নির্দিষ্ট কোনো এলাকা পৃথিবীর আদলে বদলে দেয়া যেতে পারে।

গবেষকরা বলছেন, মঙ্গলের নির্দিষ্ট অঞ্চল সিলিকা এরো জেল দ্বারা বসবাসযোগ্য করে তোলা যেতে পারে। এটি ব্যবহারের ফলে গ্রীনহাউজ এফেক্টের মধ্যদিয়ে ওই অঞ্চলটিতে পৃথিবীর মতো পরিবেশ সৃষ্টি হবে।

তারা পরীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন যে, সিলাকা জেলের ২-৩ সেন্টিমিটার পুরু আস্তরণের ভেতরে সালোকসংশ্লেষণের জন্য যথেষ্ট আলো পৌঁছায়। এছাড়াও এটি ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি ঠেকায় এবং ভেতরের তাপমাত্রা স্থায়ীভাবে এতটা বৃদ্ধি করে যে, তাতে পানি ফুটতে শুরু করে। সব থেকে আশার কথা হলো, এর জন্যে আলাদা করে তাপ উৎপাদনের ব্যবস্থা করার প্রয়োজন নেই।

গবেষণাপত্রটি ‘ন্যাচার অ্যাস্ট্রোনমি ২০১৯’এ প্রকাশিত হয়েছে। এই গবেষণার ফলে মঙ্গলে বসবাসের সম্ভাবনা নতুন দিগন্তে পৌঁছে গেল। সেইদিন হয়তো খুব বেশি দূরে নয় যখন পৃথিবীর মানুষ ঘর বাঁধবে মঙ্গলের বুকে। সূত্র: সাইন্সটেকডেইলিডটকম

 

টাইমস/এনজে/জিএস

শপথ নিলেন ঢাকার দুই সিটির মেয়র

শপথ নিলেন ঢাকার দুই সিটির মেয়র

ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত দুই মেয়র ও

নাছিরকে নিয়ে ফরম জমা দিলেন রেজাউল

নাছিরকে নিয়ে ফরম জমা দিলেন রেজাউল

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক

নির্বাচনে হেরে দিল্লিতে দাঙ্গা করছে বিজেপি

নির্বাচনে হেরে দিল্লিতে দাঙ্গা করছে বিজেপি

নির্বাচনে হেরে গিয়েই দিল্লিতে দাঙ্গা শুরু করেছে বিজেপি, শিব সেনার

জাতীয়

নারায়ণগঞ্জে চোর চক্রের ৭ সদস্য আটক

নারায়ণগঞ্জে চোর চক্রের ৭ সদস্য আটক

নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ চোর চক্রের ৭ সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব। বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীনগরে র‍্যাব-১১ এর সহকারী পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান। এর আগে বুধবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের বাঘমারা, রূপগঞ্জের নোয়াপাড়া ও ঢাকার ডেমরায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে র‍্যাব।

জাতীয়

পুঠিয়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে একজনের মৃত্যু

পুঠিয়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে একজনের মৃত্যু

রাজশাহীর পুঠিয়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তার আনুমানিক বয়স ৩০ বছর। বৃহস্পতিবার বেলপুকুর রেলক্রসিংয়ের অদূরে সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পশ্চিম রেলওয়ের ইশ্বরদী জিআরপি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

অর্থনীতি

‘থামস আপ কারেন্ট’ কিনে জিতে নিন মোটরসাইকেল   

‘থামস আপ কারেন্ট’ কিনে জিতে নিন মোটরসাইকেল  

কোকাকোলা বাংলাদেশের অন্যতম কার্বনেটেড বেভারেজ ‘থামস আপ কারেন্ট’। সম্প্রতি ‘কারেন্ট খাও, বাইক জেতার সুযোগ পাও' নামে ভোক্তাদের জন্য থান্ডারাস একটি ক্যাম্পেইন শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ‘থামস আপ কারেন্ট’ পান করে ৬০ জন বিজয়ীর প্রত্যেকে পাবেন ১৫০ সিসি’র ‘ইয়ামাহা এফজেডএস এফআই ভার্সন ২ ডিডি’ মডেলের নতুন মোটরসাইকেল এবং সেই সাথে নিশ্চিত ১০টাকা রিচার্জ।

জাতীয়

ফুলপুরে নিখোঁজের ৫ দিন পর শ্রীপুর থেকে উদ্ধার চার ছাত্রী

ফুলপুরে নিখোঁজের ৫ দিন পর শ্রীপুর থেকে উদ্ধার চার ছাত্রী

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলা থেকে নিখোঁজের ৫ দিন পর দুই বোনসহ চার ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে গাজীপুরের শ্রীপুরের বেতজুড়ি গ্রাম থেকে তাদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ও ফুলপুর থানা পুলিশ।

যা কিছু প্রথম

জেনে নিন, টেলিস্কোপ আবিষ্কারের ইতিহাস

জেনে নিন, টেলিস্কোপ আবিষ্কারের ইতিহাস

বহুদূরের ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র বস্তুকে দেখার উপযোগী যন্ত্রকে বলা হয় টেলিস্কোপ বা দূরবীক্ষণ। নলাকৃতির এই যন্ত্রটি সাধারণত লেন্স ও দর্পণ দিয়ে তৈরি করা হয়। এ ধরণের যন্ত্রের সাহায্যে দূরের বস্তু আরও উজ্জ্বলভাবে বা অস্পষ্ট বস্তু আরও স্পষ্ট করে দেখা যায়। টেলিস্কোপের আবিষ্কার নিয়ে মূলত গ্যালিলিওকে কৃতিত্ব দেয়া হলেও টেলিস্কোপের আবিষ্কার হয়েছিল তারও বেশ কিছুদিন আগে!

স্বাস্থ্য

দই খেলে দূর হবে পেটের ব্যথাসহ নানা সমস্যা

দই খেলে দূর হবে পেটের ব্যথাসহ নানা সমস্যা

দই আমাদের অতিপরিচিত ও প্রিয় একটি খাবার। আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ লোকই দই খেতে পছন্দ করেন। এটি যে কেবল স্বাদেই অসাধারণ তা কিন্তু নয়, হজমে সহায়তা করাসহ ত্বককে সুস্থ রাখতে দইয়ের ভূমিকাও অতুলনীয়। মশলাদার খাবারের পর দই খাওয়ার রীতি আমাদের সমাজে এখনো অনেক জায়গায় প্রচলিত রয়েছে। এটি কিন্তু এমনি এমনি সৃষ্টি কোনো রীতি নয়, বরং এর পেছনে রয়েছে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা।