• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

চন্দ্রাভিযান সম্পর্কে অজানা তথ্য

চন্দ্রাভিযান সম্পর্কে অজানা তথ্য

ফিচার ডেস্ক১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৩৭এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মানুষ চাঁদে পা রেখেছে সেই ১৯৬৯ সালে। এর ৭ বছর আগে ১৯৬২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জন এফ. কেনেডি চাঁদে মানুষ পাঠাবার কথা ঘোষণা দিয়েছিলেন। তখন ছিল শীতল যুদ্ধের সময়, সেকারণে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের সঙ্গে সব রকম প্রতিযোগিতায় নিজেকে যোগ্য প্রমাণে মরিয়া ছিল যুক্তরাষ্ট্র।

চাঁদে মানুষ পাঠানো শুধু কেনেডির স্বপ্নের ফলেই সম্ভব হয়নি, এর পেছনে বহু লোকের শ্রম ও মেধা বিনিয়োগ করতে হয়েছে। এখানে যুক্তরাষ্ট্রের চন্দ্র-বিজয়ের অজানা বা কম আলোচিত কিছু তথ্য তুলে ধরা হলো।

চাঁদের মাটি দুর্গন্ধযুক্ত
নাসার যে দলটি অ্যাপোলো-১১’র চন্দ্রাবতরণের দায়িত্বে ছিল তাদের কাছে সব থেকে বড় প্রশ্ন ছিল- চাঁদের মাটি কেমন হবে? যানটি কি শক্ত মাটিতে নামতে যাচ্ছে, নাকি ডুবে যাবে তরল কিছুতে? দেখা গেল, চাঁদের তল কঠিন। কিন্তু অবাক করা বিষয় হলো- চাঁদের মাটির এক ধরণের গন্ধ রয়েছে।

চাঁদের মাটি অত্যন্ত আঠালো হওয়ায় তা ঝেড়ে ফেলা কঠিন। তাই নীল আর্মস্ট্রং ও অল্ড্রিন যখন লুনার মডিউলে ফিরে এসেছিল তখন তাদের পোষাকে লেগে থাকা চাঁদের মাটি কেবিনে ঢুকে যায়। ফলে নভোচারীরা কেবিনে অনুভব করা একধরণের দুর্গন্ধের কথা লিপিবদ্ধ করেছিলেন, যা অনেকটা পোড়া ছাইয়ের মতো।

তবে বিজ্ঞানীরা কখনো এই ঘটনা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখার সুযোগ পাননি। চাঁদ থেকে নিয়ে আসা যে মাটি ও পাথর ল্যাবে পরীক্ষার জন্যে পাঠানো হয়েছিল সেগুলোতে কোন গন্ধ ছিল না। এবিষয়ে ওয়ান জায়েন্ট লিপ’এর লেখক চার্লস ফিসম্যানের বিখ্যাত উক্তি হচ্ছে, “চাঁদের গন্ধ চাঁদেই থাকে।”

সোভিয়েত ইউনিয়নকে টেক্কা দেয়াই ছিল কেনেডির মূল লক্ষ্য
জনসাধারণের সম্মুখে চন্দ্র বিজয়ের কারণ হিসেবে কেনেডি বারবার জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রসারের কথাই বলেছেন। কিন্তু পরবর্তীতে ফাঁস হয়ে যাওয়া একটি ভিডিও থেকে জানা যায়, মহাশূন্য বিজয়ের থেকেও সোভিয়েত ইউনিয়নকে টেক্কা দেয়াই কেনেডির আগ্রহ ছিল বেশি।

ফাঁস হয়ে যাওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, ১৯৬২ খৃষ্টাব্দে অনুষ্ঠিত উপদেষ্টা পরিষদ ও নাসার কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক মিটিংয়ে মি. কেনেডি মন্তব্য করেন, “আমি মহাকাশ সম্পর্কে অতটাও আগ্রহী নই”। কিন্তু তিনি শীতল যুদ্ধে যথেষ্ট আগ্রহী ছিলেন। তার শপথ গ্রহণের কয়েক মাসের মধ্যেই সোভিয়েত ইউনিয়ন মহাশূন্যে মানুষ পাঠিয়েছিল।

তখন মি. কেনেডি তার ভাইস প্রেসিডেন্টকে ডেকে প্রশ্ন করেছিলেন যে, কীভাবে আমেরিকা সোভিয়েত ইউনিয়নের থেকে এক ধাপ এগিয়ে যেতে পারে? আর চাঁদের মাটিতে অবতরণের মধ্য দিয়ে আমেরিকা সত্যিকার অর্থেই সোভিয়েত ইউনিয়নের থেকে এক ধাপ এগিয়ে গিয়েছিল।

সোভিয়েত ইউনিয়ন তার চাঁদে মানুষ পাঠানোর পরিকল্পনা লুকিয়ে রাখতে চেয়েছিল
শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের কর্মকর্তারাও পরিকল্পনা করছিলেন চাঁদে মানুষ পাঠানোর। কিন্তু সোভিয়েত কর্মকর্তারা এই পরিকল্পনা লোকচক্ষুর সামনে আনতে চায় নি। তারাও অতি গোপনীয়তা বজায় রেখে সবার আগে এই সফলতার মুকুট পরতে চেয়েছিল। কিন্তু আমেরিকা তাদের বঞ্চিত করে।

সোভিয়েত পত্রিকা কোমসোমলকায়া পবদা’র ইয়ারোস্লাভ গোলোভানভ সাংবাদিক এ বিষয়ে বলেন, “মানুষ যাতে আমাদের থেকে খুব বেশি আশা না করে সে জন্য গোপনীয়তার প্রয়োজন ছিল।”

চাঁদের জীবাণু পৃথিবীকে আক্রান্ত করতে পারে ভেবে ভীত ছিলেন বিজ্ঞানীরা
যদিও নিজের জীবন বিপন্ন করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে বহু ধাপ এগিয়ে নিয়ে গেছিলেন আর্মস্ট্রং, অল্ড্রিন ও কোলিনস, তবুও পৃথিবীতে ফেরার পর তাদেরকে সন্দেহজনক চোখে দেখা হয়েছিল। আর বিজ্ঞানীরা এই ভেবে ভয় পাচ্ছিলেন যে, নভোচারীদের মাধ্যমে চাঁদ হতে কোনো ভয়ানক জীবাণুর প্রবেশ ঘটতে পারে পৃথিবীতে।

তাদের সঙ্গে মহাশূন্যে সৃষ্ট নতুন জীবনঘাতি কোনো প্ল্যাগ পৃথিবীতে ঢুকেছে কিনা, তা নিয়েও নাসার বিজ্ঞানীরা ছিলেন সন্দিহান। তাই এই তিন নভোচারীকে ২৪ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত মহাকাশ কেন্দ্রের বিশেষ সুরক্ষিত কক্ষে কাটাতে হয়েছিল। সেখানে তাদের উপর বিস্তর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হয়।

মিশন ব্যর্থতার জন্য আলাদা বক্তৃতা প্রস্তুত ছিল নিক্সনের
যেহেতু এর আগে কখনো চাঁদের মাটিতে মানুষের পা পড়েনি, তাই এই মিশনের সফলতা সম্পর্কে কেউ নিশ্চিত ছিলেন না। এমনকি এটাও নিশ্চিত করে বলার উপায় ছিল না যে, চাঁদ থেকে পৃথিবীর উদ্দেশ্যে টেক অফ করা সম্ভব হবে। সুতরাং সব সম্ভাবনা মাথায় রেখে,
অ্যাপোলো-১১’র চন্দ্রাভিযান ব্যর্থ হলে জাতীর উদ্দেশ্যে কি বলতে হবে তা আগে থেকেই প্রস্তুত করে রেখেছিলেন আমেরিকার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট নিক্সন। সূত্র হিস্ট্রিডটকম

 

টাইমস/এনজে/জিএস

আইনের লঙ্ঘন করে শোভন-রাব্বানীকে সরিয়েছে আ. লীগ: রিজভী

আইনের লঙ্ঘন করে শোভন-রাব্বানীকে সরিয়েছে আ. লীগ: রিজভী

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পদচ্যুতিকে আইনের লঙ্ঘন উল্লেখ করে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে রেজওয়ানুল হক চৌধুরী ও গোলাম রাব্বানীকে পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন। ছাত্রলীগ আগে আওয়ামী লীগের সহযোগী থাকলেও নতুন আরপিও বা গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের মর্যাদা দেয়া হয়েছে। আরপিও অনুযায়ী ছাত্রলীগ স্বাধীন ও স্বতন্ত্র সংগঠন। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রও সে কথাই বলে। নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া আওয়ামী লীগের সংশোধিত চূড়ান্ত গঠনতন্ত্রের ২৫ (১) ধারা অনুযায়ী ছাত্রলীগ তাদের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনমাত্র।

গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত খালি পেটে নয়

গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত খালি পেটে নয়

খালি পেটে ভুল করেও কোনো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত নয়। কারণ, খালি পেটে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিলেই বড় কোনো ভুল হতে পারে। এমনই দাবি করছেন ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি অফ ডান্ডি’র গবেষকরা। যা ‘সাইকোনোমিক বুলেটিন অ্যান্ড রিভিউ’ জার্নালে প্রকাশিত হয়।

শুধু রূপে নয়, স্বাস্থ্য সুরক্ষায়ও রয়েছে অ্যালোভেরার বহুমুখী ব্যবহার

শুধু রূপে নয়, স্বাস্থ্য সুরক্ষায়ও রয়েছে অ্যালোভেরার বহুমুখী ব্যবহার

প্রাকৃতিক গুণসম্পন্ন ভেষজ উদ্ভিদ অ্যালোভেরা, বাংলায় যাকে বলে ঘৃতকুমারী। ঔষধি গুণাগুণের জন্য কণ্টকধারী সবুজ এই ছোট উদ্ভিদের বেশ কদর রয়েছে। অ্যালোভেরা একদিকে যেমন বাড়ায় বাইরের সৌন্দর্য, অন্যদিকে ভেষজ এই উদ্ভিদের রয়েছে নানা পুষ্টিগুণও।

উক্তি প্রতিদিন

“যে অন্নহীন, তাহার আবার লজ্জা কি ?”

“যে অন্নহীন, তাহার আবার লজ্জা কি ?”

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ১৮৩৮ সালের ২৬ জুন চব্বিশ পরগণার অন্তর্গত কাঁঠালপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন বাঙালি সাহিত্যিক ও সাংবাদিক। বাংলা গদ্য ও উপন্যাসের বিকাশে তাঁর অবদানের জন্যে তিনি বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন।

স্বাস্থ্য

ভাত খাবার পর যা করতে বারণ

ভাত খাবার পর যা করতে বারণ

বাঙালি সারাদিনে একবার ভাত খাবে না, সেটা হতেই পারে না। গরম হলে তো কথাই নেই, পান্তা হলেও চলবে। বেঁচে থাকার জন্য আমরা কেউ দুই বেলা আবার কেউবা তিন বেলাও ভাত খেয়ে থাকি। ভাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট, যা আমাদের শরীরে শক্তি যোগায়।

জাতীয়

রাজহংসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

রাজহংসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার বিকালে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (এইচএসআইএ)’র ভিভিআইপি টারমাকে ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এয়ারক্রাফট ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করেন।

রাজনীতি

অভিযোগ প্রমাণিত হলে জাবি ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: কাদের

অভিযোগ প্রমাণিত হলে জাবি ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছাত্রলীগ নেতাদের চাঁদা দেয়ার অভিযোগ যদি সত্য প্রমাণিত হয় এবং অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) ফারজানা ইসলাম দোষী প্রমাণ হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয়

হাতিরপুলে ৫ কোটি টাকার নকল ওষুধ জব্দ,  দুই জনের কারাদণ্ড

হাতিরপুলে ৫ কোটি টাকার নকল ওষুধ জব্দ, দুই জনের কারাদণ্ড

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নামীদামি কোম্পানির ওষুধের মোড়ক ও স্টিকার নকল করে বিভিন্ন ফার্মেসিতে জাল ওষুধ বিক্রি করে আসছিল রাজধানীর হাতিরপুলের একটি প্রতিষ্ঠান। এমন অভিযোগ পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে ‘সেলভন ট্রেডিং’ নামে ওই প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালায় র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বিনোদন

"জ্যাম" শিডিউল ফাঁসালেন ঋতুপর্ণা

"জ্যাম" শিডিউল ফাঁসালেন ঋতুপর্ণা

টালিউডের আবেদনময়ী অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। কথা ছিল, গতকাল (সোমবার) থেকে বাংলাদেশে কাজ শুরু করবেন তিনি। কিছুদিন আগে নায়িকা চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন বাংলাদেশি ছবি ‘জ্যাম’-এ।