• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬

৩১ মার্চ থেকে ঢাকায় জাতীয় শিল্প মেলা

৩১ মার্চ থেকে ঢাকায় জাতীয় শিল্প মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক৩০ মার্চ ২০১৯, ০৭:৩০পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

দেশে প্রথমবারের মত শুরু হচ্ছে জাতীয় শিল্প মেলা। দেশীয় শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য এবং সেবা সামগ্রী স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে বিক্রয় সম্প্রসারণের লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় আয়োজন করছে এ মেলা।

রোববার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সকাল ১০টায় মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সাত দিনব্যাপী এ মেলা চলবে ৩১ মার্চ  থেকে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলার দর্শনার্থীরা মেলায় প্রবেশ করতে পারবে। মেলায় কোনো প্রবেশ মূল্য রাখা হয়নি।

শনিবার মতিঝিলে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ‘প্রথম জাতীয় শিল্প মেলা ২০১৯’ উপলক্ষে আয়োজিত এক প্রেস বিফিংয়ে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এসব তথ্য জানান।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশে প্রথম বারের মত আয়োজিত হচ্ছে ‘জাতীয় শিল্প মেলা’। মেলায় পণ্য বিক্রির ব্যবস্থা থাকলেও এ মেলার মূল উদ্দেশ্য- দেশে বিনিয়োগ বাড়ানো।

বিনিয়োগকারীদের মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা সম্পত্তিসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি

জানা গেছে, মেলায় সারাদেশ থেকে বৃহৎ, মাঝারি, ক্ষুদ্র, কুটির, হস্ত ও কারু এবং হাইটেকসহ মোট ৩০০টি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে। তারা ৩০০টি স্টলে নিজেদের উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শন করবেন। উদ্যোক্তাদের মধ্যে ১১৬ জন নারী উদ্যোক্তা এবং ১০৭ জন পুরুষ উদ্যোক্তা রয়েছেন।

তবে মেলায় বিদেশি পণ্যর প্রদর্শনী বা বিক্রয় নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এ ছাড়া মেলায় বঙ্গবন্ধু কর্নার এবং শেখ হাসিনা কর্নার স্থাপন করা হবে। যেখানে ১৯৫৬ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের শিল্প, বাণিজ্য, শ্রম, দুর্নীতি দমন ও গ্রাম সহায়তা মন্ত্রী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর শপথ অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে তার সুদীর্ঘ সংগ্রামী জীবন ও কার্যক্রম সংক্ষেপে তুলে ধরা হবে।

একই সঙ্গে বর্তমানে শিল্প খাতের উন্নয়নে সরকার বাস্তবায়িত কর্মসূচি ও উন্নয়ন কার্যক্রম প্রদর্শন করা হবে। বিশেষ করে গত দশ বছরে শিল্পখাতে অর্জিত সাফল্য তুলে ধরা হবে।

 

টাইমস/এমএএইচ/এসআই

করোনা: ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১১২, একজনের মৃত্যু

করোনা: ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১১২, একজনের মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও

কোয়ারেন্টাইনে না.গঞ্জের ডিসি এসপি ও সিভিল সার্জন

কোয়ারেন্টাইনে না.গঞ্জের ডিসি এসপি ও সিভিল সার্জন

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে ঢাকার পর নারায়ণগঞ্জেই সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত

করোনায় বেসামাল সৌদি রাজপরিবার : আক্রান্ত ১৫০

করোনায় বেসামাল সৌদি রাজপরিবার : আক্রান্ত ১৫০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের হানা যেন থামছে না। হর হামেশাই মৃত্যুর মিছিলে

জাতীয়

করোনায় দাদির মৃত্যু: কুমিল্লায় দুই শিশুও আক্রান্ত

করোনায় দাদির মৃত্যু: কুমিল্লায় দুই শিশুও আক্রান্ত

করোনায় ঢাকায় দাদির মৃত্যুর পর কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় এসে দুই শিশুও করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তাদের একজনের বয়স সাত বছর ও অন্যজনের বয়স পাঁচ।

স্বাস্থ্য

হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য রক্ষায় অলিভ ওয়েল

হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য রক্ষায় অলিভ ওয়েল

প্রতিদিনের খাদ্যাভ্যাসে অলিভ ওয়েল কিংবা ভেজিটেবল ওয়েল যুক্ত হলে তা সুস্থ রাখবে আপনার হৃদপিণ্ডটিকে। নতুন একটি গবেষণায় পাওয়া তথ্য অনুযায়ী প্রতিদিন গড়ে এক চামচ অলিভ ওয়েল খেলে তা হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে সহায়তা করবে। গবেষকরা মার্চের প্রথম সপ্তাহে আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত লাইফস্টাইল অ্যান্ড কার্ডিওমেটাবোলিক হেলথ সেশনে তাদের গবেষণালব্ধ এসব তথ্য তুলে ধরেন। ১৯৯০ সাল থেকে দীর্ঘ সময় ধরে গবেষকরা এসব বিষয়ে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেছেন।

জাতীয়

রংপুরে ৯০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ, আটক ৩

রংপুরে ৯০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ, আটক ৩

রংপুরের পীরগঞ্জে ৯০ বস্তা সরকারি চালসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার মধ্যরাতে অভিযান চালিয়ে গুর্জিপাড়া কলেজের সামনে থেকে চালসহ তিনজনকে আটক করা হয়। পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেষ চন্দ্র রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উক্তি প্রতিদিন

“খাঁটি মানুষ অন্যকে ঘৃণা করে না”

“খাঁটি মানুষ অন্যকে ঘৃণা করে না”

নেপোলিয়ান বোনাপোর্ট, ফ্রান্সের বিখ্যাত সেনাপতি ও সম্রাট। ইউরোপীয় ইতিহাসের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের একজন। তাকে বলা হয় ‌‘ফরাসি বিপ্লবের শিশু’। নেপোলিয়ান ১৭৬৯ সালের ১৫ আগস্ট ইতালির কর্সিকা দ্বীপে জন্মগ্রহণ করেন। ১৭৯৯ সালে সামরিক ক্ষমতা বলে ফ্রান্সের ‘প্রথম কনস্যুল’ পদে অধিষ্ঠিত হন। পাঁচ বছর পরই ১৮০৪ সালে ফ্রান্সের সিনেট নেপোলিয়ানকে ‘ফ্রান্সের সম্রাট’ ঘোষণা করে।

স্বাস্থ্য

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে যাদের ভেন্টিলেটর প্রয়োজন

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে যাদের ভেন্টিলেটর প্রয়োজন

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। প্রতিদিন মানুষের মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। রাশ টানা যাচ্ছে না এ মহামারির। সাধারণত শুষ্ক কাশি ও জ্বরের মাধ্যমেই শুরু হয় করোনাভাইরাসের উপসর্গ, পরে শ্বাস প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয়। এই ভাইরাস জনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তদের ভেন্টিলেটরের (কৃত্রিমভাবে স্বাস্থ্য প্রশ্বাস নেয়ার যন্ত্র) মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়ার কথা বলছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের মতে, যেসব রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা হয়, গলাব্যথা, নিউনোমিয়ার প্রকোপ বেড়ে যায়, রোগীর জীবন যখন সংকটাপন্ন হয়ে পড়ে, তখন তার জন্য ভেন্টিলেটর ব্যবহার করা জরুরি।

স্বাস্থ্য

চোখের মাধ্যমে যেভাবে করোনা আক্রমণ করে

চোখের মাধ্যমে যেভাবে করোনা আক্রমণ করে

করোনাভাইরাসের কারণে এখন সারা বিশ্বে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এই ভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগের গতি প্রকৃতি নিয়েও চলছে নানা গবেষণা। সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির ড্রপলেট বায়ুতে ঘুরে বেড়ায়। এই ড্রপলেট রোগীর কাছাকাছি থাকা সুস্থ মানুষের নাক, মুখ ও চোখের মাধ্যমে তার শরীরে প্রবেশ করে।