• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬

ভক্তদের কাছে ফিরছেন মিলা  

ভক্তদের কাছে ফিরছেন মিলা   

বিনোদন প্রতিবেদক০৬ মে ২০১৯, ০৬:১৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বাংলা গানের পপ তারকা মিলা। বেশ কয়েক বছর ধরে নানান ঝামেলায় জর্জরিত এই শিল্পী। সাবেক স্বামীর ও শ্বশুরবাড়ির লোকদের বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতায় অনেকটা ছিটকে পড়েছেন নিজ কর্ম থেকে।

এদিকে, সব ধরনের কষ্ট সহ্য করে গত কয়েকদিন আগে সংবাদ সম্মেলনও করেন গায়িকা মিলা। সেখানে তার সাবেক স্বামীর অবৈধ সম্পর্ক ও শ্বশুরবাড়ির লোকদের নির্যাতন প্রসঙ্গে বিস্তারিত জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়াও ওই সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপও কামনা করেন পপ তারকা মিলা। সে সঙ্গে বিচার পাওয়ার জন্য শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাবেন বলেও ঘোষণা দেন এই গায়িকা।

এরপর থেকে অনেকটা ঘরের মধ্যে সময় কাটাচ্ছেন মিলা। তবে এইসব ঝামেলায় কাটাবেন নাকি কাজেও ফিরবেন? এমন প্রশ্নের জবাবে মিলা দিয়েছেন নতুন একটি তথ্য। রোববার রাতে বাংলাদেশ টাইমসের সাথে আলাপকালে মিলা জানান, শিগগির নতুন গানে মনোযোগী হচ্ছেন তিনি। যা কিছুদিন পরই ইউটিউবে দর্শকদের জন্য অবমুক্ত করা হবে।

মিলার ভাষ্য, দর্শকদের কাছ থেকে অনেকদিন দূরে ছিলাম, তাই নতুন কোনো কাজ করতে পারিনি। তবে তাদের ভালোবাসায় আবারো ফিরে আসছি। শিগগির আমার ভক্তরা নতুন গানে আমাকে পাবেন।

মিলা এই যাবৎ চারটি অ্যালবামের কাজ করেছেন। যার প্রত্যেকটি ছিল সুপারহিট। এরপর শেষ অ্যালবামের সাত বছর পর ২০১৫ সালে এসে তিনি প্রকাশ করেন ‘নাচো’ শিরোনামের একটি গান। সেটিও ভক্তরা দারুণভাবে লুফে নেন। এরপর থেকে আর দেখা যায়নি তাকে, প্রকাশ পায়নি নতুন কোনো গানও।

তবে এখন থেকে আর হারাবেন না বলেও মুঠোফোনে জানান মিলা। বলেন, অনেক নির্যাতন নিপীড়ন সহ্য করে এই পর্যন্ত এসেছি, আর না! তবে এখন সব কিছুর উর্ধ্বে আমার ক্যারিয়ার। তাই এটা নিয়ে বাকি পথ পাড়ি দিতে চাই।

 

টাইমস/জেকে/জেডটি

করোনা: ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১১২, একজনের মৃত্যু

করোনা: ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১১২, একজনের মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও

প্রস্তুত ফাঁসির মঞ্চ, যেকোনো সময় কার্যকর মাজেদের ফাঁসি

প্রস্তুত ফাঁসির মঞ্চ, যেকোনো সময় কার্যকর মাজেদের ফাঁসি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা মামলার ফাঁসির

কমলো ব্যাংকের লেনদেন সময়

কমলো ব্যাংকের লেনদেন সময়

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান সাধারণ ছুটির সময় দেশের তফসিলি

জাতীয়

চট্টগ্রামে ব্যাংক এশিয়ার শাখা লকডাউন: কোয়ারেন্টাইনে ১৫ জন

চট্টগ্রামে ব্যাংক এশিয়ার শাখা লকডাউন: কোয়ারেন্টাইনে ১৫ জন

চট্টগ্রাম নগরের হালিশহরে শনাক্ত হওয়া এক করোনা রোগী যাতায়াত করায় ব্যাংক এশিয়ার আন্দরকিল্লা শাখা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। ওই শাখার ১৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

জাতীয়

করোনায় আক্রান্ত হাতিয়ার এক চিকিৎসক

করোনায় আক্রান্ত হাতিয়ার এক চিকিৎসক

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক চিকিৎসক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: নাজিম উদ্দিন।

আন্তর্জাতিক

করোনায় বেসামাল সৌদি রাজপরিবার : আক্রান্ত ১৫০

করোনায় বেসামাল সৌদি রাজপরিবার : আক্রান্ত ১৫০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের হানা যেন থামছে না। হর হামেশাই মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। এই ভাইরাসের কারণে দিশেহারা বিশ্বের বাঘা বাঘা রাষ্ট্র নায়করা। অন্যান্য দেশের মতো করোনার বিষাক্ত ছোবল পড়েছে সৌদি আরবেও। এর মধ্যেই দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। করোনার এই থাবায় বেসামাল হয়ে পড়েছে সৌদি রাজপরিবার। ওই পরিবারের দেড়শ সদস্যের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। পারিবারিক সূত্রের বরাতে এ খবর দিয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস।

জাতীয়

নারায়ণগঞ্জের ডিসির করোনা শনাক্ত হয়নি

নারায়ণগঞ্জের ডিসির করোনা শনাক্ত হয়নি

নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিনের করোনাভাইরাস আক্রান্ত হননি। করোনা সন্দেহে তার নমুনা পরীক্ষার পর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

জাতীয়

করোনায় দাদির মৃত্যু: কুমিল্লায় দুই শিশুও আক্রান্ত

করোনায় দাদির মৃত্যু: কুমিল্লায় দুই শিশুও আক্রান্ত

করোনায় ঢাকায় দাদির মৃত্যুর পর কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় এসে দুই শিশুও করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তাদের একজনের বয়স সাত বছর ও অন্যজনের বয়স পাঁচ।

স্বাস্থ্য

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে যাদের ভেন্টিলেটর প্রয়োজন

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে যাদের ভেন্টিলেটর প্রয়োজন

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। প্রতিদিন মানুষের মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। রাশ টানা যাচ্ছে না এ মহামারির। সাধারণত শুষ্ক কাশি ও জ্বরের মাধ্যমেই শুরু হয় করোনাভাইরাসের উপসর্গ, পরে শ্বাস প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয়। এই ভাইরাস জনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তদের ভেন্টিলেটরের (কৃত্রিমভাবে স্বাস্থ্য প্রশ্বাস নেয়ার যন্ত্র) মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়ার কথা বলছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের মতে, যেসব রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা হয়, গলাব্যথা, নিউনোমিয়ার প্রকোপ বেড়ে যায়, রোগীর জীবন যখন সংকটাপন্ন হয়ে পড়ে, তখন তার জন্য ভেন্টিলেটর ব্যবহার করা জরুরি।