• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬

ডিসির কাছে ঘুষ দাবি, বরখাস্ত হলেন ভূমি কর্মকর্তা

ডিসির কাছে ঘুষ দাবি, বরখাস্ত হলেন ভূমি কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৩২পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

জমির নামজারি করতে অতিরিক্ত টাকা দাবি করায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের এক কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল।

বৃহস্পতিবার বিকালে মোকলেস আলী নামে ওই ভূমি কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়।

জানা যায়, ফাহাদ হোসেন নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের জমির নামজারি করাতে কাগজপত্র নিয়ে ভূমি অফিসে যান। অফিসে গেলেই কাগজপত্র দেখে পাঁচ হাজার টাকা ঘুষ চেয়ে বসেন ভূমি কর্মকর্তা মোকলেস আলী।

ফাহাদ হোসেন বলেন, অফিসে বাইরের সাইনবোর্ডে নামজারির খরচ লেখা ছিল ১ হাজার ১৭০ টাকা। কিন্তু ভূমি কর্মকর্তা মোকলেস আলী আমার কাছে পাঁচ হাজার টাকা দাবি করেন। বিষয়টি আমি জেলা প্রশাসককে জানাই।

তিনি আরও বলেন, জেলা প্রশাসক পরিচয় গোপন করে ওই কর্মকর্তার সঙ্গে ঘুষের টাকা কম দেয়ার ব্যাপারে কথা বলেন। চার হাজার টাকায় কাজটি করে দেয়া যাবে কিনা এমন অনুরোধ করা হয়। মোকলেস আলী জানিয়ে দেন, এক টাকাও কম হবে না। টাকা নিয়ে আসছি বলে ফোন কেটে দেন ডিসি। এরপর ডিসি ভূমি অফিসে ভ্রাম্যমাণ আদালতের টিম পাঠান।

ডিসির কাছে ঘুষ দাবির ঘটনায় জড়িত ভূমি কর্মকর্তা মোকলেস আলীকে আটক করা হয়। সেই সঙ্গে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় মোকলেস আলীকে বরখাস্ত করা হয়।

দুর্নীতির অভিযোগে ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মোকলেস আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে তাকে বরখাস্ত করা হয়। ডিসির কাছে ঘুষ চাওয়ার বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে বলে জানান সাতক্ষীরা সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসাদুজ্জামান।

 

টাইমস/এসআই

‘আমি সবার কাছে করজোড়ে ক্ষমা চাচ্ছি’: রাঙ্গা

‘আমি সবার কাছে করজোড়ে ক্ষমা চাচ্ছি’: রাঙ্গা

বুধবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, আমি সবার কাছে

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুয়া প্রকল্পে চাল আত্মসাত, দুদকের হাতে ধরা ৬ কর্মকর্তা

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুয়া প্রকল্পে চাল আত্মসাত, দুদকের হাতে ধরা ৬ কর্মকর্তা

আটককৃতরা পরস্পর যোগসাজশ ও জালিয়াতিমূলকভাবে কাগজপত্র তৈরি করে অসৎ উদ্দেশে

দুই হাজারে টেবিল কিনে ২৫ হাজার টাকার বিল নেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা

দুই হাজারে টেবিল কিনে ২৫ হাজার টাকার বিল নেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা

এ বিষয়ে ডা. খায়রুল ইসলাম বলেন, আমি কর্মস্থলে একেবারেই নতুন,

জাতীয়

আবরার হত্যাকাণ্ড: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, চার্জশীট ‘নির্ভুল’

আবরার হত্যাকাণ্ড: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, চার্জশীট ‘নির্ভুল’

আবরার হত্যা মামলার পলাতক আসামিদের গ্রেফতার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‌'পলাতকদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে। আমাদের কাছে তথ্য থাকলে তাদের ধরে ফেলতাম। তবে বাইরে বের হওয়ার কোন সুযোগ নেই। ঘরের কোথাও আশ্রয়ে প্রশ্রয়ে হয়তো আছে, আমরা ধরে ফেলব'।

রাজনীতি

জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে চান খালেদা জিয়া

জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে চান খালেদা জিয়া

শরীরে অসম্ভব ব্যথা অনুভব করছে। উঠে দাঁড়াতে পারছে না, সোজা হয়ে বসতে পারছে না এই অবস্থা তার। সে নিজে তুলে খেতে পারছেন না, নিজে চলাফেরা করতে পারছেন না। তিনি বলেন, চিকিৎসকরা নিয়মিত আসছেন। কিন্তু তার চিকিৎসার কোনো উন্নতি হয়নি। তার শরীরের অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে। আমরা তার শারিরীক অবস্থা নিয়ে শঙ্কিত। তার উন্নত চিকিৎসা দরকার।

জাতীয়

‘আবরার হত্যাকাণ্ড: উচ্ছৃঙ্খলতার চরম বহি:প্রকাশ’

‘আবরার হত্যাকাণ্ড: উচ্ছৃঙ্খলতার চরম বহি:প্রকাশ’

তিনি জানান, বুয়েটের ওই হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে সরাসরি মারপিটে অংশ নিয়েছিল ১১ জন। বাকী ১৪ জন ঘটনাস্থলে না থেকেও ভূমিকা রেখেছে। তারা হত্যায় মদদ দিয়েছে, নির্দেশনা দিয়েছে এবং পরিকল্পনা করেছে। ভিডিও ফুটেজ, প্রযুক্তিগত সহায়তা, হলের স্টাফ, নাইটগার্ড ও অন্যান্য শিক্ষার্থীদের জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

আইন আদালত

আবরার হত্যার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

আবরার হত্যার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী বলেন, যে কারণেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটানো হোক না কেন এটা হত্যাকাণ্ড। এরকম হত্যাকাণ্ড ঘটানো উচিত নয়। সমাজ এটাকে মেনে নেবে না, আমরা এটাকে মেনে নেবো না। এটার উচিত বিচার হতে হবে, শুধু উচিত বিচার এ কারণে না যে একটা হত্যাকাণ্ড হয়ে গেছে। এটার মতো আর কোনোদিন যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেটা আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।

আইন আদালত

বিপুল সম্পদের মালিক উপজেলা আ.লীগ নেতা, দুদকে অভিযোগ

বিপুল সম্পদের মালিক উপজেলা আ.লীগ নেতা, দুদকে অভিযোগ

তিনি অবৈধ পথে উপার্জিত টাকায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার বাঁধনপাড়া এলাকায় বহুতল বিশিষ্ট ভবনের মালিক হয়েছেন। যার বাজার মূল্য ৮ কোটি টাকা। অমল কর কানাডাতেও বাড়ি ক্রয় করেছেন। তিনি তার অবৈধ অর্থ কানাডাতে পাচার করেছেন। তার স্ত্রী ও সন্তান বর্তমানে কানাডাতে বসবাস করছেন। গেল অক্টোবর মাসে অমল কর কানাডায় তার পরিবারের সঙ্গে ছিলেন।

বিনোদন

চুমুর বিষয়ে অনড় তামান্না ভাটিয়া!

চুমুর বিষয়ে অনড় তামান্না ভাটিয়া!

নায়িকা তামান্না ভাটিয়া। ২০০৫ সালে ‘চাঁদ সা রোশন চেহরা’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে তার অভিষেক হয়। ওই ছবির পর ১৪ বছর কেটে গেছে। এখনো অনস্ক্রিনে কাউকে চুম্বন দৃশ্যে দেখা যায়নি এই অভিনেত্রীকে।