• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৭ জুন ২০২০, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যা: জয়পুরহাটে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যা: জয়পুরহাটে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি২২ অক্টোবর ২০১৯, ০২:৪৯পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার দেওড়া গ্রামে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে সাতজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে জয়পুরহাট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ বি এম মাহমুদুল হাসান এ রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট ফিরোজা চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন আক্কেলপুর উপজেলার মারমা পূর্বপাড়া গ্রামের সোহেল তালুকদার (২৭), দেওড়া সোনারপাড়া গ্রামের আফজাল হোসেন (৫০), দেওড়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের (গুচ্ছগ্রাম) রাহিম ওরফে রাহিন (২৪), দেওড়া সাখিদারপাড়ার ফেরদৌস আলী সাখিদার (৪৪), দেওড়া সোনারপাড়া গ্রামের মজিবর রহমান (৪৪), জগতি গ্রামের রুহুল আমিন ওরফে রুহুল (৩৭) ও আশ্রয়ণ প্রকল্পের (গুচ্ছগ্রাম) আজিজার রহমান (৫২)।

মৃত্যদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি সোহেল তালুকদার ও ফেরদৌস আলীকে পাঁচ লাখ টাকা করে এবং মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বাকি পাঁচ আসামির প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে।

 

মামলার রায় থেকে জানা গেছে, আরতি রানী মহন্ত দেওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দা ছিলেন। তার স্বামী উজ্জল মহন্ত ও বড় ছেলে উৎপল মহন্ত চট্টগ্রামে কাজ করেন। ২০১৬ সালের ৮ অক্টোবর রাত আনুমানিক আটটার সময় আরতি রানী মহন্ত ও তার মেয়ে অর্চনা রানী মহন্ত খাওয়াদাওয়া করে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। ওই দিন রাত নয়টার দিকে আরতি রানী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে যান। এ সময় আরতি রানীকে কয়েকজন লোক জোর করে তুলে নিয়ে যান। রাত ১০টার দিকে বাড়ির অদূরে পোড়া পুকুরপাড়ের ধানখেতে আরতি রানীকে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়। হাসপাতালে নেয়ার পথে আরতি রানী মারা যান।

এ ঘটনায় আরতি রানীর স্বামী উজ্জল মহন্ত বাদী হয়ে ১০ অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে আক্কেলপুর থানায় ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের (সংশোধনী ২০০৩)–এর ৯ (৩) ধারায় মামলা করেন। এর মধ্যে তিনজন আসামি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। ঘটনার তিন বছর পর আজ এই রায় ঘোষণা করা হয়।

 

টাইমস/এসআই

করোনার ‘হটস্পট’ ভিত্তিক লকডাউন আসছে

করোনার ‘হটস্পট’ ভিত্তিক লকডাউন আসছে

এবার নতুন করে করোনা সংক্রমণের ‘হটস্পট’ বা এলাকা ভিত্তিক লকডাউনের

আয়রন সমৃদ্ধ সাতটি খাবার সম্পর্কে জেনে নিন

আয়রন সমৃদ্ধ সাতটি খাবার সম্পর্কে জেনে নিন

আমাদের দেহ সুস্থ রাখতে এবং দেহের বিভিন্ন দরকারি জৈবিক কার্য

উচ্চ রক্তচাপের রোগীর করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি

উচ্চ রক্তচাপের রোগীর করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি

উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যায় ভোগা করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি বেশি। সম্প্রতি

জাতীয়

বিয়ের ৬ মাসেই না ফেরার দেশে স্বামী, করোনায় আক্রান্ত স্ত্রীও!

বিয়ের ৬ মাসেই না ফেরার দেশে স্বামী, করোনায় আক্রান্ত স্ত্রীও!

এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিয়ের ছয় মাসের মাথায় স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন স্ত্রীও। দীর্ঘ ২৬ দিন

জাতীয়

এসএসসিতে ১৩শ’তে ১১৯২ পেয়ে সেরা তালিকায় ইলিয়াস

এসএসসিতে ১৩শ’তে ১১৯২ পেয়ে সেরা তালিকায় ইলিয়াস

এসএসসি পরীক্ষায় চট্টগ্রাম বোর্ডে ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে মেধাতালিকায় সেরা তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন মোহাম্মদ ইলিয়াস। তিনি এসএসসিতে

চাকরি

বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেল করা সেই ছেলেটি পাঠাওয়ের সফল টিম লিডার!

বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেল করা সেই ছেলেটি পাঠাওয়ের সফল টিম লিডার!

শুধুমাত্র একাডেমিক পড়াশোনা দিয়ে কিছু হয়না সেটি আরেকবার প্রমাণ করলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সজল মিয়া। সিএসইর

জাতীয়

মানুষের পাশে থেকে করোনায় আক্রান্ত বিসিএস ক্যাডার!

মানুষের পাশে থেকে করোনায় আক্রান্ত বিসিএস ক্যাডার!

মামুনুর রশীদ ওরফে আল মামুন। এই বিসিএস ক্যাডার ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব পালন

জাতীয়

করোনায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত বাড়ছেই

করোনায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত বাড়ছেই

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাড়াল ৮৪৬ জন।

স্বাস্থ্য

কিছু মানুষকে আক্রান্ত করার ক্ষমতা নেই করোনার

কিছু মানুষকে আক্রান্ত করার ক্ষমতা নেই করোনার

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। একই সঙ্গে প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যারও। তবে এ মহামারীর মধ্যেও কিছু মানুষ কখনও করোনায় আক্রান্ত হবেন না। সম্প্রতি সেল জার্নালে প্রকাশিত এক নতুন গবেষণায় এমন দাবি করা হয়েছে। গবেষণায় বলা হয়, সব মানুষের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটানোর সক্ষমতা নেই। কিছু মানুষের শরীরে এমন ধরনের ‘টি সেল’ (এর টিকা নিউজের শেষে দেয়া আছে) রয়েছে, যার কারণে তারা কখনও এই ভাইরাসে আক্রান্ত হবেন না।