• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কি হচ্ছে তাবলিগে?

কি হচ্ছে তাবলিগে?

খলিলুর রহমান স্টালিন, জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক০৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৭:৩৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

তাবলিগ জামাতের মধ্যে সৃষ্ট দ্বন্দ্ব দিন দিন বেড়েই চলছে। কবে এর সমাধান হবে এমন কোনো তথ্যও মিলছে না কারো কাছে। তাই সারা দেশের তাবলিগ সদস্যদের মধ্যে ভয়, আতঙ্ক ও হতাশা দেখা দিয়েছে। তাদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সমাধান নিয়ে হাজারো প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে।

কি হচ্ছে তাবলিগ জামাতে?

এই প্রশ্ন তাবলিগের প্রায় ৯০ ভাগ ভক্ত, সমর্থক ও সদস্যদের। মঙ্গলবার তাবলিগ ভক্ত, সমর্থক ও সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেছে।

জুবায়ের আহমেদ নামের এক তাবলিগ সদস্য জানান, তাবলিগ একটি দীনি প্রতিষ্ঠানের নাম। যেখানে এক মাত্র কাজ আল্লাহকে ভয় করে সহী তরিকায় ইসলামের দাওয়াতী কাজ করা। সেখানে কোনো ধরনের নেতৃত্ব বা পদ পদবীর লোভ থাকার কথা নয়। কিন্তু সম্প্রতি তাবলিগ জামাত দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। প্রথমে নিজেদের মধ্যে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব। এক পর্যায়ে ওই দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে ছড়িয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে বিষয়টি আংশিক সমাধান হলেও বর্তমানে ফের দু’পক্ষ দ্বন্দ্বে লিপ্ত হয়েছে। তাই সাধারণ সদস্যদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে। আবার কারো কারো মনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। তবে এর সমাধান কিভাবে, কবে হবে তা নিয়ে কেউ কিছু বলছে না বলে জানান জুবায়ের আহমেদ।

আব্দুর রহমান নামের আরেক সদস্য ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, তাবলিগের মধ্যে এমন দ্বন্দ্ব দেখা দিবে তা কখনো ভাবি নাই। তবে যা হচ্ছে তা অবশ্যই দুঃখজনক। এ সংকট নিরসের উপায় কবে, কিভাবে হবে সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, আমি অনেক মুরব্বিদের কাছে দ্বন্দ্বের সমাধান সম্পর্কে জানতে চাই। কিন্তু কেউই ওই প্রশ্নের উত্তর দিতে চান না।

মুরব্বিদের মধ্যে যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়েছে সেটার সমাধান কী হবে এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে প্রায়ই কাকরাইল জামে মসজিদ যান পুরান ঢাকার ইব্রাহিম আলী নামের এক তাবলিগ সদস্য। তিনি জানান, তাবলিগের সবাই হতাশ। কেউ এর সমাধান জানেন না। আল্লাহ এর ভালো সমাধান জানেন।

তবে ভক্তদের এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে বাংলাদেশ টাইমসের এই প্রতিবেদকও ব্যর্থ হয়েছেন। উভয় পক্ষের মুরব্বিরা সামাধানের পথ না খুঁজে একে অপরের উপর দোষারূপে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

মঙ্গলবারও রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় একে অপরের বিরুদ্ধে মিছিল-সমাবেশে করতে দেখা গেছে।

তাবলিগ সূত্রে জানা গেছে, আমির নির্ধারণকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষে বিভক্ত হয়ে পড়ে তাবলিগ জামাত। আর ওই দ্বন্দ্বের মূলে রয়েছেন মোহাম্মদ সা'দ কান্দালভি। এক পক্ষ তাকে সারা বিশ্বের আমীর নির্বাচিত করেছেন। অপর পক্ষ তার নেতৃত্ব মানতে নারাজ। এই দ্বন্দ্বের রেশ কাটতে না কাটতেই ২০১৭ সালে টঙ্গিতে বিশ্ব ইজতেমা শুরু হয়ে যায়। ওই সময় মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্দালভি টঙ্গি ইজতেমায় অংশ নিতে ঢাকায় আসেন।

কিন্তু অপর পক্ষের বাধায় তিনি টঙ্গিতে না গিয়ে ভারতে ফেরত যেতে বাধ্য হয়েছিলেন। পরবর্তীতে প্রায় কয়েক মাস প্রকাশ্যে ওই দ্বন্দ্ব দেখা না গেলেও এবার ইজতেমার প্রস্তুতি নেয়াকে কন্দ্রে করে উভয় পক্ষের মধ্যে প্রকাশ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়।

সর্বশেষ ১ ডিসেম্বর তাবলিগের মাওলানা সাদ আহমাদ কান্ধলভী ও মাওলানা জোবায়ের আহমেদ সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষে ইসমাইল মন্ডল (৭০) নামের একজন নিহত হন। তার বাড়ি মুন্সীগঞ্জের মিলকিপাড়া গ্রামে। এছাড়াও আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের শতাধিক মানুষ।

পরবর্তীতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান মিয়া কামলা উভয় পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন এবং নির্বাচনের আগে টঙ্গি ময়দানে কেউ সমাবেশ করতে পারবেন না বলে ঘোষণা দেন। এ ঘোষণার পর পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়। তবে জোবায়ের পক্ষের লোকজন সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন। এছাড়া সোমবার প্রথমবারের মত সাদ অনুসারীরা সংবাদ সম্মেলন করে তাদের বক্তব্য উপস্থাপর করেন।  

সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষ একে অপরের বিপক্ষে মামলাও দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সাদ অনুসারী বাংলাদেশের আমীর মাওলানা আশরাফ আলী বলেন, আমরা বিষয়টি সমাধানের পক্ষে। কিন্তু তারা বিষয়টি সমাধান না করে উল্টো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিতে লিপ্ত রয়েছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে মাওলানা জোবায়ের আহমেদ পক্ষের দায়িত্বশীল এক নেতা বাংলাদেশ টাইমসকে বলেন, আমরা বিষয়টি সমাধান করতে চাই। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন সমাধান হচ্ছে না।

 

টাইমস/কেআর/টিএইচ

চট্টগ্রামে এসেছে ১৯৮ টন পেঁয়াজ

চট্টগ্রামে এসেছে ১৯৮ টন পেঁয়াজ

বিদেশ থেকে আমদানি করা ১৯৮ টন পেঁয়াজ চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছে।

পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, চিন্তার কারণ নেই: প্রধানমন্ত্রী

পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, চিন্তার কারণ নেই: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিমানের কার্গোতে করে আমরা পেঁয়াজ আমদানি

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন দায়িত্বে নির্মল-বাবু

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন দায়িত্বে নির্মল-বাবু

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সভাপতি হয়েছেন নির্মল রঞ্জন গুহ, আর সাধারণ

জাতীয়

খেজুরের গুড়ে ভেজাল না দেওয়ার শপথ

খেজুরের গুড়ে ভেজাল না দেওয়ার শপথ

ব্র্যান্ডিং পণ্য ঐতিহ্যবাহী খেজুরের গুড় ও পাটালি উৎপাদনে ভেজাল না দেওয়ার শপথ করেন যশোরের গাছিরা। এই ঐতিহ্যবাহী গুড়-পাটালি এই জেলাকে অন্য জেলার থেকে আলাদাভাবে পরিচিত করেছে। শনিবার দুপুরে জেলার বাঘারপাড়া উপজেলার দরাজ হাট ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এই শপথবাক্য পাঠ করানো হয়। অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘কেনারহাট ডট কম’ এর আয়োজনে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ শপথ বাক্য পড়ান। এতে যশোরের ৬০ জন গাছি অংশ নেন।

রাজনীতি

দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজদের না বলুন: ওবায়দুল কাদের

দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজদের না বলুন: ওবায়দুল কাদের

দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ এবং টেন্ডারবাজদের না বলার জন্য নেতাকর্মীদের আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শনিবার রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ দারিদ্র্য ও ভিক্ষুকমুক্ত দেশে পরিণত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে তিনি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।

জাতীয়

৩ দিন ধরে কর্ণফুলী নদীতে ফেলা হচ্ছে পচা পেঁয়াজ: ক্যাব

৩ দিন ধরে কর্ণফুলী নদীতে ফেলা হচ্ছে পচা পেঁয়াজ: ক্যাব

চট্টগ্রামের পাইকারি বাজারে পচে যাওয়া পেঁয়াজ গত তিন দিন ধরে কর্ণফুলী নদীতে ফেলা দেওয়া হচ্ছে। এমন অভিযোগ করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণবিষয়ক সংগঠন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) চট্টগ্রাম শাখা। ক্যাবের দাবি, মূলত বেশি দামে বিক্রির উদ্দেশে মজুত করতে গিয়ে এসব পেঁয়াজ পচে গেছে।

রাজনীতি

ভারতের সঙ্গে করা চুক্তি নিয়ে সংসদে একদিনও আলোচনা হয়নি: ফখরুল

ভারতের সঙ্গে করা চুক্তি নিয়ে সংসদে একদিনও আলোচনা হয়নি: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন,  আমরা ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলতে তো কখনও বলি না, ভারতের সঙ্গে আমাদের তো বিরোধ নেই। সমস্যাটা হচ্ছে যে, আজকে এমন একটা সরকার, যে আমার সমস্যাগুলো নিয়ে ভারতের সঙ্গে কথা বলতে পারে না। সেই শক্তি তার নেই, সেই বার্গেনিং ক্যাপাবিলিটি তার নেই। কারণ সে তাদের ওপর নির্ভর করে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য। এটা হচ্ছে মূল কথা, এটা বাস্তবতা। তিনি আরও বলেন, তিনি বলেন, ‘এই বিষয়গুলো যদি আমরা উপলব্ধি করতে পারি যে, সরকার যতদিন থাকবে ততই বাংলাদেশের স্বার্থ ক্ষুন্ন হবে, একে একে নষ্ট হবে এবং বাংলাদেশ নিঃস্ব হয়ে যাবে।’

বিনোদন

৩৬ বছর পরও আজও চলচ্চিত্রে নানা শাহ, জানালেন কারণ?

৩৬ বছর পরও আজও চলচ্চিত্রে নানা শাহ, জানালেন কারণ?

দর্শকপ্রিয় অভিনেতা নানা শাহ। অভিনয়ে প্রায় ৩৬ বছর (৩ যুগ) পার করলেন তিনি। এই সময়ে রূপালি পর্দায় বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন নানা শাহ। মূলত একজন খল-অভিনেতা হিসেবেই তিনি অনেক পরিচিত।

বিনোদন

পরিচালক বলেছিলেন নগ্ন হতে, জেনিফারের প্রশ্ন ‘কী দেখতে চান?’

পরিচালক বলেছিলেন নগ্ন হতে, জেনিফারের প্রশ্ন ‘কী দেখতে চান?’

হলিউড থেকে প্রথমে শুরু হয়েছিল ‘মি টু’ আন্দোলন। তারপর সেই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে বলিউডেও। এরপর বলিউডে শুরু হয় একের পর এক অভিযোগ। এতে নামিদামি অনেক প্রযোজক থেকে শুরু করে পরিচালক, এমনকি নায়কই জড়িয়ে পড়ে অভিযুক্তদের তালিকায়। অন্যদিকে হলিউডে এই নিয়ে অনেক তারকা অভিযোগ করলেও চুপ ছিলেন নামকরা তারকারা। যৌন হেনস্তার কথা গণমাধ্যমে প্রকাশ না করলেও সেই অনাখাঙ্খিত অভিজ্ঞতা নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তারা।