• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ফওজিয়ার নিয়োগ নিয়ে হাইকোর্টের রুল

ফওজিয়ার নিয়োগ নিয়ে হাইকোর্টের রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৯পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

ফওজিয়া রেজওয়ানাকে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ দিয়ে জারি করা প্রজ্ঞাপন কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার এ রুল জারি করেন বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানান, ওই প্রজ্ঞাপনে কোনো স্থগিতাদেশ না দেয়ায় অধ্যক্ষ হিসেবে ফওজিয়ার কাজে যোগ দিতে কোনো বাধা নেই।

ফওজিয়া রেজওয়ানের নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুস আলী আকন্দ। মঙ্গলবার শুনানি না হওয়া পর্যন্ত ফওজিয়ার ভিকারুননিসায় যোগদান সম্পন্ন না করতে বলেছিলে হাইকোর্ট।

আদালতে আবেদনের পক্ষে ইউনুছ আলী নিজেই  শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেলের সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাস গুপ্ত।

শুনানিতে মাহবুবে আলম বলেন,  ২০০৯ সালের রেগুলেশনের ৪১(২)(খ)(৪) ধারা অনুযায়ী শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগের ক্ষমতা পরিচালনা পর্ষদের হলেও সেখানে অধ্যক্ষ নিয়োগের বিষয়ে বলা নেই। শুধু শিক্ষক-কর্মচারীর কথা রয়েছে।

ইউনুছ আলীর দাবি, সরকার নিয়ম ভেঙে মাউশির একজন কর্মকর্তাকে ভিকারুননিসায় অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

ঢাকার সবুজবাগ সরকারি মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ হিসাবে দায়িত্ব পালনরত ফওজিয়াকে প্রেষণে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দিয়ে রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে।

গত বছর বেইলি রোডের এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মুখে তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌসসহ তিন শিক্ষককে সরিয়ে দেয়া হয়। এরপর থেকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব চালিয়ে আসছেন কলেজ শাখার সহকারী অধ্যাপক হাসিনা বেগম। এরপর গত এপ্রিলে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া প্রায় চূড়ান্ত হলেও অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় তা বাতিল করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

 

টাইমস/এসআই

 

করোনায় আক্রান্ত ৫০ হাজার ও মৃত্যু ৭০০ ছাড়াল

করোনায় আক্রান্ত ৫০ হাজার ও মৃত্যু ৭০০ ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে একদিনে রেকর্ড

এবার না ফেরার দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র

এবার না ফেরার দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র

এবার না ফেরার দেশে চলে গেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র

ফ্লেক্সিলোড দোকানির সোনালী ব্যাংক অফিসার হয়ে উঠার গল্প

ফ্লেক্সিলোড দোকানির সোনালী ব্যাংক অফিসার হয়ে উঠার গল্প

অভাবের সংসারে থেকেও অদম্য স্পৃহা নিয়ে পড়াশোনা করেছেন। বাবা চাকরি

জাতীয়

এবার করোনায় ‘গরীবের বন্ধু’ সেই বিসিএস ক্যাডারের মৃত্যু

এবার করোনায় ‘গরীবের বন্ধু’ সেই বিসিএস ক্যাডারের মৃত্যু

এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন গরীবের বন্ধু হিসেবে খ্যাত বিসিএস ক্যাডার খাদ্য কর্মকর্তা উৎপল সাহা (উৎপল হাসান)। তিনি

জাতীয়

এসএসসিতে ১৩শ' নম্বরের মধ্যে ১২৭৪ পেয়ে সেরা নাফিস

এসএসসিতে ১৩শ' নম্বরের মধ্যে ১২৭৪ পেয়ে সেরা নাফিস

এসএসসি পরীক্ষায় রাজশাহী বোর্ডে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে প্রথম হয়েছেন নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ। তিনি মোট ১৩০০ নম্বরের পরীক্ষায়

জাতীয়

মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ আবারও বাড়ছে

মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ আবারও বাড়ছে

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আগামী অর্থবছরে দেশের টেলিকম খাত থেকে রাজস্ব বৃদ্ধির পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। অর্থ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের একাধিক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

রাজনীতি

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার: রিজভী

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার: রিজভী

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে রিজভী বলেন, শর্তসাপেক্ষে গণপরিবহন চালুর কথা থাকলেও সরকার সেটি কোনোভাবেই সেটি বাস্তবায়ন করতে পারেনি। গণপরিবহন চালুর প্রথমদিন থেকেই চরম ভাবে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করা হচ্ছে। যা বিভিন্ন গণমাধ্যম মারফত দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছে।

জাতীয়

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রথমবারের মতো এক বৃদ্ধের (৭১) মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তিনি উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা।

স্বাস্থ্য

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

ইন্টারনেটে যেকোনো তথ্য কিংবা ভিডিও জনপ্রিয় হওয়ার পেছনে রহস্যময় কোনো না কোনো কারণ থাকতে পারে, কিন্তু সঠিক তথ্য প্রদানের সাথে এর কোনো যোগসূত্র নেই বলে মনে করছেন গবেষকরা। বিএমজে গ্লোবাল হেলথ কর্তৃক সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, সার্স-কোভ-২ নিয়ে আলোচনা করা সর্বাধিক দেখা প্রতি চারটি ইউটিউব ভিডিওর মধ্যে একটিতে বিভ্রান্তিমূলক বা ভুল তথ্য রয়েছে।