• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬

মশা নিধনে অভূতপূর্ব সাফল্য চীনের

মশা নিধনে অভূতপূর্ব সাফল্য চীনের

স্বাস্থ্য ডেস্ক১৮ জুলাই ২০১৯, ০৬:৩৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মশা নিয়ে যখন বাংলাদেশের মানুষ ভয়ঙ্করভাবে উদ্বিগ্ন তখন মশক নিধনে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে চীন। দেশটির দুটি দ্বীপ প্রায় সম্পূর্ণভাবে আক্রমণকারী মশা মুক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করেছে কর্তৃপক্ষ। চলতি সপ্তাহে প্রকাশিত একটি গবেষণা প্রতিবেদন বলছে, দক্ষিণ চীনের গুয়াংঝু শহরের পাশ্ববর্তী দুটি দ্বীপ থেকে এশিয়ান টাইগার জাতীয় স্ত্রী মশার বংশবৃদ্ধি ৯৪ থেকে ৯৭ ভাগ হ্রাস করা গেছে। এই মশা রোগ সংক্রামণ ও মৃত্যুর হার বাড়ানোর অন্যতম উৎস।

পৃথিবীতে গবেষকরা এবারই যে প্রথম মশা নিধনে এমন সাফল্য দেখালেন তা নয়। এর আগে লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের বিজ্ঞানীরা জিন-ব্যবস্থাপনা করেছিলেন, যাতে মশার বীজ উৎপাদন হতে না পারে। কেননা তারা বুঝতে পারেন যে পুরুষ মশাদের উন্নতি মানেই স্ত্রী মশাদের বংশ বিস্তার।

চীনের ওই গবেষক দলের সদস্য যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান স্টেট ইউনিভার্সিটির প্রফেসর জী জিয়াং দীর্ঘদিন ধরে এই গবেষক দলটির নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। তিনি দক্ষিণ চীনের একটি মশার ফ্যাক্টরিতে পুরুষ মশাদের নিস্ক্রিয় করতে কাজ করেন।

চীনা গবেষণার গবেষকদের মধ্যে একজন, মিশিগান স্টেট ইউনিভার্সিটির প্রফেসর জী জিয়াং, এই গবেষণায় দীর্ঘদিন ধরে অগ্রগামী ছিলেন। দক্ষিণ চীনের একটি মশার কারখানার কাজ চলাকালীন, তিনি পূর্বে নিষ্ক্রিয় মহিলা মশার সাথে মেলামেশা করতে নির্বীজিত পুরুষ মশা ব্যবহার করার চেষ্টা করেছিলেন।

মূলত প্রাণসংহারী রোগ ঠেকাতে দেশটিতে মশা প্রতিরোধে মশার ব্যবহারের যে প্রকল্প নেওয়া হয়েছিলো এটি তারই ধারাবাহিকতা। ২০১৬ সালে নেওয়া ওই প্রকল্পের বিষয়ে এই গবেষক গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, খারাপ মশার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে ওই ফ্যাক্টরীতে ভাল মশা উৎপাদন করা হবে। যার মধ্যে ব্যাক্টেরিয়ার প্রবেশের সাহায্যে স্ত্রী মশার প্রজননে আনা হবে পরিবর্তন। এভাবেই মশাগুলো হবে জীবাণুমুক্ত।  

তিনি আরো বলেন, ইবোলা, জিকা কিংবা এ ধরণের প্রাণঘাতি রোগের প্রকোপ ঠেকাতে জায়গা বিশেষে ব্যাক্টেরিয়া সংক্রামিত মশার ঝাঁক ছাড়া হচ্ছে। এই ভাবে প্রতি সপ্তাহে ৬০ লক্ষ্য বিশেষ সংক্রামিত মশা ছাড়ার পরিকল্পনা করেছেন বিজ্ঞানীরা। ২০১২ সালে ৩৫০০ বর্গমিটার জমির ওপর নিজের 'মশা কারখানা'র পত্তন করেন শি। গুয়াংঝৌ শহরের বাইরে ওই দ্বীপে দু'টি বসতিতে ব্যাক্টেরিয়া সংক্রামিত মশার ঝাঁক ছাড়া হয়। এর ফলে দ্বীপের মশার সংখ্যা অন্তত ৯০% হ্রাস পেয়েছে বলে শি-এর দাবি।

গত বুধবার আন্তর্জাতিক গবেষণা জার্নালে প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, গবেষক দল পুরুষ ও মহিলা উভয়কে পুনরুৎপাদন করার ক্ষমতা সীমিত করে মশার সংখ্যা কমাতে সক্ষম হয়েছে।

এতে আরো বলা হয়, মহিলা মশার নিম্ন স্তরের বিকিরণে নির্বীজন করা হয়েছিল, যখন পুরুষরা ওলখাবিয়া ব্যাকটেরিয়া সংক্রামিত হয়েছিল, তখন উভয়ই ২০১৬ ও ২০১৭ মশাদের প্রজনন ঋতুতে গুয়াংঝু শহরের কাছাকাছি দুটি দ্বীপে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। ফলাফল এত সফল ছিল যে তারা প্রায় দুইটি দ্বীপে সমগ্র মাশাখির জনসংখ্যা প্রায় নির্মূল করেছিল।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, এশিয়ান টাইগার মশা সাধারণত প্রচলিত ব্যবস্থায় নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন। এদেরকে কীটনাশক কিংবা পয়ো:নালার পানি অপসারণ করে স্থায়ীভাবে দমন করা কঠিন।

ওই গবেষণায় এই মশাকে সাদা চোরাগোপ্তা মশা উল্লেখ করে বলা হয়, এই প্রজাতিটি অত্যন্ত আক্রমনাত্মক। বিগত চার দশকে এই মশা এশিয়া থেকে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশের ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-ডব্লিউটিও এই মশাকে পৃথিবীর সবচেয়ে মারাত্মক প্রাণী বলে অভিহিত করেছে। সংস্থাটির ভাষ্য মতে-এর কামড়ে ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়ার মত জ্বর খুব দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ে।

গুয়াংঝু একটি গ্রীষ্মমন্ডলীয় জলবায়ুর শহর। এখানের জনবসতিও বেশি। এককথায় বসতিতে ঠাসা এ শহরে ২০১৪ সালে ডেঙ্গু জ্বরের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। এসময় প্রায় ৪০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয় এ জ্বরে।

চলতি বছর এ জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ফিলিপাইনে মারা গেছে অন্তত ৪৫০ নাগরিক। পরে দেশটি ‘জাতীয় ডেঙ্গু সতর্কতা’ কর্মসূচী ঘোষণা করে।

এদিকে বাংলাদেশেও চলতি বর্ষা মৌসুমে শুরু হয় ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ। এ পর্যন্ত ঢাকাসহ সারাদেশে বেশকিছু মানুষের প্রাণহানীর ঘটনা ঘটলেও ডেঙ্গু প্রতিরোধ কিংবা চীনের মতো মশার উৎপাদন হ্রাসে সরকারের তেমন কোনো পদক্ষেপ চোখে পড়েনি।

 

টাইমস/এমএস

 

 

জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলকিপার সোহান সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলকিপার সোহান সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

জাতীয় হ্যান্ডবল দলে গোলকিপার সোহানুর রহমান সোহান সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

করোনাভাইরাসের চিকিৎসা দিতে বিয়ে বাতিল করা সেই চিকিৎসকের মৃত্যু

করোনাভাইরাসের চিকিৎসা দিতে বিয়ে বাতিল করা সেই চিকিৎসকের মৃত্যু

এবার মৃত্যুর মিছিলে নাম উঠলো করোনাভাইরাসের চিকিৎসা দিতে গিয়ে নিজের

করোনাভাইরাস সংক্রমণ : ভয়াবহ লোকসানে বিমান খাত

করোনাভাইরাস সংক্রমণ : ভয়াবহ লোকসানে বিমান খাত

করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরপরই চীন গামী আন্তর্জাতিক বিমান ফ্লাইট বন্ধ করে

জাতীয়

বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা করতে কাজ করছে সরকার : তথ্যমন্ত্রী

বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা করতে কাজ করছে সরকার : তথ্যমন্ত্রী

সরকার বাংলা ভাষাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে নিবন্ধিত করার জন্য কাজ করছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ। শুক্রবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস উপলক্ষে প্রভাতফেরী শেষে তিনি এমন্তব্য করেন

জাতীয়

স্বপ্নের পদ্মাসেতুর ৩৭৫০ মিটার দৃশ্যমান

স্বপ্নের পদ্মাসেতুর ৩৭৫০ মিটার দৃশ্যমান

স্বপ্নের পদ্মাসেতু দিনদিন আরও স্পষ্ট হয়ে দৃশ্যমান হচ্ছে। প্রতিদিনই বদলে যাচ্ছে সেতুর চেহারা। সর্বশেষ শুক্রবার পদ্মাসেতুর ২৫তম স্প্যান স্থাপনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যদিয়ে মুল সেতুর প্রায় ৩ হাজার ৭৫০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে।

জাতীয়

মোটরসাইকেল পাল্লা দিতে গিয়ে সড়কে নিহত ২

মোটরসাইকেল পাল্লা দিতে গিয়ে সড়কে নিহত ২

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতাসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন রিবল মাহমুদ খান রাজ ও সাইফুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার রাতে শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার কুচাইপট্টি ইউনিয়নের সাইক্ষ্যা ব্রিজের ওপর এঘটনা ঘটে।

আন্তর্জাতিক

জাপানে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা

জাপানে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা

বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে শুক্রবার জাপানের টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে সকাল সাড়ে সাতটায় ভাষা শহীদদের স্মরণে ইকেবুকুরো নিশিগুচি পার্কে অবস্থিত শহীদ মিনার বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। দূতাবাসের প্রথম সচিব (প্রেস) মুহা. শিপলু জামান স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানা গেছে।

লাইফস্টাইল

স্মৃতিশক্তি বাড়িয়ে দেবে যেসব অভ্যাস

স্মৃতিশক্তি বাড়িয়ে দেবে যেসব অভ্যাস

আপনার কি 'ভুলে যাওয়া' সমস্যাটি ঘনঘন অনুভূত হয়? যেমন- অতি পরিচিতজনের নাম ভুলে যাওয়া। চেনা পথে হাঁটতে গিয়েও ভুল করা। প্রয়োজনীয় অনেক কিছুই মন থেকে হারিয়ে যাওয়া। কথা বলতে গিয়ে প্রায়ই আটকে যাওয়া। অনেক সময় দেখা যায়, নিজের চাবি কোথায় রেখেছেন খুঁজে পাচ্ছেন না। আবার অনেকে কাজে বা পড়াশোনায় মনোযোগ ধরে রাখতে পারেন না।

শিল্প ও সাহিত্য

আমিও ভালবাসি তোমায়

আমিও ভালবাসি তোমায়

প্রিয়তা, মনে আছে সেদিনের কথা? বলেছিলে আমার মায়ের বাংলা ভাষায় তুমি আমায় ভালোবাস।