• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭
আদালতের নির্দেশ অমান্য

ঐতিহ্যবাহী  ‘জাহাজবাড়ি’ স্থাপনায় নতুন নকশা অনুমোদন দেবে না রাজউক  

ঐতিহ্যবাহী  ‘জাহাজবাড়ি’ স্থাপনায় নতুন নকশা অনুমোদন দেবে না রাজউক   

তানভীর রায়হান২৬ জুন ২০১৯, ০৮:২৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে ভেঙে ফেলা পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী জাহাজবাড়ি স্থাপনায় নতুন কোনো নকশা অনুমোদন দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)।

এ প্রসঙ্গে রাজউকের উন্নয়ন নিয়ন্ত্রণের সদস্য (যুগ্ম সচিব) আবুল কালাম আজাদ বাংলাদেশ টাইমস’কে বলেন, জাহাজবাড়ির মতো ঐতিহ্যবাহী ভবন ভেঙে খুবই খারাপ কাজ করা হয়েছে। তবে আমাদের কাছে ওয়াক্ফ প্রশাসক স্বাক্ষরিত একটি চিঠি এসেছিল। আমরা সেই চিঠি মোতাবেক ভেঙে ফেলা সেই জাহাজবাড়ির স্থাপনায় কোনো নকশা অনুমোদন দেব না।

তিনি আরও বলেন, এখনো পর্যন্ত কেউ আমাদের কাছে নকশা অনুমোদনের ব্যাপারে আসেনি। আর আসলেই আমরা প্রকৃত মালিক ছাড়া অন্য কাউকে ভবন করার জন্য নকশা অনুমোদন দেব না।

ভেঙে ফেলা ‘জাহাজবাড়ি’ স্থাপনায় নতুন নকশা অনুমোদন না দিতে রাজউককে সরকারের চিঠি

জানা গেছে, ২০১৮ সালের ১৩ আগস্ট আরবান স্টাডি গ্রুপের (ইউএসজি) করা এক রিট আবেদনের রায়ে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ২২শ ভবন না ভাঙতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এমনকি এসব স্থাপনা/ভবনের মালিকরাও এতে কোনো ধরনের পরিবর্তন ও পরিবর্ধন করতে পারবেন না বলে রায়ে উল্লেখ করা হয়।

কিন্তু আদালতের নির্দেশ অমান্য করে গত মার্চ মাসের শেষ দিকে প্রভাবশালী একটি মহল জাহাজবাড়িটি ভাঙার কাজ শুরু করে। পরে আরবান স্ট্যাডি গ্রুপ থানায় জিডি করলে ভবনটি ভাঙা স্থগিত করা হয়। ঠিক এর দুই মাস পর ঈদুল ফিতরের দিন (৫ জুন) রাতে বুলডোজার দিয়ে ভেঙে ফেলা হয় ঐতিহ্যবাহী এই নিদর্শনটি।

ঘটনার পরদিন ৬ জুন চকবাজার থানায় আবার একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন আরবান স্ট্যাডি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী তাইমুর ইসলাম।

চকবাজারের ঐতিহ্যবাহী ‘জাহাজবাড়ি’ না ভাঙতে জিডি

এর আগে গত ১০ এপ্রিল ওয়াক্ফ সম্পত্তিতে অবস্থিত জাহাজবাড়ি ভেঙে নতুন ভবন নির্মাণে নকশা অনুমোদন না করার জন্য রাজউক চেয়ারম্যানকে চিঠি দেয় বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসন।

এদিকে দেশের বাইরে থাকায় এ বিষয়ে রাজউক চেয়ারম্যানের বক্তব্য জানা যায়নি।

এছাড়া রাজউকের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন খানের কার্যালয়ে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার সহকারী বলেন, ‘স্যার, মিনিস্ট্রিতে গেছেন। কখন আসবেন তা জানা নেই।’

জানতে চাইলে এ ব্যাপারে রাজউকের ঢাকা-৫ নম্বর জোনের অথরাইজড অফিসার মোহাম্মদ হোসেন বাংলাদেশ টাইমস’কে বলেন, আমাদের কাছে এই বিষয়ে কোনো তথ্য নেই। তবে বিষয়টি ওয়াক্ফ প্রশাসক একটি চিঠির মাধ্যমে আমাদের জানিয়েছিলেন।

 

টাইমস/টিআর/জেডটি

ভিকারুননিসার সেই ফার্স্টগার্ল এখন হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্রী

ভিকারুননিসার সেই ফার্স্টগার্ল এখন হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্রী

রাবসা সিকদার। পড়াশোনা করেছেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজে। ক্লাসে

আবারও বিয়ে করলেন ২৪ বছর বয়সী অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক

আবারও বিয়ে করলেন ২৪ বছর বয়সী অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক

প্রথম স্ত্রী সামিরাকে ডিভোর্সের পর আবারও বিয়ে করলেন জাতীয় দলের

১৯৮৭ সালে অনার্স, ১৯৯২ সালে এইচএসসি পাস করেন এমপি পাপুল!

১৯৮৭ সালে অনার্স, ১৯৯২ সালে এইচএসসি পাস করেন এমপি পাপুল!

অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়ে কুয়েতে বন্দী রয়েছেন লক্ষ্মীপুর-২

জাতীয়

বাংলাদেশিদের ‘ভাইরাস বোম’ বলেননি ইতালির প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশিদের ‘ভাইরাস বোম’ বলেননি ইতালির প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশিদের ‘ভাইরাস বোম’ বলেননি ইতালির প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পে কন্তে। শনিবার বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। তার বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করে দেশের কয়েকটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে। বাংলাদেশ-ইতালির দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে বিপদে ফেলতে পারে, এমন সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য গণমাধ্যমের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

জাতীয়

করোনার ভুয়া রিপোর্টের কথা জানতেন স্বাস্থ্য ডিজি!

করোনার ভুয়া রিপোর্টের কথা জানতেন স্বাস্থ্য ডিজি!

করোনা পরীক্ষার হাজারো মনগড়া রিপোর্ট দেয়া নিয়ে এখন আলোচনায় জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের (জেকেজি) চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী। অপকর্মের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের সিইও, তার স্বামী আরিফ চৌধুরীসহ ৬ জন কারাগারে। কিন্তু প্রায় ২০ দিন ধরে লোকচক্ষুর আড়ালে ডা. সাবরিনা। অবশেষে সময় টিভির ক্যামেরায় ধরা পড়লেন তিনি। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে সাবরিনা বলেন, তিনি নাকি জেকেজির চেয়ারম্যানই নন।

জাতীয়

‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের’ নির্দেশে সাহেদের সঙ্গে চুক্তি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের’ নির্দেশে সাহেদের সঙ্গে চুক্তি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

রিজেন্ট হাসপাতালের প্রতারণা নিয়ে সমালোচনার মুখে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলেছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের’ নির্দেশে মোহাম্মদ সাহেদের ওই হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি করেছিলেন তারা। করোনা পরীক্ষার হাজারো মনগড়া রিপোর্ট দেয়া জেকেজি হেলথ কেয়ারের (জেকেজি) বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, প্রতিষ্ঠানটি এভাবে প্রতারণা করবে তা তাদের ধারণায় ছিল না। শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই ব্যাখ্যা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

আন্তর্জাতিক

কুয়েত ছাড়ার আতঙ্কে আড়াই লাখের বেশি বাংলাদেশি

কুয়েত ছাড়ার আতঙ্কে আড়াই লাখের বেশি বাংলাদেশি

কুয়েত সরকার সে দেশ থেকে অভিবাসীদের সংখ্যা কমিয়ে আনতে একটি প্রবাসী কোটা বিল প্রণয়ন করেছে বলে খবর প্রকাশ হয়েছে। জানা গেছে, ওই খসড়া আইনে বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য মাত্র ৩ ভাগ কোটা প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রস্তাবিত বিল আইনে পরিণত হলে দেশটিতে অবস্থানরত আড়াই লাখের বেশি অভিবাসীকে ফেরত আসতে হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা।

জাতীয়

ভাড়াটিয়া হারিয়ে ঢাকার আড়াইলাখ বাড়িওয়ালা বিপাকে

ভাড়াটিয়া হারিয়ে ঢাকার আড়াইলাখ বাড়িওয়ালা বিপাকে

করোনা পরিস্থিতিতে কাজকর্ম হারিয়ে ঢাকা ছাড়ছে মানুষ। এতে বিপাকে পড়েছেন এক শ্রেণির বাড়িওয়ালা। এদের মধ্যে মধ্যবিত্ত চাকরিজীবী ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা তাদের সারাজীবনের সঞ্চিত অর্থে অল্প পরিমাণ জায়গা কিনে বাড়ি নির্মাণ করেছেন, কারো কারো ব্যাংক ঋণ নিতে হয়েছে। অনেকেই পারিবারিক সূত্রে জায়গার মালিক হয়ে বাড়িওয়ালা হয়েছেন।

স্বাস্থ্য

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ৫টি উপকারী খাদ্য

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ৫টি উপকারী খাদ্য

আমরা সবাই জানি যে, ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ থাকলে খাবারের ব্যাপারে সব সময় সচেতন থাকা উচিত, কারণ খাবার আমাদের রক্তে শর্করা বা সুগারের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। তাই স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা ডায়াবেটিস রোগীদের সব সময় পরিমিত মাত্রায় খাবার গ্রহণের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। একই সাথে যেসব খাবার রক্তে শর্করার মাত্রা খুব বেশি বাড়িয়ে দেয় সেগুলি এড়িয়ে যেতে বলা হয়। অর্থাৎ এই রোগীদের জন্য আদর্শ খাবার সেগুলি যেসব খাবারে শর্করার মাত্রা কম।