• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

১৫ শতাংশ লভ্যাংশ দিবে কেডিএস এক্সেসরিজ  

১৫ শতাংশ লভ্যাংশ দিবে কেডিএস এক্সেসরিজ   

নিজস্ব প্রতিবেদক০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:৪৬পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

শেয়ারহোল্ডারদের ১৫ শতাংশ লভ্যাংশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কেডিএস এক্সেসরিজের পরিচালনা পর্ষদ। এর মধ্যে ১০ শতাংশ নগদ এবং ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার রয়েছে।

শনিবার অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ সভায় ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে এ লভ্যাংশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা লভ্যাংশ হিসেবে নগদ টাকার পাশাপাশি শেয়ারও পাবেন। এ হিসাবে ১০০টি শেয়ারের বিপরীতে লভ্যাংশ হিসেবে শেয়ারহোল্ডাররা পাবেন নগদ ১০০ টাকা এবং ৫টি সাধারণ শেয়ার।

লভ্যাংশের বিষয়ে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৭ নভেম্বর। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১ অক্টোবর।

সমাপ্ত হিসাব বছরটিতে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ২ টাকা ২০ পয়সা। আর ২০১৯ সালের জুন শেষে শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৪ টাকা ৯৪ পয়সা।

 

টাইমস/এইচইউ

মুন্সীগঞ্জে বরযাত্রীর মাইক্রোর সঙ্গে  বাসের সংঘর্ষ, নিহত ১০

মুন্সীগঞ্জে বরযাত্রীর মাইক্রোর সঙ্গে বাসের সংঘর্ষ, নিহত ১০

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে বাসের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১০ জন

১০ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম কমে আসবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

১০ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম কমে আসবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, আগামী দশ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম

ফ্যাসিবাদ চিরকাল টিকে থাকতে পারে না: মির্জা ফখরুল

ফ্যাসিবাদ চিরকাল টিকে থাকতে পারে না: মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা মানুষকে ঐক্যবদ্ধ

জাতীয়

রাজবাড়ীতে মাদ্রাসা সুপারের দায়িত্ব পেলেন হিন্দু শিক্ষক

রাজবাড়ীতে মাদ্রাসা সুপারের দায়িত্ব পেলেন হিন্দু শিক্ষক

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপিত হয়েছে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে। সেখানে একটি মাদ্রাসা সুপারের দায়িত্ব পেয়েছেন উত্তম কুমার গোস্বামী নামে হিন্দু সংগঠনের এক নেতা। নারুয়া ইউনিয়নের পাটকিয়াবাড়ী দাখিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত সুপার হয়েছেন তিনি। এর আগে তিনি ওই মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক এবং বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদ রাজবাড়ী জেলা শাখার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ গীতা শিক্ষা কমিটির রাজবাড়ী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

রাজনীতি

যুবলীগের সম্মেলনে আমন্ত্রণ পাননি ওমর ফারুকসহ বিতর্কিত নেতারা

যুবলীগের সম্মেলনে আমন্ত্রণ পাননি ওমর ফারুকসহ বিতর্কিত নেতারা

যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেসে আমন্ত্রণ পাননি সংগঠনের সভাপতির পদ হারানো ওমর ফারুক চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন নেতা। শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যুবলীগের এই কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হবে। আমন্ত্রণ না পাওয়া উল্লেখযোগ্য যুবলীগ নেতাদের মধ্যে রয়েছেন- সংগঠনটির প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুর রহমান মারুফ, নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও শেখ আতিয়ার রহমান দিপুসহ আরও অনেকে।

আন্তর্জাতিক

বিশ্ব জুড়ে সন্ত্রাসবাদ হামলার শিকার ৮০ শতাংশই মুসলিম : ফরাসি সংস্থা

বিশ্ব জুড়ে সন্ত্রাসবাদ হামলার শিকার ৮০ শতাংশই মুসলিম : ফরাসি সংস্থা

বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গি গোষ্ঠীর হামলার ৮০ শতাংশ ভিকটিমই মুসলিমরা। ফ্রান্সের একটি বেসরকারি সংস্থার গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। তুরস্কভিত্তিক গণমাধ্যম আনাদলুর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার ফ্রান্সে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী আন্তর্জাতিক সম্মেলনে অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্সিস দেস ভিকটিমস দ্যু টেররিজমের প্রধান সেন্ট মার্ক এ তথ্য দেন।

জাতীয়

আবরার হত্যায় বুয়েটের ২৬ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

আবরার হত্যায় বুয়েটের ২৬ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় ওই প্রতিষ্ঠানের ২৬ শিক্ষার্থীকে আজীবন বা স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় ৬ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে।

জাতীয়

বিমানবন্দরের শৌচাগারে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণ

বিমানবন্দরের শৌচাগারে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণ

বিমানবন্দরের শৌচাগারে কমোডের ভেতর থেকে ৭০ টুকরো স্বর্ণের বার পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় উদ্ধার করেছে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দ্বিতীয় তলার শৌচাগারে সোনার বারগুলো পাওয়া যায়।

ভ্রমণ

থাইল্যান্ড ভ্রমণ: ব্যাংকক শহর ও সাফারি ওয়ার্ল্ড ভ্রমণ (পর্ব-৪)

থাইল্যান্ড ভ্রমণ: ব্যাংকক শহর ও সাফারি ওয়ার্ল্ড ভ্রমণ (পর্ব-৪)

১৮ নভেম্বর বিকাল চারটায় আমরা পাতায়া থেকে ব্যাংককের উদ্দেশে রওনা দেই। সবচেয়ে ভালো লেগেছে যে বিষয়টি সেটা হলো আমরা যে গাড়িতে করে ব্যাংককের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলাম সেই গাড়ির চালক ছিলেন একজন থাই ভদ্রমহিলা। সাধারণত চালকের পাশের আসনে বাবা বসেন। তবে এবার ভদ্রমহিলাকে দেখে অতি আগ্রহে আমিই গিয়ে উনার পাশে বসলাম। ভদ্রমহিলা খুবই মিশুক ছিলেন। আমরা অনেক ক্ষণ গল্প করেছি। এখানে একটা কথা বলে রাখি,আমি আমার নিজের দেশে খুবই অন্তর্মুখী টাইপের হলেও বিদেশে আসলে বেশ কথা বলি এবং অনেক মেশার চেষ্টা করি সবার সাথে। তার কারণ প্রথমত এখানে আমার ভুল ধরার মতো কেউ নেই। তাছাড়া এখানে কেউ আমাকে চিনে না।  সুতরাং ইতস্তত বোধ করার কোনো কারণ নেই। তার সাথে সাথে ইংরেজি চর্চাটা খুব ভালো হয়।