• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭

জেলে বসে গণিতের জটিল সমস্যার সমাধান

জেলে বসে গণিতের জটিল সমস্যার সমাধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক২৫ জুন ২০২০, ১০:৪৩এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

হলিউডের চলচ্চিত্রে এমন ঘটনা হয়তো প্রায়ই দেখা যায়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে খুনের দায়ে সাজাপ্রাপ্ত আসামি ক্রিস্টোফার হ্যাভেনস যা করেছেন তা গল্পকেও হার মানায়। তিনি কারাগারেই উচ্চতর গণিতের দীক্ষা নিয়েছেন। শুধু তাই নয়, প্রাচীন জটিল এক গাণিতিক সমস্যারও সমাধান করে ফেলেছেন তিনি- যা প্রকাশ হয়েছে গণিত বিষয়ক একটি গবেষণা জার্নালেও। খবর ডয়েচে ভেলে

ক্রিস্টোফার হ্যাভেনস স্কুলের গণ্ডি পেরুতে পারেননি, পাননি কোনো চাকরিও। এক পর্যায়ে হয়ে পড়েন মাদকাসক্ত। পেয়েছেন খুনের দায়ে ২৫ বছরের কারাদণ্ড। চল্লিশ বছর বয়সি হ্যাভেনস এরমধ্যে নয় বছর কারাগারে কাটিয়েছেন, সামনে রয়েছে তার আরও ১৬ বছরের বন্দিজীবন।

কিন্তু জেলে তার দিনগুলো আর আট-দশজন কয়েদির মতো নয়। বন্দিদশায় নিজেকে তিনি গণিতপ্রেমী হিসেবে আবিষ্কার করেন। শুরু করেন উচ্চতর গণিতের পাঠ নেয়া।

জেলখানায় তা মোটেও সহজ ছিল না। চিঠি পাঠিয়ে তিনি যে বইগুলোর অর্ডার দিতেন বাহিরে সেগুলো আটক করত কারারক্ষীরা। একপার্যায়ে তিনি কারা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একটি দফারফা করতে সক্ষম হন। অন্য বন্দিদের অঙ্ক শেখানোর বিনিময়ে তাকে শুধু পাঠ্যবই আনার অনুমতি দেয়া হয়। কিন্তু সেগুলো তার জন্য যথেষ্ট ছিল না। তাই তিনি গণিতের জার্নালের বিভিন্ন সংখ্যার প্রকাশকদের কাছে চিঠি লিখতে শুরু করেন। বিভিন্ন হাত ঘুরে একটি চিঠি আসে গণিতের অধ্যাপক উমব্যার্তো চেরুতির কাছে।

সিয়াটলে বন্দি হ্যাভেনসের অঙ্কের দৌড় জানতে তিনি একটি জটিল গাণিতিক সমস্যা পাঠান তাকে। কিছুদিনের মধ্যেই ১২০ সেন্টিমিটার লম্বা কাগজে বিরাট এক ফর্মুলা লিখে সঠিকভাবেই সমাধান পাঠান হ্যাভেনস।

অধ্যাপক চেরুতি সে সময় প্রাচীন একটি গ্রিক গাণিতিক সমস্যা বা তত্ত্ব নিয়ে গবেষণা করছিলেন, যার উপর ভর করে এমনকি গড়ে উঠেছে আধুনিক ক্রিপ্টোগ্রাফি। সেই গবেষণায় তিনি সঙ্গী করেন হ্যাভেনসকে। জেলে বসে কোনো ক্যালকুলেটর বা ডিজিটাল ডিভাইস ছাড়াই প্রথমবারের মতো সংখ্যার সেই ধাঁধা উন্মোচন করে ফেলেন হ্যাভেনস।

তার প্রমাণকে বৈজ্ঞানিকভাবে ব্যাখ্যা করতে সহায়তা করেন চেরুতি। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এই দু’জনের যৌথ গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে গণিতের জার্নাল ‘রিসার্চ ইন নাম্বার থিওরি'তে।

হ্যাভেনস যে শুধু নিজে গাণিতিক সমস্যার সমাধান করছেন তাই নয়। জেলখানায় অনেক বন্দির মধ্যেই তিনি সংখ্যার মোহ ছড়িয়ে দিয়েছেন। তাদের নিয়ে গড়ে তুলেছেন ম্যাথ ক্লাব, যার সদস্য এখন ১৪ জন।

জেলের বাকি ১৬ বছরের বন্দিজীবন গণিতেই ডুবে থাকতে চান হ্যাভেনস। যাকে তিনি দেখছেন সমাজের প্রতি তার ঋণ শোধ হিসেবে।

 

টাইমস/জিএস

বন্যার আশঙ্কা, ২৩ জেলায় আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখার নির্দেশ

বন্যার আশঙ্কা, ২৩ জেলায় আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখার নির্দেশ

দেশের ২৩টি জেলায় আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত করতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নির্দেশ

তিন পাহাড়ি কন্যার স্বপ্নজয়

তিন পাহাড়ি কন্যার স্বপ্নজয়

পাহাড়েই তাদের শৈশব কেটেছে। শৈশব পেরিয়ে কৈশোরে তাদের স্বপ্নগুলো বড়

এবার গরুর ধাক্কায় বিকল কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেন!

এবার গরুর ধাক্কায় বিকল কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেন!

নাটোরে গরুর সাথে ধাক্কা খেয়ে বিকল হয়ে গেছে কুড়িগ্রাম থেকে

জাতীয়

প্রসব ব্যথায় কাতর স্ত্রীকে অজ্ঞান করে সড়কে রেখে পালালো স্বামী!

প্রসব ব্যথায় কাতর স্ত্রীকে অজ্ঞান করে সড়কে রেখে পালালো স্বামী!

বৃহস্পতিবার সকালে এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার কানুরামপুর-ত্রিশাল সড়কের মধুপুর বাজারে একটি মাদরাসার সামনে। রূপার বরাত দিয়ে স্থানীয় মগটুলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সালেহ মো. বদরুজ্জামান মামুন এসব তথ্য জানান।

জাতীয়

ডা. জাফরুল্লাহকে সংবাদমাধ্যমসহ কারও সঙ্গে কথা না বলার পরামর্শ

ডা. জাফরুল্লাহকে সংবাদমাধ্যমসহ কারও সঙ্গে কথা না বলার পরামর্শ

গলার ব্যথা এখনও ভালো না হওয়ায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে সংবাদমাধ্যমসহ কারও সঙ্গে কথা না বলার পরামর্শ দিয়েছেন তার চিকিৎসকরা।

জাতীয়

করোনা: আক্রান্ত ছাড়াল পৌনে দুই লাখ, মৃত্যু ২২০০

করোনা: আক্রান্ত ছাড়াল পৌনে দুই লাখ, মৃত্যু ২২০০

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৩ হাজার ৩৬০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪ জনে। এছাড়া একদিনে আরও ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মোট দুই হাজার ২৩৮ জন মারা গেলেন।

জাতীয়

এমপি পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন

এমপি পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন

অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার এমপি শহিদ ইসলাম পাপুল কুয়েতের নাগরিকত্ব পাননি বলে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটি।

জাতীয়

মোটরসাইকেল বহরে বন্ধুসহ ঘুরতে গিয়ে প্রাণ হারাল সাব্বির

মোটরসাইকেল বহরে বন্ধুসহ ঘুরতে গিয়ে প্রাণ হারাল সাব্বির

কয়েকজন বন্ধু মিলে চারটি মোটরসাইকেলযোগে বেড়াতে যায়। সারা দিন ঘোরাঘুরি শেষে সন্ধ্যায় বাড়ি উদ্দেশে রওনা দেয় তারা। পথে বালুবাহী ড্রাম ট্রাকের সঙ্গে সাব্বির ও প্রান্তকে বহনকারী মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় স্থানীয়দের সহায়তায় বন্ধুরা আহত দুইজনকে দ্রুত হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাব্বিরকে মৃত ঘোষণা করেন।

শিল্প ও সাহিত্য

ঘরে বসে মহামারী সম্পর্কিত যেসব মুভি দেখতে পারেন

ঘরে বসে মহামারী সম্পর্কিত যেসব মুভি দেখতে পারেন

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে ইতিমধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন বহু লোক, সংক্রমণের সংখ্যাও প্রতিদিন বেড়েই চলেছে। যুক্তরাষ্ট্রসহ বহু দেশে দেখা দিয়েছে দ্বিতীয় পর্যায়ের মহামারী। দীর্ঘ দিনের লকডাউন, স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকা, ব্যবসায় ধস, ক্যারিয়ার নিয়ে শঙ্কা প্রভৃতি নানা কারণে সাধারণ মানুষের দিন কাটছে আতঙ্ক আর উদ্বেগের মধ্য দিয়ে।