• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

ভারতের হয়ে চীনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামছে যুক্তরাষ্ট্র

ভারতের হয়ে চীনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক২৬ জুন ২০২০, ০৫:৩৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা বাহিনীর হামলায় ভারতের ২৩ সেনা নিহতের ঘটনায় এতদিন মধ্যস্ততাকারীর ভুমিকায় ছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু সেই নিরপেক্ষ অবস্থান থেকে আমেরিকা সরে এসে ভারতের পাশে দাড়াতে চাইছে।

দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব এশিয়া অঞ্চলে চীনের আধিপত্য খর্ব করতেই মুলত আমেরিকা ভারতের পাশে থাকতে চাইছে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। ট্রাম্প প্রশাসন মনে করছে, ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইনের মত দেশের ওপর ছড়ি ঘুরাচ্ছে চীন। যা মার্কিনীদের স্বার্থ পরিপন্থী।

তাই দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় চীনের মাতব্বরির রাশ টানতে ভারত-চীনের মধ্যকার চলমান সীমান্ত বিরোধে নাক গলাতে চলেছে মার্কিন প্রশাসন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবর।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের মতো এশীয় দেশগুলোর ওপর যেভাবে রণংদেহী মনোভাব নিয়েছে চীন তা যথেষ্ট উদ্বেগের।

বৃহস্পতিবার ব্রাসেলস ফোরামের ভার্চুয়াল সম্মেলনে পম্পেও বলেন, ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ায় চীনের আগ্রাসনের কারণেই ইউরোপ থেকে মার্কিন সেনার সংখ্যা কমানো হচ্ছে।

পম্পেও আরও বলেন, ইউরোপে নিয়োজিত মার্কিন সেনা দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় মোতায়েন করা হবে। কারণ আমেরিকা মনে করে, যেখানে বেশি প্রয়োজন সেখানেই মার্কিন সেনা বাড়ানো হবে।

চীনের কমিউনিস্ট পার্টির সমালোচনা করে তিনি বলেন, চীনের কমিউনিস্ট পার্টির পদক্ষেপ শুধু ভারতের জন্য হুমকি নয়। ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইনও চীনের হুমকির মুখে রয়েছে। দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের তৎপরতাও অসহনীয় হয়ে উঠেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা পিএলএ-কে (চীনের পিপল’স লিবারেশন আর্মি) মোকাবেলা করার জন্য যথাযথভাবে মার্কিন সেনা নিয়োগ করব। আমরা মনে করি, এটা আমাদের সময়ের চ্যালেঞ্জ।

গত সপ্তাহেও মাইক পম্পেও চীনের সেনাবাহিনীর সমালোচনা করেছিলেন। ভারতের সঙ্গে সীমান্ত উত্তেজনা বাড়ানো এবং কৌশলগতভাবে দক্ষিণ চীন সাগরের সামরিকীকরণের জন্যে চীনাবাহিনীর নিন্দাও করেন তিনি।

 

টাইমস/এসএন

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৫৫ জনের

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৫৫ জনের

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

লিবিয়ায় যুদ্ধে জড়িয়ে যেতে পারে তুরস্ক-ফ্রান্স

লিবিয়ায় যুদ্ধে জড়িয়ে যেতে পারে তুরস্ক-ফ্রান্স

লিবিয়ায় মোতায়েন করা তুর্কি আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় বিমান হামলা চালানোর

পাহাড়ে রক্ত ঝরছে : বান্দরবানে সশস্ত্র হামলা, গুলিতে নিহত ৬

পাহাড়ে রক্ত ঝরছে : বান্দরবানে সশস্ত্র হামলা, গুলিতে নিহত ৬

বান্দরবানে আবারও আঞ্চলিক সহিংসতায় রক্ত ঝরছে। আধিপাত্য বিস্তারের জেরে এবার

জাতীয়

সাংসদ হিসেবে নয়, কুয়েতের ব্যবসায়ী হিসেবে গ্রেপ্তার পাপুল: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সাংসদ হিসেবে নয়, কুয়েতের ব্যবসায়ী হিসেবে গ্রেপ্তার পাপুল: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, মানবপাচারের ঘটনায় কাউকে কোনো ধরণের ছাড় দেয়া হবে না। মানবপাচার ও অর্থপাচার রোধে সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু সরকারের এমন কঠোর অবস্থানের ও মধ্যে একজন সাংসদ কুয়েতে অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে আটক হয়েছেন, যা দুঃখজনক।

স্বাস্থ্য

করোনা উপসর্গে নামকরা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফয়েজুল্লাহর মৃত্যু

করোনা উপসর্গে নামকরা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফয়েজুল্লাহর মৃত্যু

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফয়েজুল্লাহ। মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্নালিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)

জাতীয়

রিমান্ডে থাকা আসামির মৃত্যু, পুলিশের দাবি আত্মহত্যা

রিমান্ডে থাকা আসামির মৃত্যু, পুলিশের দাবি আত্মহত্যা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানায় রিমান্ডে থাকা আফসার আলী নামে এক আসামির মৃত্যু নিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। মৃত আফসার আলী চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার টিকরামপুর মধ্যপাড়া এলাকার মোহসিন আলীর ছেলে। তবে পুলিশ জানিয়েছে, আত্মহত্যা করেছেন আফসার আলী।

জাতীয়

মাশরাফির পাশে থেকে এবার করোনায় আক্রান্ত স্ত্রী সুমনা

মাশরাফির পাশে থেকে এবার করোনায় আক্রান্ত স্ত্রী সুমনা

প্রাণঘাাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক সফল অধিনায়ক নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন

জাতীয়

বগুড়ায় আরও ৭১ করোনা রোগী শনাক্ত

বগুড়ায় আরও ৭১ করোনা রোগী শনাক্ত

বগুড়ায় নতুন করে ৭১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৩৩১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন এসব রোগী শনাক্ত করা হয়।

আন্তর্জাতিক

আর্কটিক অঞ্চলে হাজার হাজার মরণ ভাইরাস

আর্কটিক অঞ্চলে হাজার হাজার মরণ ভাইরাস

পৃথিবীর সর্ব উত্তরে অবস্থিত আর্কটিক অঞ্চলের বরফ গলার কারণে বিশ্বে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। এসব অঞ্চলের নিচে নিষ্ক্রিয় অবস্থায় আছে হাজার হাজার বছরের পুরনো ভাইরাস। সেগুলো সক্রিয় হয়ে বিশ্বে ভয়ংকর সব রোগের সৃষ্টি করতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিজ্ঞানীরা।