• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

সুইজ্যারল্যান্ডে ইভিএমে ভোট নিয়ে বিতর্ক

সুইজ্যারল্যান্ডে ইভিএমে ভোট নিয়ে বিতর্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক২৬ মার্চ ২০১৯, ১২:৩৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

সুইজারল্যান্ডে এখন চলছে ইভিএম নিয়ে জোর বিতর্ক। দেশটির সরকার চায় আসন্ন অক্টোবরের নির্বাচনে ২৬টি প্রদেশের অন্তত দুই-তৃতীয়াংশ অংশে ব্যবহৃত হোক ইভিএম। কিন্তু অনেকেই ইভিএমের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

অগত্যা সরকারের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৪ মার্চের মধ্যে কোনো ব্যক্তি বা সংগঠন যদি প্রমাণ করতে পারেন যে, ইভিএমে কারচুপি করা সম্ভব, তা হলে সরকারের তরফ থেকে তাকে ৫০ হাজার সুইস ফ্রাঁ (প্রায় ৪২ লাখ ৩৭ হাজার টাকা) পুরস্কার দেওয়া হবে।

একে বলা হচ্ছে ‘পাবলিক ইনটিউশন টেস্ট’। যত দিন না এই বিতর্ক মিটছে, তত দিন এ দেশের ভোট মূলত কাগজের ব্যালটেই।

সুইজারল্যান্ডে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ভারতবর্ষের বহু আগে, সেই ১৮৪৮ সালে। তবে নারীদের ভোটাধিকারের ক্ষেত্রে সুইজারল্যান্ড অনেকটাই পিছিয়ে। ১৯৭১ সালে সুইজারল্যান্ডের নারীরা প্রথম ভোটাধিকার পান। ইন্দিরা গান্ধী তখন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

সুইজারল্যান্ডও যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর দেশ। তবে প্রদেশগুলোর হাতে ক্ষমতা অনেকটাই বেশি। প্রত্যেক প্রদেশেরই আছে নিজস্ব সংবিধান, আইনসভা, আদালত, এমনকি পতাকাও। কেন্দ্রীয় সরকারের নীতি প্রণয়নের ক্ষমতা মূলত মুদ্রানীতি, পররাষ্ট্রনীতি, প্রতিরক্ষা, সামাজিক  নিরাপত্তার মতো বিষয়গুলোতে সীমাবদ্ধ।

 সুইজারল্যান্ডের নির্বাচনী পদ্ধতি

প্রতি চার বছর অন্তর হয় কেন্দ্রীয় নির্বাচন। যেখানে জনগণ বেছে নেন ২৪৬ জন জনপ্রতিনিধিকে। তারা নির্বাচন করেন সাত সদস্যের এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। আর এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে প্রত্যেক বছর একজন করে সামলান প্রেসিডেন্ট অর্থাৎ আলঙ্কারিক রাষ্ট্রনেতা পদটির দায়িত্ব। এ দেশে ভিআইপি সংস্কৃতি নেই। ফলে নেতাদের বিশেষ কোনো কনভয় নেই। কেউই নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে চলাফেরা করেন না। ট্রেনে বা বাসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে দেখা হয়ে যাওয়াটা এ দেশে অস্বাভাবিক নয়।

সুইজারল্যান্ডের আরও একটি অভিনব বিষয় হচ্ছে— ‘ডিরেক্ট ডেমোক্র্যাসি’ অর্থাৎ প্রত্যক্ষ গণতন্ত্র। যে কোনো নীতি প্রণয়নের ক্ষেত্রে জনগণের অনুমোদন বাধ্যতামূলক। অর্থাৎ গণভোট আবশ্যিক। সরকার প্রণোদিত নীতির বিরুদ্ধে যদি ১০০ দিনের মধ্যে ৫০ হাজার স্বাক্ষর সংগ্রহ হয়, তা হলেই গণভোট হবে। স্বাভাবিকভাবেই ভোটের বিষয়েরও অভাব নেই এই দেশে। ধর্মস্থানে গম্বুজ থাকবে কি না, বোরকা পরা যাবে কি না, ঘরে বন্দুক রাখা যাবে কি না, রেস্তোরাঁয় সিগারেট খাওয়া যাবে কি না, রবিবার দোকান খোলা থাকবে কি না— ইত্যাদি হরেক রকম বিষয়।

গতবছর এ রকমই একটি আপাত অদ্ভুত এক প্রস্তাব নিয়ে ভোট হলো। যেসব কৃষকের শিং-ওয়ালা গবাদি পশু আছে, তাদের সরকারের তরফ থেকে ভর্তুকি দিতে হবে। ৪৫ শতাংশ ভোট পেয়ে হেরে যান প্রস্তাবকারীরা।

এত বিষয়, এত ভোট, অথচ নির্বাচনের কোনো উত্তাপ নেই। মিছিল, মিটিং, সমাবেশ, দেয়াল লিখন, মাইক লাগিয়ে জনসভা প্রায় নেই বললেই চলে। সাধারণ নির্বাচন মানে, হোর্ডিংয়ে প্রার্থীর নাম ও পরিচিতি, টেলিভিশন বিতর্ক, পোস্টবক্সে বিভিন্ন দলের লিফলেট, জনবহুল এলাকায় ছোটখাটো সভা, ওইটুকুই। বিজয় মিছিলও দেখা যায় না। না বোঝা যায়, জেতার উচ্ছ্বাস, না ধরা পড়ে হারের হতাশা।

 

সূত্র: আনন্দবাজার

 

টাইমস/এসআই

ঘরে বসে ঈদের আনন্দ উপভোগ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ঘরে বসে ঈদের আনন্দ উপভোগ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

করোনাভাইরাসের মহামারির মধ্যে আসা ঈদে সবাইকে ঘরে বসে পরিবারের সদস্যদের

একদিনে সর্বোচ্চ ২৮ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত বাড়ছেই

একদিনে সর্বোচ্চ ২৮ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত বাড়ছেই

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ৭৮তম দিনে ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটিই

বায়তুল মোকাররমে হবে ঈদের পাঁচটি জামাত

বায়তুল মোকাররমে হবে ঈদের পাঁচটি জামাত

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এবার ঈদুল ফিতরের জামাত খোলা ময়দানে

আন্তর্জাতিক

বিশ্বে প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষের মৃত্যু

বিশ্বে প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ৪০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এছাড়া পৃথিবী জুড়ে প্রায় ৫৩ লাখ মানুষ এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

জাতীয়

স্বাস্থবিধি ও শারীরিক দুরত্ব মেনে ঈদ উদযাপন করুন: কাদের

স্বাস্থবিধি ও শারীরিক দুরত্ব মেনে ঈদ উদযাপন করুন: কাদের

স্বাস্থ্যবিধি ও শারীরিক দুরত্ব মেনে দেশবাসীকে পবিত্র ঈদুল ফিতর পালনের আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রোববার এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ আহ্বান জানান।

আন্তর্জাতিক

ভারতে তিন কিলোমিটার দীর্ঘ পঙ্গপালের হানা, সর্তক প্রশাসন

ভারতে তিন কিলোমিটার দীর্ঘ পঙ্গপালের হানা, সর্তক প্রশাসন

করোনাভাইরাসের কারণে টালমাটাল সারা বিশ্ব। এর প্রভাব থেকে রক্ষায় পায়নি ভারতও। এবার সেখানে আরেকটি নতুন ভয়াবহ দুর্যোগ দেখা দিতে যাচ্ছে। দেশটির উত্তরাঞ্চলে আড়াই থেকে তিন কিলোমিটার দীর্ঘ একটি পঙ্গপালের ঝাঁক ঢুকে পড়েছে। এরপরই নড়েচড়ে বসেছে সেখানকার প্রশাসন।

জাতীয়

লাইফ সাপোর্টে থাকা স্ত্রীর জন্য দোয়া চাইলেন ডেপুটি স্পিকার

লাইফ সাপোর্টে থাকা স্ত্রীর জন্য দোয়া চাইলেন ডেপুটি স্পিকার

লাইফ সাপোর্টে থাকা স্ত্রী আনোয়ারা রাব্বীর জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া। রোববার সন্ধ্যায় স্ত্রীর অসুস্থতার কথা জানিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজে মোনাজাতের সময় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

জাতীয়

রাজধানীতে করোনায়  আরও এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

রাজধানীতে করোনায় আরও এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীতে রাজু আহম্মেদ নামে আরও এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম এ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটে ইন্সপেক্টর পদে কর্মরত ছিলেন। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে এখন পর্যন্ত পুলিশের ১৩ জন সদস্য মারা গেলেন।

বিনোদন

ঈদে ব্যস্ততম এই তারকাদের যত নাটক

ঈদে ব্যস্ততম এই তারকাদের যত নাটক

ঈদ আরবি শব্দ। এর অর্থ খুশি, আনন্দ, উল্লাস। মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এবার সেই উল্লাস নেই শোবিজ তারকাদের। দীর্ঘ ২ মাস শুটিং বন্ধ থাকায় মুখে হাসি নেই তাদের।