• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
কর্মীর স্ত্রীকে জোর করে বিয়ে করতে গিয়ে খুন

যাবজ্জীবন কারাবাস শুরু করেছেন ‘দোসা কিং’

যাবজ্জীবন কারাবাস শুরু করেছেন ‘দোসা কিং’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক১১ জুলাই ২০১৯, ০৪:০৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

জ্যোতিষীর পরামর্শে নিজের প্রতিষ্ঠানের এক কর্মীর স্ত্রী-কে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন ভারতের বিখ্যাত গ্লোবাল চেইন রেস্তোরাঁ 'সারাভানা ভবন' এর কর্ণধার পি রাজাগোপাল।

নানান ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই নারীকে বিয়ে করতে না পেরে তাকে হত্যার আদেশ দেন তিনি। এই জন্য ভারতের সুপ্রিম কোর্ট তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় বহাল রাখে। বয়স ও শারীরিক অসুস্থতা দেখিয়ে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশের বিরুদ্ধে শেষ দফা আবেদন করেও ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।

বিবিসি জানায়, ২০০৯ সালে রাজাগোপালকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি দেয়ার পর থেকে তিনি এই সাজা কমানোর চেষ্টা করে আসছেন। মঙ্গলবার সবশেষ আবেদনে স্বাস্থ্যজনিত কারণ দেখিয়ে আবেদন করলে সেটিও নাকচ হয়ে যায়।

রাজাগোপালের রেস্তোরাঁটি একটি দক্ষিণ ভারতীয় খাবারের নামানুসারে তাকে 'দোসা কিং' বা দোসা'র রাজা বলে ডাকা হয়।

বিশ্বব্যাপী সারাভানা ভবনের ৮০টি শাখা এবং কয়েক হাজার কর্মী রয়েছে।

নিউইয়র্ক, সিডনি, লন্ডনের মত শহরে তার খাবারের দোকানের শাখা রয়েছে।

নিজের একজন কর্মচারীর স্ত্রী-কে বিয়ে করার জন্য পাগল ছিলেন রাজাগোপাল। ২০০৩ সালে ওই নারীকে নানান ধরনের লোভ এবং তার পরিবারকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করার অভিযোগ উঠে রাজাগোপালের বিরুদ্ধে। সেসময় ওই নারীর ভাইকে নির্যাতনের অভিযোগও ওঠে তার বিরুদ্ধে।

২০০১ সালে ওই নারীর স্বামী নিখোঁজ হন। এর জন্য রাজাগোপালের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ করেন ওই নারী। পরে একটি জঙ্গলে তার স্বামীর মরদেহ পাওয়া যায়। পুলিশ তদন্ত করে নিশ্চিত হন যে, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

একটি স্থানীয় আদালত ২০০৪ সালে রাজাগোপালকে দোষী সাব্যস্ত করে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়। পরে চেন্নাইয়ের হাইকোর্ট ২০০৯ সালে তার শাস্তি বাড়িয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

এ বছরের মার্চে সুপ্রিম কোর্ট রাজাগোপালের দণ্ডাদেশ বহাল রাখেন। মঙ্গলবার অসুস্থতার অজুহাত দেখিয়ে করা রাজাগোপালের শেষ আবেদন বাতিল হলে তিনি চেন্নাইয়ের আাদালতে নিজেকে সমর্পণ করেন।

 

টাইমস/এসআই

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে বিএনপির কারসাজি আছে: কাদের

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে বিএনপির কারসাজি আছে: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি বারবার আন্দোলনের

আজ মিথিলার বিয়ে, বর ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’ সৃজিত!

আজ মিথিলার বিয়ে, বর ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’ সৃজিত!

বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে

সুস্থ হৃদয়ের জন্য যা করতে হবে

সুস্থ হৃদয়ের জন্য যা করতে হবে

আমাদের হৃদপিণ্ড জন্ম হতে মৃত্যু অব্দি নিরল ভাবে কাজ করতে

স্বাস্থ্য

“পুত্র যদি হয় গুণবান, পিতামাতার  কাছে তা স্বর্গ সমান”

“পুত্র যদি হয় গুণবান, পিতামাতার কাছে তা স্বর্গ সমান”

ইতিহাসে যে কজন প্রাচীন পণ্ডিত অমর হয়ে আছেন, তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন চাণক্য (খ্রিস্টপূর্ব ৩৭০-২৮৩ অব্দ)। এই উপমহাদেশ তো বটেই সারা বিশ্বে তাকে অন্যতম প্রাচীন ও বাস্তববাদী পণ্ডিত মনে করা হয়। তাকে কৌটিল্য বা বিষ্ণুগুপ্ত নামেও অভিহিত করা হয়।

জাতীয়

গাজীপুরে বালুর নিচে ছেলের লাশ পেলেন বাবা

গাজীপুরে বালুর নিচে ছেলের লাশ পেলেন বাবা

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বিধায় গ্রামের নির্মাণাধীন একটি কারখানার বালুর নিচ থেকে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম জাহিদ হাসান দুর্জয়। বয়স ১১ বছর। শুক্রবার সকালে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত দুর্জয় বিধায় গ্রামের আকতার হোসেনের ছেলে। সে তেলিহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিলেন।

স্বাস্থ্য

মুলাশাকে ভিটামিন-এ টমেটোর চেয়ে ২২ গুণ

মুলাশাকে ভিটামিন-এ টমেটোর চেয়ে ২২ গুণ

শীতে বাজারে আসছে মুলাশাক। স্বাদের একটু তিতা তিতা লাগে বলে অনেকে এই শাক খেতে চান না। অথচ সহজলভ্য এই শাকটির পুষ্টিগুণ প্রচুর। মুলার চেয়ে মুলাশাকের পুষ্টিগুণ বেশি রয়েছে।

বিনোদন

‘শাকিব চেয়েছে বলেই অন্যের নায়িকা হয়েছি’

‘শাকিব চেয়েছে বলেই অন্যের নায়িকা হয়েছি’

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা বুবলী। সম্প্রতি তিনি শাকিব বিহীন একটি সিনেমায় নাম লেখিয়েছেন। নাম ‘ক্যাসিনো’। এতে বুবলী নিরবের নায়িকা হয়ে কাজ করবেন।

জাতীয়

হাটহাজারীতে ইজতেমার জোড় বৈঠক

হাটহাজারীতে ইজতেমার জোড় বৈঠক

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে তাবলীগ জামাতের তিন দিনব্যাপি ইজতেমার ‘জোড়’ বৈঠক শুরু হয়েছে। শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত এটি চলবে। ১৫ জেলার তাবলীগ জামাতের প্রায় লক্ষাধিক সদস্য এই জোড় ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন বলে ইজতেমা সূত্রে জানা গেছে।

স্বাস্থ্য

শীতে ত্বক ও চুলের সুরক্ষায় যা খেতে হবে

শীতে ত্বক ও চুলের সুরক্ষায় যা খেতে হবে

শীতের শুষ্কতা ও রুক্ষতায় সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় আমাদের চুল ও ত্বক। ত্বকের শুষ্কতা, ফাটল আর চুলের খুশকি শীতকালের অতি-পরিচিত কিছু সমস্যা। সঠিক খাদ্যাভ্যাস এবং ত্বক ও চুলের পরিচর্যার মধ্য দিয়ে খুব সহজেই এসব জটিলতা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।