• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭

ব্লুটুথ হেডসেট ব্যবহারে সাবধান

ব্লুটুথ হেডসেট ব্যবহারে সাবধান

ফিচার ডেস্ক২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৯:১৮এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

আমাদের বর্তমান ফ্যাশনে কানে ব্লুটুথ হেডসেট রাখাটা যেন বাধ্যতামূলক। বাসে চলার পথে, অফিসে, অবসরে, রাস্তায় হাঁটাহাঁটিসহ বিভিন্ন সময়ে ব্লুটুথ হেডসেট যেন তরুণদের সবচেয়ে পছন্দের। পরিস্থিতি যাই হোক, গান শোনা চাই-ই চাই।

আধুনিক স্মার্টফোনে ব্লুটুথ প্রযুক্তি সহজলভ্য হওয়ায় অনেকেই সারাক্ষণ তা চালু রাখেন। কিন্তু সারাক্ষণ ব্লুটুথ চালু রাখলে কখনো কখনো ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ব্যক্তিগত তথ্য চুরি থেকে শুরু করে ডিভাইসের দখল নেয়ার মতো কাজ করে বসতে পারে দুর্বৃত্তরা।

সম্প্রতি ব্লুটুথ ব্যবহারের সম্ভাব্য বিপদ সম্পর্কে তথ্য তুলে ধরা হয় যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে অনুষ্ঠিত ডেফ কন হ্যাকার সম্মেলনে। প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট ম্যাশেবলে এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

এতে বলা হয়েছে, এখন ফোন, স্মার্ট স্পিকার, গাড়ি, ভাইব্রেটর, টোস্টারের মতো যন্ত্রে ব্লুটুথ সুবিধা থাকে। নিরাপত্তা ও প্রাইভেসি বিবেচনা করলে ব্লুটুথে ব্যবহার বিপদের কারণ হয়ে উঠতে পারে।

ডেফ কন সম্মেলনে বিশেষজ্ঞরা ব্লুটুথ সুবিধাযুক্ত ডিজিটাল স্পিকারের দুর্বলতা তুলে ধরেন। তারা ব্লুটুথ প্রযুক্তির এসব স্পিকার কীভাবে হ্যাক করা যায়, সে পথও দেখান।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, চালু থাকা ব্লুটুথ স্পিকার হ্যাক করে ব্যবহারকারীর নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেন হ্যাকাররা। এতে মারাত্মক শব্দ সৃষ্টি করে কানের ক্ষতি করা যায়। এছাড়া বাজে শব্দ চালু করে দেয়া সম্ভব।

এমনকি ব্লুটুথের মাধ্যমে পাঠানো তথ্য বদলে দেয়া যায় বলে দাবি করেন গবেষকেরা। ব্লুটুথের দুর্বলতা কাজে লাগিয়ে এক ডিভাইস থেকে আরেক ডিভাইসে তথ্য পাঠানোর সময় তা বদলে ফেলা যায়।

নিউইয়র্ক টাইমসে আরেক প্রতিবেদনে বলা হয়, এখন অনেক দোকানে ব্লুটুথ বেকন ব্যবহার করে নির্দিষ্ট ক্রেতার অবস্থানের ওপর নিখুঁত নজরদারি করা হয়। অর্থাৎ, ক্রেতা কী কী পণ্য দেখছেন, কী কী কিনছেন, সে সব তথ্য সহজে সংগ্রহ করা হয়। এরপর তা বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে বিক্রি করা হয়।

গবেষকদের পরামর্শ, যারা ব্লুটুথ স্পিকার বা হেডফোন ব্যবহার করেন, তারা যেন তারযুক্ত হেডফোন ব্যবহার করেন।

 

টাইমস/জিএস

স্কুল-কলেজে টিউশন ফি’র কিছু অংশ মওকুফ হতে পারে

স্কুল-কলেজে টিউশন ফি’র কিছু অংশ মওকুফ হতে পারে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আর্থিক সংকটে থাকা অভিভাবকদের সন্তানদের টিউশন ফি’র কিছু

‘দুর্ঘটনা রোধে চালকদের ডোপ টেস্ট করা দরকার’

‘দুর্ঘটনা রোধে চালকদের ডোপ টেস্ট করা দরকার’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে চালকদের ‘ডোপ টেস্ট’

করোনায় প্রাণ গেল আরও ২৪ জনের, আক্রান্ত ১৬৯৬

করোনায় প্রাণ গেল আরও ২৪ জনের, আক্রান্ত ১৬৯৬

দেশে করোনায় গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আন্তর্জাতিক

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি : প্রাণ গেল ১৫ অভিবাসনপ্রত্যাশীর

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি : প্রাণ গেল ১৫ অভিবাসনপ্রত্যাশীর

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার সময় লিবিয়া উপকূলে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের একটি নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় অন্তত ১৫ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হয়েছে।

আইন আদালত

সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজী কারাগারে

সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজী কারাগারে

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) সভাপতি রুহুল আমীন গাজীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

জাতীয়

ফেনীতে ডিবি পরিচয়ে এজেন্ট ব্যাংকের ২৮ লাখ টাকা ছিনতাই

ফেনীতে ডিবি পরিচয়ে এজেন্ট ব্যাংকের ২৮ লাখ টাকা ছিনতাই

ফেনীর দাগনভূঞায় ডিবি পরিচয়ে ইসলামী ব্যাংকের ২৮ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। ইসলামী ব্যাংক দাগনভূঞা শাখার ব্যবস্থাপক জাফর উদ্দিন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাজনীতি

যুব ও ছাত্র পরিষদের দুই নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

যুব ও ছাত্র পরিষদের দুই নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

বাংলাদেশ যুব উন্নয়ন পরিষদ ও ছাত্র উন্নয়ন পরিষদের দুই নেতাকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। যুব উন্নয়ন পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানকে রাজধানীর রায়সাহেব বাজার এলাকা থেকে ও ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা মহানগরীর কর্মী সজলকে আগারগাঁও এলাকা থেকে সাদা পোশাকধারী কয়েকজন তুলে নেয়।

জাতীয়

নাটোরে ৮০ বছরের বৃদ্ধাকে বিয়ে করলেন শতবর্ষী বৃদ্ধ!

নাটোরে ৮০ বছরের বৃদ্ধাকে বিয়ে করলেন শতবর্ষী বৃদ্ধ!

নাটোরে ১০৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ পাত্রের সঙ্গে ৮০ বছর বয়সি বৃদ্ধার ধুমধাম করে বিয়ে দিল এলাকাবাসী। বুধবার রাতে নাটোর সদর উপজেলার ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। পাত্র মৃত ঈমান আলীর ছেলে ১০৫ বছর বয়সের আহাদ আলী মন্ডল ওরফে আদি ও পাত্রী সোনা মিয়ার মেয়ে ৮০ বছরের আমেনা বেগম।

স্বাস্থ্য

বাদুড়ে থাকা ভাইরাস সম্পর্কে কুল-কিনারা পাচ্ছেন না বিজ্ঞানীরা

বাদুড়ে থাকা ভাইরাস সম্পর্কে কুল-কিনারা পাচ্ছেন না বিজ্ঞানীরা

বাদুড় নিয়ে একসময় বিশেষজ্ঞ এবং সংরক্ষনবাদীদের অনেক আগ্রহ ছিল। কিন্তু বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারী নোভেল রোনাভাইরাসের মূল উৎস হিসাবে বিভিন্ন গবেষণায় বাদুড়কে দায়ী করার ফলে প্রাণীটি এখন মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে।