• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ধানমন্ডিতে জোড়া খুন: গৃহকর্মী সুরভীসহ পাঁচ আসামির রিমান্ড

ধানমন্ডিতে জোড়া খুন: গৃহকর্মী সুরভীসহ পাঁচ আসামির রিমান্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক০৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:৫৯পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

গৃহকর্মী সুরভী আক্তার নাহিদাসহ পাঁচ আসামির পাঁচ দিন করে রিমান্ডের অনুমতি দিয়েছে আদালত। ধানমন্ডি এলাকায় জোড়া খুনের মামলায় মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত এই আদেশ দেন।

গ্রেপ্তার পাঁচ আসামি হলেন- সুরভী আক্তার নাহিদা, বাড়ির ব্যবস্থাপক গাউসুল আজম, ইলেকট্রিশিয়ান বেলায়েত, নিরাপত্তারক্ষী নুরুজ্জামান এবং দেহরক্ষী আতিকুল হক।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. রবিউল আলম আসামিদের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মো. মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়া পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

১ নভেম্বর রাতে ধানমন্ডিতে গৃহকর্ত্রী আফরোজা বেগম ও তার গৃহকর্মী দিতির লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহত আফরোজা বেগমের মেয়ে আইনজীবী দিলরুবা সুলতানা বাদী হয়ে ধানমন্ডি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

সোমবার ধানমন্ডি থানা থেকে এ মামলার তদন্তভার ডিএমপি’র গোয়েন্দা বিভাগে হস্তান্তর করা হয়। পরে গোয়েন্দা দক্ষিণ বিভাগের একটি টিম ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় রাজধানীর আগারগাঁয়ের বিএনপি বস্তি এলাকায় অভিযান চালিয়ে সুরভীকে গ্রেপ্তার করে। অন্য আসামিদের রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রধান সন্দেহভাজন আসামি সুরভী আক্তারের পক্ষে আদালতে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

নুরুজ্জামান ও গাউসুল আজমের পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে আদালতের কাছে জামিন চান।

হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে

গত ১ নভেম্বর পুরনো কাজের লোক আতিকুল হক বাচ্চু একজন নতুন কাজের মেয়েকে নিয়ে বিকাল সাড়ে ৩টার সময় অ্যাডভোকেট দিলরুবা সুলতানা রুবির ফ্ল্যাটে আসেন। এরপর তার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। আফরোজা বেগম এবং তার মেয়ে অ্যাডভোকেট দিলরুবা সুলতানা রুবি একই ভবনে বসবাস করেন।

বিকেল সাড়ে চার থেকে ৫ টার মধ্যে দিলরুবা ওই কাজের মেয়েকে তার মায়ের ফ্ল্যাটে কাজের জন্য পাঠায়। পরবর্তীতে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দিলরুবা তার মাকে ফোন দিলে তার মা ফোন রিসিভ করেননি। এজন্য দিলরুবা তার বাসার কাজের ছেলে রিয়াজকে মায়ের ফ্ল্যাটে পাঠান। রিয়াজ সেখানে গিয়ে কলিং বেল দেয় এবং ডাকাডাকি করে কোনো শব্দ না পেয়ে দরজা ধাক্কা দিলে তা খোলা পায়।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, রিয়াজ আফরোজা বেগমকে ডাইনিং রুমের মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে দৌঁড়ে এসে দিলরুবাকে জানান। দিলরুবা দৌঁড়ে বাসার ভেতরে প্রবেশ করে দেখতে পান, ডাইনিং রুমের মেঝেতে আফরোজা বেগম পড়ে আছেন এবং পাশের গেস্ট রুমে পুরনো কাজের মেয়ে দিতির রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে আছে।

টাইমস/এসআই

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৩৮১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৩৮১

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ

বাস মালিকদের স্বার্থে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

বাস মালিকদের স্বার্থে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

বাস মালিকদের স্বার্থেই বাসভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে

গার্লফ্রেন্ড প্রেগন্যান্ট, বিয়ের আগেই বাবা হচ্ছেন হার্দিক পান্ডিয়া!

গার্লফ্রেন্ড প্রেগন্যান্ট, বিয়ের আগেই বাবা হচ্ছেন হার্দিক পান্ডিয়া!

ভারতের তারকা অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া এবার নতুন চমক নিয়েই হাজির

জাতীয়

বাসভাড়া ৬০% বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট

বাসভাড়া ৬০% বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট

করোনাভাইরাসের পরিস্থিতিতে বাসভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের হয়েছে। সোমবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হুমায়ন কবির পল্লব হাইকোর্ট বিভাগে এই রিট করেন।

আন্তর্জাতিক

ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস

ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস

ইতালির জ্যেষ্ঠ এক চিকিৎসক দাবি করেছেন, ক্ষমতা হারিয়ে ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। সে কারণে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি আর সেভাবে গুরুতর পরিস্থিতিতে পড়ছেন না।

জাতীয়

প্লাজমা থেরাপিতেও বাঁচলেন না ঢাবির সাদা মনের প্রফেসর

প্লাজমা থেরাপিতেও বাঁচলেন না ঢাবির সাদা মনের প্রফেসর

প্লাজমা থেরাপি দিয়েও বাঁচানো গেল না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদা মনের প্রফেসর প্রফেসর ড. শাকিল উদ্দিন আহমদকে। করোনাভাইরাসে

স্বাস্থ্য

মাস্ক না পরলে লাখ টাকা জরিমানা

মাস্ক না পরলে লাখ টাকা জরিমানা

করোনাভাইরাস ঠেকাতে ঘরের বাইরে মাস্ক পরা এবং স্বাস্থ্যবিধি মানা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কোনো ব্যক্তি এই আইন অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে সংক্রমণ আইন–২০১৮ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা শনিবার এ নির্দেশনা জারি করেন।

স্বাস্থ্য

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

ইন্টারনেটে যেকোনো তথ্য কিংবা ভিডিও জনপ্রিয় হওয়ার পেছনে রহস্যময় কোনো না কোনো কারণ থাকতে পারে, কিন্তু সঠিক তথ্য প্রদানের সাথে এর কোনো যোগসূত্র নেই বলে মনে করছেন গবেষকরা। বিএমজে গ্লোবাল হেলথ কর্তৃক সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, সার্স-কোভ-২ নিয়ে আলোচনা করা সর্বাধিক দেখা প্রতি চারটি ইউটিউব ভিডিওর মধ্যে একটিতে বিভ্রান্তিমূলক বা ভুল তথ্য রয়েছে।