• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৭ জুন ২০২০, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

প্রেমিকাকে নিয়ে নিরুদ্দেশ প্রেমিকের লাশ মিলল কাঁঠালগাছে

প্রেমিকাকে নিয়ে নিরুদ্দেশ প্রেমিকের লাশ মিলল কাঁঠালগাছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:১২পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

পাশাপাশি বাড়িতে বাস যুবক হৃদয় চন্দ্র ঘোষ (২১) ও তরুণী পপি আক্তারের (১৯)। দুজনের ধর্ম আলাদা হলেও এক জায়গায় তাদের মিল। তারা দুজন দুজনকে ভালবাসেন।

কিন্তু দুজন ভিন্নধর্মী হওয়ায় পরিবার তাদের বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। গত মঙ্গলবার প্রেমিকাকে নিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় হৃদয়। বুধবার ওই তরুণীকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে আসে তার পরিবার। তারপর বৃহস্পতিবার সকালে নিজ বাড়ির সামনের কাঁঠালগাছে হৃদয়ের ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া যায়।

ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার পৌর শহরের ঘোষপাড়া এলাকায়।

নিহত প্রেমিক হৃদয় চন্দ্র ঘোষ ওই এলাকার অজিত চন্দ্র ঘোষের ছেলে। তিনি পেশায় ট্রাকের হেলপার ছিলেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, কয়েক বছর আগে প্রতিবেশী ছহুর উদ্দিনের মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে হৃদয়ের। কিন্তু দুজন ভিন্নধর্মী হওয়ায় পরিবার তাদের বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর মেয়েটিকে নিয়ে হৃদয় বাড়ি থেকে পালিয়ে গাজীপুর জেলার মাওনা এলাকায় আশ্রয় নেন। খবর পেয়ে মেয়ের পরিবারের লোকজন বুধবার রাতে মাওনা এলাকায় হৃদয়ের সঙ্গে দেখা করে মেয়েটিকে নিয়ে ঘোষপাড়া নিজ বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে ঘোষপাড়ার বাড়ির সামনে কাঁঠালগাছের সঙ্গে হৃদয়ের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় ওই ছেলেটির মা রিনা রানী ঘোষ।

বুধবার রাত ১০টার দিকে হৃদয়ের সঙ্গে মোবাইলে কথা হয় চাচাতো ভাই গোপাল চন্দ্র ঘোষের। তিনি জানান, ওই সময় হৃদয় জানায়- ‘আমি (হৃদয়) আসতে চাচ্ছি না মেয়ের পরিবারের লোকজন আমাকে জোর করে নিয়ে আসতে চাচ্ছে।’ এতটুকু বলার পরেই হৃদয় লাইন কেটে দেয়। আমাদের ধারণা, প্রতিশোধ নিতেই মেয়ের পরিবার হৃদয়কে হত্যা করে মরদেহ ঝুলিয়ে রেখেছে।

ছেলেকে পাইলে মেরে ফেলবে- এমন হুমকি ওরা (মেয়ের পরিবার) আগে থেকেই দিয়ে আসছিল বলে জানান হৃদয়ের মা রিনা রাণী ঘোষ।

হৃদয়ের প্রেমিকা পপি জানান, তাদের প্রেমের সম্পর্ক ৪-৫ বছর ধরে। এ সম্পর্কের টানেই তিনি হৃদয়ের সঙ্গে পালিয়ে যান। বুধবার রাতে পরিবারের লোকজন যখন তাকে নিয়ে আসে, তখন হৃদয় বলছিল- তাকে (প্রেমিকা) না পেলে হৃদয় আত্মহত্যা করবে। রাতে আমরা যে গাড়িতে বাড়ি ফিরি, হৃদয় সেই গাড়িতে আমাদের সঙ্গে আসেনি।

গৌরীপুর থানার ওসি কামরুল ইসলাম মিয়া বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে এটা হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্ত রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না।

 

টাইমস/এইচইউ

একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, আক্রান্ত ৬৫ হাজার ছাড়াল

একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, আক্রান্ত ৬৫ হাজার ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত মন্ত্রীকে ঢাকায় আনা হল হেলিকপ্টারে

করোনায় আক্রান্ত মন্ত্রীকে ঢাকায় আনা হল হেলিকপ্টারে

এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পাবর্ত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

ঘরে বসেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মাসিক বেতন ৮৬ হাজার টাকা!

ঘরে বসেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মাসিক বেতন ৮৬ হাজার টাকা!

ঘরে বসেই ৮৬ হাজার টাকা বেতনে চাকরি করছেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের

জাতীয়

করোনাভাইরাসে আরেক শিল্পপতি আজমত মঈনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আরেক শিল্পপতি আজমত মঈনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দেশের আরেক শিল্পপতি আজমত মঈন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি

জাতীয়

নেত্রকোনায় বিছানায় স্ত্রী, ঘরে ঝুলছিল স্বামীর লাশ

নেত্রকোনায় বিছানায় স্ত্রী, ঘরে ঝুলছিল স্বামীর লাশ

নেত্রকোনা সদর উপজেলায় শোয়ার ঘরের বিছানা থেকে স্ত্রী এবং ঘরের ধর্ণার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় স্বামীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার বেলা সোয়া ১২টার দিকে সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের দরিজাগি গ্রাম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্বাস্থ্য

আয়রন সমৃদ্ধ সাতটি খাবার সম্পর্কে জেনে নিন

আয়রন সমৃদ্ধ সাতটি খাবার সম্পর্কে জেনে নিন

আমাদের দেহ সুস্থ রাখতে এবং দেহের বিভিন্ন দরকারি জৈবিক কার্য সম্পাদন করতে আয়রন অতি প্রয়োজনীয় একটি খনিজ। এটি রক্তে অক্সিজেন পরিবহনের জন্য হিমোগ্লোবিনকে সর্বোত্তম কার্য সম্পাদন করতে সহায়তা করে। রক্তাল্পতার অন্যতম প্রধান কারণ আয়রনের ঘাটতি। দেহের লোহিত রক্তকণিকায় আয়রনের ঘাটতি দেখা দিলে কোষগুলিতে অক্সিজেনের পরিবহণ ব্যাহত হয়।

স্বাস্থ্য

উচ্চ রক্তচাপের রোগীর করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি

উচ্চ রক্তচাপের রোগীর করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি

উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যায় ভোগা করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি বেশি। সম্প্রতি ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। ইন্টারন্যাশনাল টিম অব রিসার্চারের এই গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন চীনের জিজিয়াং হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের ফেই লি এবং লিং তাও। করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের উহানের ২ হাজার ৮৬৬ জন রোগীর ওপর গবেষণা চালিয়ে তারা এমন দাবি করেন।

স্বাস্থ্য

ঘরবন্দি শিশুদের মানসিকতায় পড়ছে নেতিবাচক প্রভাব

ঘরবন্দি শিশুদের মানসিকতায় পড়ছে নেতিবাচক প্রভাব

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মানুষ এখন ঘরবন্দি। শিশু-কিশোরদেরও বন্দিদশা। স্কুল-কলেজ বন্ধ। বাইরে যাওয়া বারণ। বন্ধুদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ নেই। ফলে তাদের মানসিকতায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। অভিভাবকদের পাশাপাশি মনরোগ বিশেষজ্ঞরাও এই কথা বলছেন। কলকাতার এই সময় এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানায়। এই সময়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, শিশু-কিশোরদের অনেকেরই তাদের পড়াশোনায় একদম মন বসছে না।

স্বাস্থ্য

কিছু মানুষকে আক্রান্ত করার ক্ষমতা নেই করোনার

কিছু মানুষকে আক্রান্ত করার ক্ষমতা নেই করোনার

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। একই সঙ্গে প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যারও। তবে এ মহামারীর মধ্যেও কিছু মানুষ কখনও করোনায় আক্রান্ত হবেন না। সম্প্রতি সেল জার্নালে প্রকাশিত এক নতুন গবেষণায় এমন দাবি করা হয়েছে। গবেষণায় বলা হয়, সব মানুষের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটানোর সক্ষমতা নেই। কিছু মানুষের শরীরে এমন ধরনের ‘টি সেল’ (এর টিকা নিউজের শেষে দেয়া আছে) রয়েছে, যার কারণে তারা কখনও এই ভাইরাসে আক্রান্ত হবেন না।