• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭

রাজশাহীতে ইমামের ধর্ষণে কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা

রাজশাহীতে ইমামের ধর্ষণে কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা

প্রতীকী ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী২৬ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:৩৮পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

রাজশাহীর পুঠিয়ায় মক্তবে আরবী পড়তে গিয়ে মসজিদের ইমামের ধর্ষণে এক কিশোরী (১৬) অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় সোমবার উপজেলার সেনভাগ এলাকা থেকে অভিযুক্ত ইমাম ইয়াকুব আলীকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ইমাম ইয়াকুব আলী নরসিংদী জেলা সদর এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে। তিনি পুঠিয়ার গাঁওপাড়া সেনভাগ জামে মসজিদের ইমাম হিসেবে কর্মরত ছিলেন এবং মসজিদ সংলগ্ন একটি কক্ষে একা বসবাস করতেন। তার স্ত্রী-সন্তান রাজশাহী নগরীর রাজপাড়া এলাকায় বসবাস করে।

স্থানীয়রা জানায়, ইমাম ইয়াকুব আলী ওই এলাকায় বিভিন্ন মাদ্রাসায় লেখাপড়া করেছেন। সেই সুবাধে তিনি দীর্ঘদিন থেকে গাঁওপাড়া সেনভাগ জামে মসজিদের ইমামতি করে আসছিলেন। পাশাপাশি প্রতিদিন সকালে গ্রামের ছেলে-মেয়েদের আরবি পড়াতেন।

তার কাছে আরবি পড়তে আসতো এই গ্রামেরই এক কিশোরী। সংসারের টানাপোড়নের কারণে গত দু’বছর থেকে তার লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়। মেয়েটির সরলতার সুযোগ নিয়ে ইমাম মসজিদের খাস কামরায় তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। এতে করে গত জুন মাসে ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। প্রায় মাসখানেক আগে বিয়ের আশ্বাসে কিশোরীর গর্ভপাত করান ইমাম।

পরে বিষয়টি জানতে পারে কিশোরীর পরিবার। পরে ইমামকে চাপ দিলে তিনি বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানান। এ ঘটনায় গত ২৪ নভেম্বর থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পুঠিয়া থানার ওসি রেজাউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আর জানান, মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ভুক্তভোগী কিশোরীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

টাইমস/এইচইউ

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই, আরও ২৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই, আরও ২৯ জনের মৃত্যু

দেশে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। গত ২৪

বিয়ের দাবিতে জবি ছাত্রের বাড়িতে জর্ডান প্রবাসীর অনশন!

বিয়ের দাবিতে জবি ছাত্রের বাড়িতে জর্ডান প্রবাসীর অনশন!

এবার বিয়ের দাবিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের বাড়িতে অনশন করছেন জর্ডান

ফরিদপুরে নামাজে যাওয়ার পথে যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা

ফরিদপুরে নামাজে যাওয়ার পথে যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা

ফরিদপুর শহরে এবার নামাজে যাওয়ার পথে এক যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে

চাকরি

কাতারে সংসার সামলে বিসিএস ক্যাডার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

কাতারে সংসার সামলে বিসিএস ক্যাডার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজে পড়াশোনা করেন রহিমা সুলতানা। অনার্স দ্বিতীয় বর্ষেই তাকে বিয়ে দিয়ে দেয়া হয়।

স্বাস্থ্য

করোনায় শারীরিক দূরত্বের ফলে বাড়ছে মানসিক চাপ

করোনায় শারীরিক দূরত্বের ফলে বাড়ছে মানসিক চাপ

দিন যত যাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ ততোই বাড়ছে। যার কোনো ওষুধ নেই, প্রতিষেধক নেই। ফলে এর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে মানুষ বাধ্য হয়ে একে অন্যের কাছ থেকে সামাজিক বা শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখছেন। এর প্রভাব পড়ছে মানসিক স্বাস্থ্যে ওপর। এতে করে বেশি চাপে পড়ছেন শিশু, বয়স্ক ব্যক্তি আর নারীরা। মূলত মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে শারীরিক সংস্পর্শের প্রয়োজন রয়েছে। কেননা স্পর্শ শরীরে বিভিন্ন হরমনের নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণ করে, যা প্রয়োজনীয় অনুভূতির জন্ম দেয় এবং মানসিক চাপমুক্তি ঘটায়।

স্বাস্থ্য

করোনাকালে ইমিউনিটি বাড়াতে দূরে থাকুক চিনি

করোনাকালে ইমিউনিটি বাড়াতে দূরে থাকুক চিনি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কথা বার বার বলছেন চিকিৎসক ও পুষ্টিবিজ্ঞানীরা। এজন্য অনেকেই খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন আনতে চেষ্টা করছেন। এদিকে করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনে বাড়ি বসে একের পর এক চকোলেট বার সাবাড় করেছেন অনেকেই। সমানতালে চলছে চা-কফিও।রসগোল্লা, কালাকাঁদসহ নিত্যনতুন মিষ্টিও বানিয়েছেন প্রতিনিয়ত। কিন্তু এই চিনি বা মিষ্টি বিপদ ডেকে আনছে। সতর্ক করছেন চিকিৎসকরা।

স্বাস্থ্য

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

বিশ্বের বহু দেশেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর একটি জনপ্রিয় ব্যবস্থা হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার। বিশেষ করে চীনে, যেখান থেকে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা, সেখানেও মানুষ বায়ুর দূষণের হাত থেকে বাঁচতে হরহামেশা নাক আর মুখ ঢাকা মুখোশ পরে ঘুরে বেড়ায়। কিন্তু, অনেকক্ষণ ধরে মাস্ক ব্যবহার করলে কিংবা একাধিক মাস্ক একসঙ্গে একটির ওপর আরেকটি রেখে ব্যবহার করলে অক্সিজেনের ঘাটতি হতে পারে।

স্বাস্থ্য

বাংলাদেশে করোনা রোগীদের টিকা পরীক্ষা চালাতে চায় চীন

বাংলাদেশে করোনা রোগীদের টিকা পরীক্ষা চালাতে চায় চীন

চীনের রাষ্ট্রীয় ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি সিনোভ্যাক বায়োটেক লিমিটেডের তৈরি করোনাভাইরাস ঠেকাতে সম্ভাব্য একটি ভ্যাকসিন ব্রাজিলে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমতি পেয়েছে। শুক্রবার ব্রাজিলের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ আনভিসা এ অনুমোদন দেয়। ব্রাজিলের সাও পাওলো রাজ্যের সরকারি গবেষণা কেন্দ্র ইন্সটিটিউট বুটান্টানের নেতৃত্বে ভ্যাকসিনটির পরীক্ষা হবে।

স্বাস্থ্য

হাই ব্লাড প্রেসারে ভয়াবহ হতে পারে কোভিড সংক্রমণ

হাই ব্লাড প্রেসারে ভয়াবহ হতে পারে কোভিড সংক্রমণ

দীর্ঘদিন ধরে রক্তচাপজনিত অসুখ বা হাই ব্লাড প্রেসারের সমস্যায় ভুগছেন, এসব ব্যক্তির ক্ষেত্রে লিঙ্গ, বয়স নির্বিশেষে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটাই বেশি। তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকি কেন বেশি, এই নিয়ে ক্লিনিক্যাল মেডিসিন জার্নালের রিসার্চ বলছে, উচ্চ রক্তচাপ মানেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। তাই ভাইরাস যুদ্ধে জয়ের সম্ভাবনাও কম।