• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭

সারাদেশে ৯৪ জনপ্রতিনিধির দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক

সারাদেশে ৯৪ জনপ্রতিনিধির দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক২৭ জুন ২০২০, ০৩:৫৬পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

করোনা পরিস্থিতিতে দুর্নীতির অভিযোগে দেশের বিভিন্ন জেলার ৯৪ জনপ্রতিনিধির (ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার) বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দেশে করোনাভাইরাসের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকারের ত্রাণ, ভিজিএফ, টিসিবি কর্মসূচির প্রকৃত উপকারভোগীদের বঞ্চিত করে অন্যায় সুবিধা গ্রহণ ও ত্রাণ আত্মসাতের অভিযোগ আলোচিত হওয়ায় দুদক এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সম্প্রতি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এসব কথা জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুদকের অভিযোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত মহাপরিচালক এ কে এম সোহেলের নেতৃত্বাধীন যাচাই-বাছাই কমিটির সুপারিশের প্রেক্ষিতে দেশব্যাপী ৯৪ জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয়।

এসব জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে সরকারি ত্রাণ আত্মসাৎ, ভুয়া মাস্টাররোলের মাধ্যমে সরকারি চাল আত্মসাৎ, সরকারি ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিতরণ না করে কালোবাজারে বিক্রি, জেলেদের ভিজিএফ-এর চাল আত্মসাৎ, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের তালিকা প্রণয়নে স্বজনপ্রীতি ও অনিয়ম, উপকারভোগীদের ভুয়া তালিকা প্রণয়ন করে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির খাদ্যসামগ্রী আত্মসাৎসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

এই ৯৪ জনপ্রতিনিধির মধ্যে ৩০ জন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ৬৪ জন ইউপি সদস্য রয়েছেন। এরই মধ্যে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সাময়িকভাবে এসকল জনপ্রতিনিধিদের বরখাস্তও করেছে।

এ বিষয়ে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ গণমাধ্যমকে বলেন, বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে ২১টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় অনেক জনপ্রতিনিধি গ্রেপ্তারও হয়েছেন। মামলাগুলো তদন্তাধীন রয়েছে। নতুন করে আরও ৯৪ জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কারো প্রতি ন্যূনতম নমনীয় হওয়ার সুযোগ নেই। দুর্নীতিবাজ প্রত্যেককেই আইনের মুখোমুখি করা হবে।

 

টাইমস/এসএন

আক্রান্ত ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়ালো, আরও ৩৩ জনের মৃত্যু

আক্রান্ত ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়ালো, আরও ৩৩ জনের মৃত্যু

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রিজেন্ট কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাল সার্টিফিকেট দিতেন সাহেদ

রিজেন্ট কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাল সার্টিফিকেট দিতেন সাহেদ

এবার রিজেন্ট কলেজ এবং রিজেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে জাল সার্টিফিকেট দেয়ার তথ্য

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক সাবেক মন্ত্রী শাহজাহান সিরাজের মৃত্যু

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক সাবেক মন্ত্রী শাহজাহান সিরাজের মৃত্যু

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠকারী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও বিএনপি সরকারের সাবেক বন

জাতীয়

চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে ত্রিপুরা আসামে যাবে ভারতীয় মালামাল

চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে ত্রিপুরা আসামে যাবে ভারতীয় মালামাল

চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরা ও আসামে পণ্য পরিবহনের ‘ট্রায়াল রান’ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার কলকাতা বন্দর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশে কনটেইনার নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে ‘এমভি সেঁজুতি’। মালবাহী জাহাজটি আগামী বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জাতীয়

বাড়ছে নদ-নদীর পানি, টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

বাড়ছে নদ-নদীর পানি, টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

টাঙ্গাইলে ফের বাড়তে শুরু করেছে যমুনা, ধলেশ্বরীসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জাতীয়

অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম: ঝিনাইদহে পাঁচদিনে নারী শিশুসহ ৩৫ জন আটক

অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম: ঝিনাইদহে পাঁচদিনে নারী শিশুসহ ৩৫ জন আটক

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধপথে ভারতে যাওয়া-আসার চেষ্টাকালে ৫ দিনে অন্তত ৩৫ জনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। আটকদের মধ্যে ১৬ জন পুরুষ, ১৫ জন নারী এবং ৪ জন শিশু রয়েছে।

আন্তর্জাতিক

‘আয়া সোফিয়া’ ইস্যূতে তুরস্কের পাশে রাশিয়া

‘আয়া সোফিয়া’ ইস্যূতে তুরস্কের পাশে রাশিয়া

ঐতিহাসিক যুদ্ধের মাধ্যমে ইস্তাম্বুল বিজয় করেন উসমানি খলিফা সুলতান মুহাম্মদ আল ফাতিহ। পরে অর্থডক্স খ্রিষ্টান যাজকরা আয়া সোফিয়া বিক্রি আবেদন করলে সুলতান ফাতিহ সেটি নিজের অর্থ ব্যয় করে কিনে নেন এবং মসজিদে রুপান্তরিত করেন।

জাতীয়

করোনায় চট্টগ্রামে গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. আইরিনের মৃত্যু

করোনায় চট্টগ্রামে গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. আইরিনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনিই দীর্ঘ হচ্ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর মিছিল। এবার করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিলে যোগ হলেন গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. সুলতানা লতিফা জামান আইরিন। তিনি চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের গাইনি বিশেষজ্ঞ ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৪ বছর।

মতামত

সঙ্গীকে নিয়ে সুখে থাকার দার্শনিক ব্যাখ্যা

সঙ্গীকে নিয়ে সুখে থাকার দার্শনিক ব্যাখ্যা

আমরা পৃথিবীতে এসেছি সুখে শান্তিতে থাকার জন্য। এই মানব জীবনের একমাত্র উদ্দেশ্য হলো ভালো থাকা। এই ভালো থাকার সবচেয়ে বড় উপাদান হলো সঙ্গী। সবাই সঙ্গী চায়, নারী পুরুষের সঙ্গ পেতে চায়, পুরুষ নারীর সঙ্গ চায়, প্রেমিক প্রেমিকার সঙ্গ চায়, প্রেমিকা প্রেমিকের সঙ্গ চাই।