• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬

বিএনপির নেতৃত্বে পরিবর্তন চান মওদুদ-মোশাররফ

বিএনপির নেতৃত্বে পরিবর্তন চান মওদুদ-মোশাররফ

নিজস্ব প্রতিবেদক১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:০৯পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

কাউন্সিল ডেকে বিএনপির নেতৃত্বে পরিবর্তন আনার প্রস্তাব দিয়েছেন দলটির শীর্ষ পর্যায়ের দুই নেতা। একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ভরাডুবির পর এমন প্রস্তাব আনা হয়।

শুক্রবার জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও মওদুদ আহমদ সরাসরি দল পুনর্গঠনের কথা বলেন।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, এই নির্বাচনে জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটে নাই। সেজন্য আজকে আমাদের যেটা প্রয়োজন, জনগণের ইচ্ছার পুনর্বাসন করতে হবে।

‘একমাত্র উপায় হলো নতুন করে দলের পুনর্গঠন করা এবং এই কাজ এখন আমাদেরকে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে করতে হবে।’

এ সময় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে আবারও জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনার আন্দোলনের আহবান জানান মওদুদ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, একটি কাউন্সিলের মাধ্যমে দলকে পুনর্গঠন করতে হবে। তুলনামূলকভাবে ত্যাগী, যারা পরীক্ষিত নেতাকর্মী, তাদেরকে নেতৃত্বে আনতে হবে।

‘আমরা যারা ব্যর্থ বলে পরিচিত হয়েছি, আমাদের পদ ছেড়ে দিতে হবে তরুণদের জন্য। তাহলেই বিএনপি ঘুরে দাঁড়াবে।’

তিনি আরও বলেন, ২০০৮ সালে এমনিভাবে ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে পরাজিত হয়েছিলাম। তার পরপর কিন্তু আমরা দলের কাউন্সিল করে ঘুরে দাঁড়িয়েছিলাম এবং সারা দেশে আমাদের নেতাকর্মীরা সাহসের সঙ্গে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল। সেটার প্রমাণ হল ৩০ তারিখে, সরকার ভোট করতে সাহস পেল না।

এ অবস্থা থেকে বিএনপিকে ঘুরে দাঁড়াতে হলে দল পুনর্গঠনের বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন স্থায়ী কমিটির এ নেতা।

প্রসঙ্গত, বিএনপির সর্বশেষ জাতীয় কাউন্সিল হয়েছিল ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ। সেটি ছিল ষষ্ঠ কাউন্সিল। তাতে দলের চেয়ারপারসন পদে খালেদা জিয়া ও জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান পদে তার ছেলে তারেক রহমান পুনর্নির্বাচিত হন। দীর্ঘদিনের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে পুরোপুরি মহাসচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়।

 

টাইমস/এক্স

করোনা: ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১১২, একজনের মৃত্যু

করোনা: ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১১২, একজনের মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও

কোয়ারেন্টাইনে না.গঞ্জের ডিসি এসপি ও সিভিল সার্জন

কোয়ারেন্টাইনে না.গঞ্জের ডিসি এসপি ও সিভিল সার্জন

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে ঢাকার পর নারায়ণগঞ্জেই সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত

করোনায় বেসামাল সৌদি রাজপরিবার : আক্রান্ত ১৫০

করোনায় বেসামাল সৌদি রাজপরিবার : আক্রান্ত ১৫০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের হানা যেন থামছে না। হর হামেশাই মৃত্যুর মিছিলে

জাতীয়

করোনায় দাদির মৃত্যু: কুমিল্লায় দুই শিশুও আক্রান্ত

করোনায় দাদির মৃত্যু: কুমিল্লায় দুই শিশুও আক্রান্ত

করোনায় ঢাকায় দাদির মৃত্যুর পর কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় এসে দুই শিশুও করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তাদের একজনের বয়স সাত বছর ও অন্যজনের বয়স পাঁচ।

স্বাস্থ্য

হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য রক্ষায় অলিভ ওয়েল

হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য রক্ষায় অলিভ ওয়েল

প্রতিদিনের খাদ্যাভ্যাসে অলিভ ওয়েল কিংবা ভেজিটেবল ওয়েল যুক্ত হলে তা সুস্থ রাখবে আপনার হৃদপিণ্ডটিকে। নতুন একটি গবেষণায় পাওয়া তথ্য অনুযায়ী প্রতিদিন গড়ে এক চামচ অলিভ ওয়েল খেলে তা হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে সহায়তা করবে। গবেষকরা মার্চের প্রথম সপ্তাহে আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত লাইফস্টাইল অ্যান্ড কার্ডিওমেটাবোলিক হেলথ সেশনে তাদের গবেষণালব্ধ এসব তথ্য তুলে ধরেন। ১৯৯০ সাল থেকে দীর্ঘ সময় ধরে গবেষকরা এসব বিষয়ে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেছেন।

জাতীয়

রংপুরে ৯০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ, আটক ৩

রংপুরে ৯০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ, আটক ৩

রংপুরের পীরগঞ্জে ৯০ বস্তা সরকারি চালসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার মধ্যরাতে অভিযান চালিয়ে গুর্জিপাড়া কলেজের সামনে থেকে চালসহ তিনজনকে আটক করা হয়। পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেষ চন্দ্র রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উক্তি প্রতিদিন

“খাঁটি মানুষ অন্যকে ঘৃণা করে না”

“খাঁটি মানুষ অন্যকে ঘৃণা করে না”

নেপোলিয়ান বোনাপোর্ট, ফ্রান্সের বিখ্যাত সেনাপতি ও সম্রাট। ইউরোপীয় ইতিহাসের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের একজন। তাকে বলা হয় ‌‘ফরাসি বিপ্লবের শিশু’। নেপোলিয়ান ১৭৬৯ সালের ১৫ আগস্ট ইতালির কর্সিকা দ্বীপে জন্মগ্রহণ করেন। ১৭৯৯ সালে সামরিক ক্ষমতা বলে ফ্রান্সের ‘প্রথম কনস্যুল’ পদে অধিষ্ঠিত হন। পাঁচ বছর পরই ১৮০৪ সালে ফ্রান্সের সিনেট নেপোলিয়ানকে ‘ফ্রান্সের সম্রাট’ ঘোষণা করে।

স্বাস্থ্য

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে যাদের ভেন্টিলেটর প্রয়োজন

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে যাদের ভেন্টিলেটর প্রয়োজন

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। প্রতিদিন মানুষের মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। রাশ টানা যাচ্ছে না এ মহামারির। সাধারণত শুষ্ক কাশি ও জ্বরের মাধ্যমেই শুরু হয় করোনাভাইরাসের উপসর্গ, পরে শ্বাস প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয়। এই ভাইরাস জনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তদের ভেন্টিলেটরের (কৃত্রিমভাবে স্বাস্থ্য প্রশ্বাস নেয়ার যন্ত্র) মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়ার কথা বলছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের মতে, যেসব রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা হয়, গলাব্যথা, নিউনোমিয়ার প্রকোপ বেড়ে যায়, রোগীর জীবন যখন সংকটাপন্ন হয়ে পড়ে, তখন তার জন্য ভেন্টিলেটর ব্যবহার করা জরুরি।

স্বাস্থ্য

চোখের মাধ্যমে যেভাবে করোনা আক্রমণ করে

চোখের মাধ্যমে যেভাবে করোনা আক্রমণ করে

করোনাভাইরাসের কারণে এখন সারা বিশ্বে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এই ভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগের গতি প্রকৃতি নিয়েও চলছে নানা গবেষণা। সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির ড্রপলেট বায়ুতে ঘুরে বেড়ায়। এই ড্রপলেট রোগীর কাছাকাছি থাকা সুস্থ মানুষের নাক, মুখ ও চোখের মাধ্যমে তার শরীরে প্রবেশ করে।