• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

ছবি তুইলেন না, আমার একটা মানসম্মান আছে: জি কে শামীম

ছবি তুইলেন না, আমার একটা মানসম্মান আছে: জি কে শামীম

নিজস্ব প্রতিবেদক২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:২১পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

রাজধানীর নিকেতনে র‍্যাব অভিযান চালিয়ে যুবলীগের নেতা জি কে শামীমকে তার সাত দেহরক্ষীসহ গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় তার অফিস থেকে নগদ প্রায় দুই কোটি টাকা, পৌনে দুইশ কোটি টাকার এফডিআর, আগ্নেয়াস্ত্র ও মদ পেয়েছে র‌্যাব।

শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে জি কে শামীমের নিকেতনের ডি ব্লকের ৫ নম্বর রোডের ১৪৪ নম্বর বাসা ঘিরে ফেলে র‌্যাব।  এর আগে নিকেতন এলাকায় জি কে শামীমের আরেকটি বাসা থেকে তাকে ডেকে আনা হয়। পরে তাকে আটক করেই অভিযান চালায় র‌্যাব।

ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের দেখে বিব্রত হয়ে যান শামীম। তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, ‘আল্লাহর ওয়াস্তে ছবি তুইলেন না, আমাকে বেইজ্জতি কইরেন না। আমার একটা সম্মান আছে। এখানে যা হচ্ছে, আপনারা দেখছেন। কিন্তু আমাকেও আত্মপক্ষ সমর্থন করতে দিতে হবে। প্লিজ ছবি তুলবেন না।’

তখন র‍্যাবের এক কর্মকর্তা শামীমকে বলেন, ‘আপনি আমাদের সহযোগিতা করেন। আমাদের সহযোগিতার জন্য ও অভিযানের স্বচ্ছতার জন্য মিডিয়া আমাদের সহযোগিতা করছে।’

জি কে শামীম র‍্যাবের অভিযান চলাকালে সাংবাদিকদের ক্যামেরা থেকে নিজেকে আড়াল করার চেষ্টা করেন। নিজের চেয়ারে বসে মুখ ঢাকছিলেন তিনি। কখনো টেবিলের নিচে কিছু খুঁজছিলেন, কখনো বা হাত দিয়ে মুখ ঢাকছিলেন তিনি।

অভিযান শেষে র‍্যাবের নির্বাহী হাকিম সারওয়ার আলম উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, বিভিন্ন ব্যাংকে এফডিআর করে রাখা ১৬৫ কোটি ২৭ লাখ টাকার নথি তারা শামীমের অফিস কক্ষে পেয়েছেন। এর মধ্যে বড় একটি অংশ তার মায়ের নামে রাখা। এর পাশাপাশি ১ কোটি ৮১ লাখ ২৮ হাজার টাকা, ৯ হাজার মার্কিন ডলার এবং ৭৫২ সিঙ্গাপুরি ডলার সেখানে পাওয়া গেছে।

সারওয়ার আলম বলেন, ‘মোট আটটি আগ্নেয়াস্ত্র আমরা পেয়েছি। এগুলো বৈধ অস্ত্র বলেই প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, তবে এগুলোর অবৈধ ব্যবহারের তথ্য রয়েছে।’

শামীম রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিত। গণপূর্ত ভবনে ঠিকাদারি কাজে তার দাপটের খবর ইতোমধ্যে সংবাদমাধ্যমের শিরোনাম হয়েছে।

এক সময় যুবদলের রাজনীতি করা শামীম পরে যুবলীগে ভেড়েন। যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক পরিচয় দিয়েই তিনি প্রভাব খাটিয়ে আসছিলেন।

 

টাইমস/এসআই

বান্দরবানে ইউপি নির্বাচনে বিজিবির গুলিতে নিহত ২

বান্দরবানে ইউপি নির্বাচনে বিজিবির গুলিতে নিহত ২

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, ফাত্রাঝিরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়...

দ্রুত সময়ের মধ্যে আবরার হত্যার বিচার, মা-বাবাকে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস

দ্রুত সময়ের মধ্যে আবরার হত্যার বিচার, মা-বাবাকে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস

এর আগে বিকেলে ৫ টার দিকে গণভবনে আবরার ফাহাদের বাবা...

দিরাইয়ের শিশু হত্যা: স্বজনদের সম্পৃক্ততা পেয়েছে পুলিশ

দিরাইয়ের শিশু হত্যা: স্বজনদের সম্পৃক্ততা পেয়েছে পুলিশ

পুলিশ সুপার জানান, ‘তুহিন হত্যাকাণ্ডে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বাবা...

আন্তর্জাতিক

জেরুজালেমের গভর্নরকে তুলে নিয়ে গেছে ইসরায়েল

জেরুজালেমের গভর্নরকে তুলে নিয়ে গেছে ইসরায়েল

পবিত্রভূমি জেরুজালেমের গভর্নর আদনান গাইথকে তুলে নিয়ে গেছে ইহুদিবাদী ইসরায়েলের পুলিশ বাহিনী। সোমবার ভোরে অভিযান চালিয়ে তাকে আটকের পর তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। প্যালেস্টাইন প্রিজনার্স সোসাইটি এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছ। তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, জেরুজালেমের সিলওয়ান এলাকার নিজ বাড়ি থেকে গভর্নর আদনান গাইথকে আটক করা হয়। এসময় ইসরায়েলের পুলিশ তার বাড়ি ও আশপাশের সড়কগুলো নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়। 

জাতীয়

‘শিবির’ সন্দেহেই আবরার হত্যা:মনিরুল

‘শিবির’ সন্দেহেই আবরার হত্যা:মনিরুল

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ১৯ আসামির মধ্যে চারজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আসামিদের জবানবন্দিতে বলা হয়, মূলত শিবির সন্দেহেই আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আসামিদের জবানবন্দিতে হত্যার কারণ হিসেবে এমনটাই উঠে এসেছে’

জাতীয়

দুদক প্রধানের পদত্যাগ চাইলেন সাংসদ তাপস

দুদক প্রধানের পদত্যাগ চাইলেন সাংসদ তাপস

শেখ পরিবারের সদস্য এই সংসদ সদস্য বলেন, বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারির ঘটনার মামলায় বাচ্চুকে আসামি করে চার্জশিট দিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের নির্দেশনা ছিল। কিন্তু দুদক সে নির্দেশনা মানেনি। কী কারণে দুদক এ রকম কাজ করেছে, এটি জাতি জানতে চায়।

জাতীয়

প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

সোমবার মেয়েটি স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে বিলাশখান এলাকায় রিফাত তার পথরোধ করে। একপর্যায়ে রিফাত ওই ছাত্রীকে মারধর শুরু করে। এক পর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসী মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। ভুক্তভোগী মেয়েটির মা বলেন, ‘মেয়েকে বিয়ে করার জন্য রিফাত দীর্ঘদিন থেকে উত্ত্যক্ত করছিল। মাঝে কিছুদিন মেয়ের পড়ালেখাও বন্ধ রেখেছিলাম। বিষয়টি রিফাতের পরিবারকে জানানো হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি’। 

আন্তর্জাতিক

অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন এক ভারতীয়সহ তিনজন

অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন এক ভারতীয়সহ তিনজন

বৈশ্বিক দারিদ্র্য লাঘবে অবদান রাখায় চলতি বছর অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন এক ভারতীয়সহ তিন অর্থনীতিবিদ। তারা হলেন- অভিজিৎ ব্যানার্জি, এস্তার ডুফলো ও মাইকেল ক্রেমার।

স্বাস্থ্য

কাজে মানসিক চাপ সামলাবেন যেভাবে

কাজে মানসিক চাপ সামলাবেন যেভাবে

শারীরিক সমস্যা নিয়ে আমরা সবাই কম বেশি সচেতন। শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য আপ্রান কত চেষ্টাই না করি। কিন্তু শরীরের পাশাপাশি মনের সুস্থতাও যে জরুরী, সে খেয়াল রাখি ক’জনে?