• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬
জাতীয় ক্রিকেট লিগ

খুলনার হয়ে ডাবল সেঞ্চুরি পেলেন ইমরুল

খুলনার হয়ে ডাবল সেঞ্চুরি পেলেন ইমরুল

স্পোর্টস ডেস্ক১৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:১১পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

জাতীয় ক্রিকেট লিগে রংপুরের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পেলেন ইমরুল কায়েস। রোববার খুলনার হয়ে ২০২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটি তার দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি। ২০১৪ সালে বিসিএলে দক্ষিণাঞ্চলের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন ইমরুল।

গত কয়েক সিরিজ ধরে সব ফরম্যাটে জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন ইমরুল। এই ইনিংসটির মাধ্যমে নতুন করে জানান দিলেন নিজের অস্তিত্বের।

রোববার ৬ রান নিয়ে দিন শুরু করেছিলেন ইমরুল। দিনের আড়াই সেশন ব্যাটিং করে উপহার দেন ২০২ রানের ইনিংস। ৪০৬ মিনিট ক্রিজে থেকে ৩১৯ বল খেলে ১৯ চার ও ৬ ছক্কায় নিজের ইনিংসটি সাজান তিনি। পুরো ইনিংসে একটি বারের জন্যও কোন ভুলের সুযোগ দেননি ৩২ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দুটি ডাবল সেঞ্চুরি ছাড়াও ১৬টি সেঞ্চুরি আছে ইমরুলের।

খুলনা শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে বৃষ্টির কারণে প্রথম দিন একটি বলও মাঠে গড়ায়নি। দ্বিতীয় দিন টসে হেরে আগে ব্যাটিং করে রংপুর। খুলনার বোলারদের সামনে প্রথম ইনিংসে ২২৭ রানের বেশি করতে পারেনি তারা। খুলনার বামহাতি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক ৮১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে দলের সেরা বোলার ছিলেন। অন্যদিকে দুই পেসার আল আমিন হোসেন ও রুবেল হোসেন নেন দুটি করে উইকেট।

জবাবে খুলনা ইমরুল কায়েসের ডাবল সেঞ্চুরিতে (২০২) ভর করে ৯ উইকেটে ৪৫৪ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে। ওপেনিংয়ে রবিউল ইসলাম ও ইমরানউজ্জামান মিলে ১৩৬ রানের জুটি গড়েন। ৭১ রানে ইমরান আউটের পর ইমরুল দ্বিতীয় উইকেটে রবিউলের সঙ্গে (৭৬) ৩০ রানের জুটি বাঁধেন। অপরপ্রান্তে নিয়মিত উইকেট গেলেও ইমরুল একপ্রান্তে ছিলেন অবিচল।

চতুর্থ দিন তৃতীয় সেশনের শেষ ঘণ্টায় ২২৭ রান পিছিয়ে থেকে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পায় রংপুর। কিন্তু সময় স্বল্পতায় ড্রতে নিষ্পতি হয় ম্যাচটি। রংপুর ১ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ৩৩ রান।

 

টাইমস/এইচইউ

‘আমি সবার কাছে করজোড়ে ক্ষমা চাচ্ছি’: রাঙ্গা

‘আমি সবার কাছে করজোড়ে ক্ষমা চাচ্ছি’: রাঙ্গা

বুধবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, আমি সবার কাছে

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুয়া প্রকল্পে চাল আত্মসাত, দুদকের হাতে ধরা ৬ কর্মকর্তা

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুয়া প্রকল্পে চাল আত্মসাত, দুদকের হাতে ধরা ৬ কর্মকর্তা

আটককৃতরা পরস্পর যোগসাজশ ও জালিয়াতিমূলকভাবে কাগজপত্র তৈরি করে অসৎ উদ্দেশে

দুই হাজারে টেবিল কিনে ২৫ হাজার টাকার বিল নেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা

দুই হাজারে টেবিল কিনে ২৫ হাজার টাকার বিল নেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা

এ বিষয়ে ডা. খায়রুল ইসলাম বলেন, আমি কর্মস্থলে একেবারেই নতুন,

জাতীয়

আবরার হত্যাকাণ্ড: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, চার্জশীট ‘নির্ভুল’

আবরার হত্যাকাণ্ড: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, চার্জশীট ‘নির্ভুল’

আবরার হত্যা মামলার পলাতক আসামিদের গ্রেফতার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‌'পলাতকদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে। আমাদের কাছে তথ্য থাকলে তাদের ধরে ফেলতাম। তবে বাইরে বের হওয়ার কোন সুযোগ নেই। ঘরের কোথাও আশ্রয়ে প্রশ্রয়ে হয়তো আছে, আমরা ধরে ফেলব'।

রাজনীতি

জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে চান খালেদা জিয়া

জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে চান খালেদা জিয়া

শরীরে অসম্ভব ব্যথা অনুভব করছে। উঠে দাঁড়াতে পারছে না, সোজা হয়ে বসতে পারছে না এই অবস্থা তার। সে নিজে তুলে খেতে পারছেন না, নিজে চলাফেরা করতে পারছেন না। তিনি বলেন, চিকিৎসকরা নিয়মিত আসছেন। কিন্তু তার চিকিৎসার কোনো উন্নতি হয়নি। তার শরীরের অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে। আমরা তার শারিরীক অবস্থা নিয়ে শঙ্কিত। তার উন্নত চিকিৎসা দরকার।

জাতীয়

‘আবরার হত্যাকাণ্ড: উচ্ছৃঙ্খলতার চরম বহি:প্রকাশ’

‘আবরার হত্যাকাণ্ড: উচ্ছৃঙ্খলতার চরম বহি:প্রকাশ’

তিনি জানান, বুয়েটের ওই হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে সরাসরি মারপিটে অংশ নিয়েছিল ১১ জন। বাকী ১৪ জন ঘটনাস্থলে না থেকেও ভূমিকা রেখেছে। তারা হত্যায় মদদ দিয়েছে, নির্দেশনা দিয়েছে এবং পরিকল্পনা করেছে। ভিডিও ফুটেজ, প্রযুক্তিগত সহায়তা, হলের স্টাফ, নাইটগার্ড ও অন্যান্য শিক্ষার্থীদের জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

আইন আদালত

আবরার হত্যার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

আবরার হত্যার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী বলেন, যে কারণেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটানো হোক না কেন এটা হত্যাকাণ্ড। এরকম হত্যাকাণ্ড ঘটানো উচিত নয়। সমাজ এটাকে মেনে নেবে না, আমরা এটাকে মেনে নেবো না। এটার উচিত বিচার হতে হবে, শুধু উচিত বিচার এ কারণে না যে একটা হত্যাকাণ্ড হয়ে গেছে। এটার মতো আর কোনোদিন যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেটা আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।

আইন আদালত

বিপুল সম্পদের মালিক উপজেলা আ.লীগ নেতা, দুদকে অভিযোগ

বিপুল সম্পদের মালিক উপজেলা আ.লীগ নেতা, দুদকে অভিযোগ

তিনি অবৈধ পথে উপার্জিত টাকায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার বাঁধনপাড়া এলাকায় বহুতল বিশিষ্ট ভবনের মালিক হয়েছেন। যার বাজার মূল্য ৮ কোটি টাকা। অমল কর কানাডাতেও বাড়ি ক্রয় করেছেন। তিনি তার অবৈধ অর্থ কানাডাতে পাচার করেছেন। তার স্ত্রী ও সন্তান বর্তমানে কানাডাতে বসবাস করছেন। গেল অক্টোবর মাসে অমল কর কানাডায় তার পরিবারের সঙ্গে ছিলেন।

বিনোদন

চুমুর বিষয়ে অনড় তামান্না ভাটিয়া!

চুমুর বিষয়ে অনড় তামান্না ভাটিয়া!

নায়িকা তামান্না ভাটিয়া। ২০০৫ সালে ‘চাঁদ সা রোশন চেহরা’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে তার অভিষেক হয়। ওই ছবির পর ১৪ বছর কেটে গেছে। এখনো অনস্ক্রিনে কাউকে চুম্বন দৃশ্যে দেখা যায়নি এই অভিনেত্রীকে।