• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

ঐতিহ্যবাহী পুঠিয়া রাজবাড়ি

ঐতিহ্যবাহী পুঠিয়া রাজবাড়ি

ফিচার ডেস্ক১২ জুন ২০১৯, ১২:৫৬পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

প্রাচীন ঐতিহ্য আর সবুজে ঘেরা আমাদের এই বাংলাদেশ। এদেশে রয়েছে মনোমুগ্ধকর অনেক স্থাপনা। তেমনই একটি মনোরম স্থান রাজশাহীর পুঠিয়া রাজবাড়ি। মহারানী হেমন্ত কুমারীর এই বাসভবন পাঁচআনি জমিদারবাড়ি নামেও পরিচিত।

রাজশাহী জেলা সদর হতে ৩২ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে নাটোর মহাসড়ক অভিমুখে পুঠিয়া অবস্থিত। পুঠিয়া রাজবাড়ি বা পাঁচআনি জমিদারবাড়ি হচ্ছে মহারানী হেমন্তকুমারী দেবীর বাসভবন। বাংলার প্রত্নতাত্ত্বিক ঐতিহ্যের মধ্যে রাজশাহীর পুঠিয়া রাজবাড়ি অন্যতম। বর্তমানে এই রাজবাড়িটি লস্করপুর ডিগ্রী কলেজ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

সপ্তদশ শতকে মোগল আমলে তৎকালীন বাংলার বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে পুঠিয়া জমিদারি ছিল প্রাচীনতম। কথিত যে জনৈক নীলাম্বর মোগল সম্রাট জাহাঙ্গীরের কাছ থেকে ‘রাজা’ উপাধি লাভ করার পর সেটি পুঠিয়া রাজবাড়িরূপে পরিচিতি লাভ করে। ১৭৪৪ সালে জমিদারি ভাগ হয়। সেই ভাগাভাগিতে জমিদারের বড় ছেলে পান সম্পত্তির সাড়ে পাঁচ আনা এবং অন্য তিন ছেলে পান সাড়ে তিন আনা। ১৯৫০ সাল পর্যন্ত জমিদারি প্রথা ছিল। প্রথা বিলুপ্ত হলে পুঠিয়া রাজবাড়ীর জমিদারিও বিলুপ্ত হয়। কিন্তু জমিদারি বিলুপ্ত হলেও সে আমলে নির্মিত তাদের প্রাসাদ, মন্দির ও অন্যান্য স্থাপনা ঠিকই এখনো টিকে রয়েছে। অপরূপ এ প্রাসাদটি ১৮৯৫ সালে মহারানী হেমন্ত কুমারী দেবী তার শাশুড়ি মহারানী শরৎ সুন্দরী দেবীর সম্মানে নির্মাণ করান।

পুঠিয়া বাজারের দক্ষিণ পার্শ্বে দ্বিতল বিশিষ্ট আয়তাকার পরিকল্পনায় নির্মিত পুঠিয়া রাজবাড়িটি একটি আকর্ষণীয় ইমারত। জমিদার বা রাজারা এখান থেকে তাদের রাজকর্ম পরিচালনা করতেন। ভবনের সম্মুখ ভাগের স্তম্ভ, অলংকরণ, কাঠের কাজ, কক্ষের দেয়ালে ও দরজার উপর ফুল ও লতাপাতার চিত্রকর্ম চমৎকার নির্মাণ শৈলীর পরিচয় বহন করে। রাজবাড়ীর ছাদ সমতল, ছাদে লোহার বীম, কাঠের বর্গা এবং টালি ব্যবহৃত হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য রাজবাড়ির চারপাশে পরিখা খনন করা হয়েছিল।

রাজবাড়ীর আশে পাশে ছয়টি রাজদিঘী আছে। প্রত্যেকটা দিঘীর আয়তন ছয় একর করে। মন্দিরও আছে ছয়টি। সবচেয়ে বড় শিব মন্দির। এ ছাড়া আছে রাধাগোবিন্দ মন্দির, গোপাল মন্দির, গোবিন্দ মন্দির, দোলমঞ্চ ইত্যাদি। প্রতিটি মন্দিরের দেয়ালেই অপূর্ব সব পোড়ামাটির ফলকের কারুকাজ। জোড়বাংলা মন্দির, বাংলো মন্দির, পঞ্চরত্ন অর্থাৎ চূড়াবিশিষ্ট মন্দির অর্থাৎ বাংলার বিভিন্ন গড়নরীতির মন্দিরগুলোর প্রতিটিই আকর্ষণীয়। এ ছাড়া রানির স্নানের ঘাট, অন্দর মহল মিলিয়ে বিশাল রাজবাড়ি প্রাঙ্গণ।

যাওয়া উপায়:

ঢাকা থেকে রাজশাহী: ঢাকা থেকে সড়ক, রেল ও আকাশ পথে রাজশাহী যাওয়া যায়। সড়কপথে ঢাকার গাবতলি ও কল্যাণপুর থেকে বাসে উঠতে হবে। এজন্য গ্রিন লাইন, দেশ ট্রাভেলস, শ্যামলী ও হানিফসহ বেশ কয়েকটি বাস সার্ভিস রয়েছে। শ্রেণিভেদে ভাড়া পড়বে ৪শত থেকে ১ হাজার টাকা।

রেলপথে যাওয়ার জন্য রয়েছে সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ও পদ্মা এক্সপ্রেস নামে দুটি ট্রেন। রোববার ব্যতীত প্রতিদিন দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে সিল্কসিটি এক্সপ্রেস এবং মঙ্গলবার ব্যতীত প্রতিদিন রাত ১১টা ১০ মিনিটে কমলাপুর থেকে রাজশাহীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। ভাড়া শ্রেণিভেদে ৩৫০ থেকে ১ হাজার ৮১ টাকা পর্যন্ত।

এছাড়া আকাশ পথে ঢাকার শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউনাইটেড এয়ার ও ইউএস-বাংলা এয়ারের বিমানে রাজশাহী যাওয়া যায়।

রাজশাহী থেকে পুঠিয়া: পুঠিয়ার দূরত্ব রাজশাহী থেকে ৩৪ কিলোমিটার এবং নাটোর থেকে ১৮ কিলোমিটার। রাজশাহী থেকে নাটোর গামী বাসে চড়ে বা লোকাল বাসে করে রাজশাহী-নাটোর মহাসড়কের পুঠিয়া বাসস্ট্যান্ডে মেনে ৫ থেকে ১০ মিনিট হাটলেই পুঠিয়া রাজবাড়ি।

কোথায় থাকবেন:

থাকার জন্য রাজশাহী ও পুঠিয়া বেশ কিছু আবাসিক ব্যবস্থা রয়েছে। পুঠিয়াতে জেলা পরিষদের দুইটি ডাকবাংলো আছে যেখানে নির্ধারিত ভাড়া পরিশোধ করে থাকা যাবে। তবে আসার পূর্বেই ডাকবাংলোতে কক্ষ বরাদ্দ নিতে হবে জেলা পরিষদ থেকে। এছাড়া পুঠিয়া বাসস্ট্যান্ডের পাশে একটি বেসরকারি আবাসিক হোটেল রয়েছে।

এছাড়া রাজশাহীতে থাকার জন্য রয়েছে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন মোটেল (০৭২১-৭৭৫২৩৭), হোটল হক্স ইন (০৭২১-৮১০৪২০), নাইস ইন্টারন্যাশনাল(০৭২১-৭৭৬১৮৮), মুক্তা ইন্টারন্যাশনাল (০৭২১-৭৭১১০০), ডালাস ইন্টারন্যাশনাল (০৭২১-৮১১৪৭০)।

 

টাইমস/এসআর/এইচইউ

ধর্ষণচেষ্টা : ছাত্রীর মামা খুন

ধর্ষণচেষ্টা : ছাত্রীর মামা খুন

চুয়াডাঙ্গায় এক যুবকের ছুরিকাঘাতে এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার পর গণপিটুনিতে ওই যুবকও প্রাণ হারিয়েছেন। শনিবার ভোরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আমিরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

চীন ‘চোর’, সম্পর্কের দরকার নেই বললেন ট্রাম্প

চীন ‘চোর’, সম্পর্কের দরকার নেই বললেন ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্র থেকে চীন ‘বিশাল অঙ্কের অর্থ চুরি করে নিয়ে গেছে’ বলে অভিযোগ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার রাতে তিনি নিজের ভেরিফাইড টুইটারে এমন দাবি করেন।

মেয়রকে নিয়ে মধ্যরাতে রাস্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মেয়রকে নিয়ে মধ্যরাতে রাস্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সিলেট শহরে চলমান বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ঘুরে দেখেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

উক্তি প্রতিদিন

সন্দেহের কাছে সৎ লোক আত্মসমর্পণ করে না

সন্দেহের কাছে সৎ লোক আত্মসমর্পণ করে না

স্যামুয়েল টেলর কোলরিজ (এস টি কোলরিজ), একজন ব্রিটিশ কবি। যাকে সাধারণভাবে অভিহিত করা হয় একজন দূর কল্পচারী, অসীম কল্পনাগামী ও রোমান্টিক কবির পাশাপাশি প্রকৃতি এবং বিষণ্ণতার কবি হিসেবে।

স্বাস্থ্য

কাঁচা পেঁপের বহুমাত্রিক পুষ্টিগুণ

কাঁচা পেঁপের বহুমাত্রিক পুষ্টিগুণ

কাঁচা পেঁপের আছে আশ্চর্য কিছু গুণ। এতে রয়েছে ভিটামিন ‘এ’, ভিটামিন ‘বি’ ও ভিটামিন ‘সি’। সেই সঙ্গে রয়েছে লৌহ ও ক্যালসিয়াম। শরীর সুস্থ রাখতে ও শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে কাঁচা পেঁপে দারুণ কার্যকর।

জাতীয়

ন্যাপ সভাপতি মোজাফ্ফর আহমেদ আর নেই

ন্যাপ সভাপতি মোজাফ্ফর আহমেদ আর নেই

প্রবীণ রাজনৈতিক নেতা ও ন্যাপ ( মোজাফ্ফর) এর সভাপতি অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমেদ আমাদের মাঝে আর নেই। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৭ বছর। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজনীতি

শেখ হাসিনার সরকার সংখ্যালঘুবান্ধব: কাদের

শেখ হাসিনার সরকার সংখ্যালঘুবান্ধব: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি শুধু সংখ্যালঘুদের শত্রু নয়, এরা সারা বাংলাদেশের শত্রু। আসুন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার মাধ্যমে সকলে মিলে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে প্রতিহত করি। রাজধানীর পলাশীর মোড়ে ঐতিহাসিক জন্মাষ্টমী মিছিলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয়

মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বলব তারা যেন মিয়ানমারে যায়। এজন্য একটি কমিশন গঠন করা যেতে পারে। কমিশন, জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা এবং অন্যান্য সবার এখন কাজ হচ্ছে মিয়ানমার যাওয়া। সেখানে গিয়ে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের জন্য অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করা। আমাদের এখানে তাদের আর কাজ নেই।

বিনোদন

বিয়ের পরই রিয়ার সেক্স বাণিজ্য!

বিয়ের পরই রিয়ার সেক্স বাণিজ্য!

অন স্ক্রিন কিংবা অফ স্ক্রিন, কোথাও চমক দিতে ভোলেন না রিয়া সেন। তবে বেশ কিছুদিন ধরে চমক দেয়া’তো দূরের কথা, হারিয়েই গেলেন তিনি। বহুদিন ক্যামেরার সামনেই দেখা যায়নি তাকে।