• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

এরদোগান : সবজি বিক্রেতা থেকে প্রেসিডেন্ট

এরদোগান : সবজি বিক্রেতা থেকে প্রেসিডেন্ট

ফিচার ডেস্ক০৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০৮:২০এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

রিসেপ তায়েপ এরদোগান। তুরস্কের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট। এছাড়া বর্তমান মুসলিম বিশ্বের শীর্ষনেতাদের অন্যতম জনপ্রিয় একজন। তার নেতৃত্বেই মুসলিম বিশ্বে অন্যতম প্রভাবশালী রাষ্ট্র হিসেবে আবির্ভূত হচ্ছে তুরস্ক। এরদোগান ১৯৫৪ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ছিলেন তুরস্কের কোস্টগার্ডের একজন সদস্য। মধ্যবিত্ত এই পরিবারে কিছু বাড়তি আয় যোগানের জন্য শৈশবে ফুটপাতে সবজি বিক্রির কাজ করতেন এরদোগান।

এরদোগান ফুটবল খেলায় খুব পারদর্শী ছিলেন। শৈশবে তুরস্কের অনেক নামী-দামী ক্লাবে ফুটবল খেলেছেন। কিন্তু পেশা হিসেবে ফুটবল খেলার প্রতি তার বাবার সমর্থন ছিল না। তাই তার বাবা এরদোগানকে ইস্তাম্বুল ইমাম হাতিপ স্কুলে ভর্তি করেন। সেখানে তিনি ন্যাশনাল তার্কিশ স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য হন এবং রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। শুরুতে তিনি ন্যাশনাল স্যালভেশন পার্টির সঙ্গে সম্পৃক্ত হন এবং ১৯৭৬ সালে এই দলের ইস্তাম্বুল যুব শাখার প্রধান নির্বাচিত হন। ১৯৮০ সালে সেনা অভ্যুত্থানের ফলে এই দলটি বিলুপ্ত হয়ে যায়।

১৯৮১ সালে তিনি মারমারা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতি ও প্রশাসন অনুষদ থেকে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন। এরপর একটি প্রাইভেট কোম্পানীর ম্যানেজার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৮৩ সালে ওয়েলফেয়ার পার্টির মাধ্যমে আবার রাজনীতিতে ফিরে আসেন এরদোগান। ১৯৮৪ সালে তিনি এই দলের বেইয়োগ্লু জেলার প্রধান নির্বাচিত হন।

১৯৯৪ সালে তিনি প্রথম ইসলামপন্থী হিসেবে ইস্তাম্বুলের মেয়র নির্বাচিত হন। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তিনি ইস্তাম্বুল শহরে অ্যালকোহল বিক্রি নিষিদ্ধ করেন। এসময় ইস্তাম্বুলে খাবার পানির সংকট, পরিবেশ দূষণ হ্রাস ও অবকাঠামোর উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন এরদোগান।

১৯৯৭ সালে জনসম্মুখে তিনি বলেন- “মসজিদ আমাদের সেনানিবাস, গম্বুজ আমাদের হেলমেট, মিনার আমাদের বেয়নেট এবং বিশ্বাসীরা আমাদের সৈনিক।" এই উক্তির পর সেকুলার আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে তিনি মেয়র পদ থেকে অপসারিত হন এবং ১৯৯৯ সালে ৪ মাস কারাগারে ছিলেন। মুক্তির পর ২০০১ সালে তিনি জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলাপম্যান্ট পার্টি (একেপি) প্রতিষ্ঠা করেন।

২০০২ সালের সাধারণ নির্বাচনে তার দল ‘একেপি’ জয় লাভ করে এবং এরদোগান প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় আসেন। পরবর্তী আরও দুই মেয়াদে তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। ফলে ২০০৩ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত টানা তিন মেয়াদে তিনি প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ১৯৭৮ সাল থেকে চলমান কুর্দি বিদ্রোহ বন্ধের লক্ষ্যে ২০১২ সালে তিনি কুর্দিস্তান পিপলস পার্টির (পিকেকে) সঙ্গে শান্তি আলোচনা শুরু করেছিলেন। কিন্তু ২০১৫ সালে এ আলোচনা ব্যর্থ হয়।

প্রধানমন্ত্রী অবস্থায় তিনি বৈদেশিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি, মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, মাথাপিছু আয় বৃদ্ধিসহ তুরস্কের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে সক্ষম হন। কিন্তু ক্রমেই তিনি কিছুটা স্বৈরতান্ত্রিক আচরণের দিকে ঝুঁকে পড়েন। একেপি সরকারকে উৎখাতের অভিযোগে তিনি ২০১৩ সালে বেশ কিছু সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠান। পরের বছরই তিনি টুইটার ও ইউটিউব নিষিদ্ধ করে সোস্যাল মিডিয়ার উপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেন।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার সর্বোচ্চ মেয়াদ শেষ হওয়ায় ২০১৪ সালে তিনি প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচনের ঘোষণা দেন। পরে ২০১৫ সালে প্রথম দফা নির্বাচনে তার দল একেপি জয়লাভ করলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। ফলে দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে তার দল কোয়ালিশন সরকার গঠন করে এবং ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতায় আসেন এরদোগান।

২০১৬ সালের ১৫ জুলাই তার বিরুদ্ধে একটি ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থান করা হয়। তিনি এ অভ্যুত্থান চেষ্টার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত তুরস্কের বিদ্রোহী নেতা ফেতহুল্লাহ গুলেনকে দায়ী করেন। এ অভিযোগে হাজার হাজার সামরিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত ও কারাগারে পাঠানো হয় এবং অনেককে নজরদারীতে রাখা হয়।

২০১৮ সালে তিনি পুনরায় নির্বাচন দেন এবং প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হন। এই নির্বাচনের মাধ্যমে তুরস্কের সামরিক প্রতিষ্ঠানসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের একক ক্ষমতা চলে যায় প্রেসিডেন্টের হাতে। ফলে এক নিরঙ্কুশ ক্ষমতার অধিকারী হিসেবে তুরস্কের ক্ষমতা পাকাপোক্ত করেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান। তবে সিরিয়ায় চলমান সংকটে তুরস্কের ভূমিকার জন্য অনেকেই এরদোগানের সমালোচনা করে থাকেন।

কূটনৈতিক দক্ষতা ও কৌশল দিয়ে রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সমান তালে সম্পর্ক উন্নত করে চলেছেন তিনি। আর ক্রমেই মুসলিম বিশ্বে অন্যতম প্রভাবশালী দেশ হিসেবে আবির্ভূত হচ্ছে তুরস্ক।

২০০৬ সালে তিনি রাশিয়া সরকারের থেকে স্টেট মেডেল পুরস্কার পান। এছাড়া জাতিসংঘের অঙ্গপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন দেশ থেকে অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননা পেয়েছেন মুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা এরদোগান।

 

টাইমস/এএইচ/জিএস

জাবির প্রক্টর ও অন্তরের অডিওতে যা আছে...

জাবির প্রক্টর ও অন্তরের অডিওতে যা আছে...

সদ্য ফাঁস হওয়া অডিও বার্তায় জাবির প্রক্টর ফিরোজ-উল-আলম ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি হামজা রহমান অন্তরের কথোপকথন রয়েছে। হামজা নিজেই এই ফোনালাপ ফাঁস করেন। এ ব্যাপারে আগে থেকে জানিয়েছিলেনও তিনি। ফলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে কৌতূহলের সৃষ্টি হয়।

ঢাবি সিনেট থেকে অব্যাহতি চেয়ে শোভনের চিঠি

ঢাবি সিনেট থেকে অব্যাহতি চেয়ে শোভনের চিঠি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) সিনেটের ছাত্র প্রতিনিধি থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার চেয়ে উপাচার্য বরাবর চিঠি দিয়েছেন ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

জাবির সেই চাঁদার টাকা হয় হরিলুট, অন্তরের খোলা চিঠি

জাবির সেই চাঁদার টাকা হয় হরিলুট, অন্তরের খোলা চিঠি

কথপোকথনের এক পর্যায়ে হামজা রহমান অন্তরকে বলতে শোনা যায়, ক্যাম্পাসের ৪৪-৪৫ ব্যাচ পর্যন্ত টাকা পাইছে, আমি এটা গোপন রাখার কী আছে স্যার?....স্যার আপনি যদি চান, আমি আপনাকে প্রমাণ দেখাতে পারবো, ৪৪-৪৫ ব্যাচও টাকা পাইছে।

জাতীয়

প্রাথমিকে শিক্ষকপদে উত্তীর্ণদের যা করতে হবে

প্রাথমিকে শিক্ষকপদে উত্তীর্ণদের যা করতে হবে

উত্তীর্ণ প্রার্থীগণকে অনলাইনে আবেদনের আপলোডকৃত ছবি, আবেদনের কপি,লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র,নাগরিকত্ব সনদ এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ মুক্তিযোদ্ধা সনদ,মুক্তিযোদ্ধার সাথে সম্পর্ক সনদ,প্রযোজ্য ক্ষেত্রে এতিম সংক্রান্ত সনদ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কমপক্ষে ৯ম গ্রেডের গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত করে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর-২০১৯ অফিস চলাকালে নিজ নিজ জেলায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে জমা দিয়ে স্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

রাজনীতি

ক্ষমা চেয়ে ফেসবুকে গোলাম রাব্বানীর স্ট্যাটাস   

ক্ষমা চেয়ে ফেসবুকে গোলাম রাব্বানীর স্ট্যাটাস  

চাঁদাবাজিসহ নানা অনিয়মের দায়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বরখাস্ত হওয়া গোলাম রাব্বানী নিজের কৃতকর্মের জন্য অনুতপ্ত হয়ে কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। সোমবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেয়া স্ট্যাটাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের কাছে ক্ষমা চান রাব্বানী। পোস্টে নিজের ভুলত্রুটির জন্য অনুতপ্ত বলে উল্লেখ করেছেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

খেলাধুলা

সৌম্যসহ চারজন বাদ, ফিরেছেন রুবেল-শফিউল

সৌম্যসহ চারজন বাদ, ফিরেছেন রুবেল-শফিউল

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ দুটি ম্যাচের জন্য দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। তাতে সৌম্য সরকারসহ চারজন দল থেকে বাদ পড়েছেন। আর নতুন করে দল অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন পাঁচজন। বাদ পড়াদের মধ্যে সৌম্য সরকার ছাড়াও রয়েছেন মেহেদী হাসান, ইয়াসিন মিশু ও আবু হায়দার রনি।

জাতীয়

ডেঙ্গু জ্বরে খুলনা মেডিকেলে আট মাসের শিশুর মৃত্যু

ডেঙ্গু জ্বরে খুলনা মেডিকেলে আট মাসের শিশুর মৃত্যু

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে রাফিত নামে আট মাসের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাত ১২টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটি মারা যায়।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

এফআরবিস শনাক্ত: সত্যিই কি ভিনগ্রহীরা সংকেত পাঠাচ্ছে?

এফআরবিস শনাক্ত: সত্যিই কি ভিনগ্রহীরা সংকেত পাঠাচ্ছে?

হলিউড সিনেমা বা সাইন্সফিকশন গল্পে প্রায়ই এলিয়েনের দেখা মেলে। তবে পৃথিবীর বাইরে সত্যিই প্রাণের অস্তিত্ব আছে কিনা, সে এক অজানা রহস্য। এই রহস্য সমাধানে বিজ্ঞানীরা দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

স্বাস্থ্য

মনোযোগ বৃদ্ধি করে যেসব খাবার

মনোযোগ বৃদ্ধি করে যেসব খাবার

অস্বীকার করার উপায় নেই যে আমরা যখন বৃদ্ধ হয়ে যাই, সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দেহও বার্ধক্যে উপনীত হয়। তবে, আনন্দের খবর হলো একটু হিসেব করে দৈনন্দিন জীবনের খাদ্যাভাস নির্বাচন করলে আমরা নিজেদের মস্তিষ্ক সুস্থ রাখতে পারি।