• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭

যেভাবে মানবসেবায় অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

যেভাবে মানবসেবায় অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

ফিচার ডেস্ক১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:২৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। অস্কার বিজয়ী অভিনেত্রী, চলচ্চিত্র পরিচালক ও একজন মানবাধিকার কর্মী। বর্তমান বিশ্বের বিখ্যাত সেলিব্রেটিদের একজন। পেশাগত জীবনের পাশাপাশি জাতিসংঘ শরনার্থী বিষয়ক হাইকমিশনের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করেছেন।

জোলি ১৯৭৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লস এঞ্জেলসে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা-মা দুজনই অভিনয়জগতের। তাই পরিবারের প্রভাবেই অভিনয় জগতে তার পথ চলা।

১১ বছর বয়সেই তিনি লি স্ট্রাসবার্গ থিয়েটার ইনস্টিটিউটে ভর্তি হন। এখান থেকেই তার অভিনয়জীবনের যাত্রা শুরু।

পরবর্তীতে তিনি নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিল্ম স্টাডিজ বিষয়ে পড়াশুনা করেন। ১৬ বছর বয়স থেকে তিনি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মডেলিং শুরু করেন এবং কিছু মিউজিক ভিডিও করেন।

তবে বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর রমণী জোলির শৈশব সুখকর ছিল না। কারণ তিনি খুব চিকন ছিলেন এবং চশমা পরতেন বলে তার সহপাঠীরা তাকে নিয়ে ঠাট্টা করত।

তাছাড়া বাবার সঙ্গে তার সম্পর্ক খুব একটা ভালো ছিল না। তাই তার কৈশোর কেটেছে চরম হতাশায়।

১৯৯৩ সালে ‘সাইবর্গ ২’ ফিল্মে অভিনয়ের মাধ্যমে তার পেশাদার চলচ্চিত্রের কর্মজীবন শুরু হয়। এ সময় বেশ কিছু চলচ্চিত্রে তিনি ছোট ছোট চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। তবে চলচ্চিত্রগুলো বাণিজ্যিকভাবে খুব একটা সফল না হওয়ায় তিনি তেমন খ্যাতি পাননি।

১৯৯৭ সালে তিনি ‘জর্জ ওয়ালেস’ মুভিতে অভিনয় করে বাজিমাত করেন। এ ছবিতে বিচ্ছিন্নতাবাদী গভর্নর আলাবামার দ্বিতীয় স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য তিনি প্রথম গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার পান।

সেই থেকে হলিউডে জোলির জয়রথ শুরু। একে একে তিনি ‘গিয়া কারঙ্গি’ (১৯৯৮), ‘দ্য বোন কালেক্টর’ (১৯৯৮), ‘গার্ল ইন্টারাপ্টেড’সহ (১৯৯৯) বেশকিছু ছবিতে মূল অভিনেত্রী হিসেবে অভিনয় করেন।

‘গার্ল ইন্টারাপ্টেড’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসেবে তিনি গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড ও অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসহ তিনটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতেন।

অপরূপ সৌন্দর্য আর আবেদনময়ী চেহারার জন্য হলিউড ছাড়িয়ে সারা বিশ্বে তার খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে।

২০০০ সালে ‘লারা ক্রফট: টম্ব রাইডার’ ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন জোলি। এটি তার অভিনিত বাণিজ্যিকভাবে সবচেয়ে সফল ছবি। ছবিটি ওই বছরে হলিউডের বাণিজ্যিকভাবে সবচেয়ে সফল ছবির স্বীকৃতি পায়। এভাবে জোলি হয়ে ওঠেন হলিউডের সবচেয়ে দামি তারকাদের একজন। তিনি যে ছবিতেই অভিনয় করেছেন তা বাণিজ্যিকভাবে সফল হয়েছে।

তার অভিনিত সফল চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে বেউলফ (২০০৭), ওয়ান্টেড (২০০৮), কুং ফু পান্ডা (২০০৮), সল্ট (২০১০), মেইলফিসেন্ট (২০১৪) ইত্যাদি।

এছাড়া ‘অ্যা প্লাস ইন টাইম’ (২০০৭), যুগোস্লাভ যুদ্ধ নিয়ে ‘ইন দ্য ল্যান্ড অফ ব্লাড এন্ড হানি’(২০১১) ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ নিয়ে ‘আনব্রোকেন’সহ (২০১৪) বেশ কিছু ছবির সফল পরিচালনা করেছেন জোলি।

লারা ক্রাফট ছবিতে অভিনয়ের ফলে মানবসেবামূলক কাজের প্রতি তার প্রবল আগ্রহ বেড়ে যায়। এক পর্যায়ে তিনি জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ‘ইউএনএইচসিআর’ এর শুভেচ্ছা দূত হিসেবে দায়িত্ব পান এবং এ কাজে তিনি সক্রিয় হয়ে ওঠেন। তিনি ২০১২ সালে সাবেক হাইকমিশনার অ্যান্তনিয় গুতেরেসের বিশেষ দূত হিসেবে কাজ করেছেন।

জোলি সুদানের দারফুর, সিয়েরালিওন ও আফগানিস্থানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গেছেন এবং মানবসেবায় তার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। বিশেষ করে সুবিধা বঞ্চিত শরণার্থী শিশুদের স্বার্থ সংরক্ষণ ও শিক্ষার অধিকার নিয়ে কাজ করেছেন তিনি।

তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে কাজ করেছেন এবং শিশুদের জন্য শিক্ষানীতি প্রণয়নে ভূমিকা রেখেছেন।

২০১১ সালে তিনি আইনজীবীদের নিয়ে ‘জোলি লিগ্যাল ফেলোশিপ’ নামে সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। এটি উন্নয়নশীল দেশে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে।

জোলি তার সমস্ত আয়কে তিন ভাগ করেছেন। যার এক ভাগ ভবিষ্যত সঞ্চয়ের জন্য, আরেকভাগ ব্যক্তিগত খরচের জন্য এবং অবশিষ্ট এক ভাগ মানবসেবায় ব্যয় করার জন্য বরাদ্দ রেখেছেন।

এভাবেই পেশাগত জীবনের বাইরে গিয়ে বিশ্বব্যাপী মানবিক সহায়তায় নিবেদিত হয়ে পড়েন হলিউডের সবচেয়ে সুন্দরী অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি।

করোনায় আরও ৩৬ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ১১০৬

করোনায় আরও ৩৬ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ১১০৬

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৬ জনের

রাজধানীতে স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড়ে গিয়ে ধর্ষণের শিকার নারী, গ্রেপ্তার ২

রাজধানীতে স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড়ে গিয়ে ধর্ষণের শিকার নারী, গ্রেপ্তার ২

রাজধানী ঢাকায় মুমূর্ষু স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড় করতে গিয়ে ধর্ষণের

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: ঘটনা তদন্তে কমিটি, ২ গার্ড বরখাস্ত

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: ঘটনা তদন্তে কমিটি, ২ গার্ড বরখাস্ত

সিলেটের মুরারীচাঁদ (এমসি) কলেজে ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের

জাতীয়

অতিরিক্ত সচিব হলেন ৯৮ কর্মকর্তা

অতিরিক্ত সচিব হলেন ৯৮ কর্মকর্তা

প্রশাসনের উর্ধ্বতন পর্যায়ে অতিরিক্ত সচিব পদে ৯৮ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দিয়েছে সরকার। দুটি আলাদা প্রজ্ঞাপনে ৯৮ জন যুগ্মসচিবকে পদোন্নতি দিয়ে অতিরিক্ত সচিব করা হয়েছে।

আইন আদালত

স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: প্রধান আসামি মিজানুর সাত দিনের রিমান্ডে

স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: প্রধান আসামি মিজানুর সাত দিনের রিমান্ডে

ঢাকার সাভারে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী নীলা রায়কে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি মিজানুর রহমানের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

জাতীয়

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: প্রধান আসামি সাইফুরের কক্ষ থেকে অস্ত্র উদ্ধার, মামলা

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: প্রধান আসামি সাইফুরের কক্ষ থেকে অস্ত্র উদ্ধার, মামলা

সিলেটের মুরারীচাঁদ (এমসি) কলেজে ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমানের কক্ষে অভিযান চালিয়ে একটি পাইপগানসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। শনিবার ভোররাতে এ অভিযান চালানো হয়।

জাতীয়

ডোপ টেস্টে পজিটিভ: চাকরি হারাচ্ছেন ২৬ পুলিশ সদস্য

ডোপ টেস্টে পজিটিভ: চাকরি হারাচ্ছেন ২৬ পুলিশ সদস্য

ডোপ টেস্ট পজিটিভ হওয়ায় ২৬ পুলিশ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।

জাতীয়

সেফটি পিনের চেইন বানিয়ে গিনেস বুকে বাংলাদেশের পার্থ

সেফটি পিনের চেইন বানিয়ে গিনেস বুকে বাংলাদেশের পার্থ

সেফটি পিন দিয়ে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ চেইন বানিয়ে গিনেস বুকে নাম লেখালেন বাংলাদেশী পার্থ চন্দ্র দেব। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক গ্রামে তাঁর বাড়ি। তিনি একই গ্রামের মৃত জগদীশ চন্দ্র দেবের ছেলে।

স্বাস্থ্য

ঘরোয়া উপায়ে কফ থেকে মুক্তি

ঘরোয়া উপায়ে কফ থেকে মুক্তি

আপনি চাইলেই সে অর্থে সর্দি জ্বর বা ফ্লু চিকিৎসা করতে পারবেন না, তবে এসব রোগের উপসর্গ হিসেবে দেখা দেয়া কফ, কাশি এবং গলা ব্যথা উপশম করতে পারবেন।