• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬

জন অ্যাডামস: আইনজীবী থেকে প্রেসিডেন্ট

জন অ্যাডামস: আইনজীবী থেকে প্রেসিডেন্ট

ফিচার ডেস্ক৩১ অক্টোবর ২০১৮, ০১:০৮পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মার্কিন মুল্লুকের প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট ছিলেন জন অ্যাডামস (১৭৩৫-১৮২৬)। ১৭৩৫ সালের ৩০ অক্টোবর মেচাচুসেটস এর কুইন্সি শহরে তাঁর জন্ম। হার্ভার্ড থেকে ¯œাতকোত্তর করা অ্যাডামসের জীবনের লক্ষ্য শিক্ষকতা হলেও ১৭৫৮ সালে তিনি আইন পেশায় যোগ দেন। এসময় বৃটিশ কর্তৃক প্রণীত স্ট্যাম্প অ্যাক্ট এর বিরোধিতা করে তিনি বেশ আলোচনায় চলে আসেন।

আমেরিকার স্বাধীনতা ঘোষণার খসড়া রচনায়ও তার অবদান রয়েছে। আমেরিকার স্বাধীনতা আন্দোলনে ছিলেন অগ্রপথিক। যার সুবাদে ১৭৫৮ সালে তিনি ফ্রান্সে কমিশনার নিযুক্ত হন। বৃটেন এবং ফ্রান্সের মধ্যে সমঝোতা প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখায় তিনি ১৭৮৫ সালে বৃটেনে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিযুক্ত হন।

১৭৮৯ সালে তিনি জর্জ ওয়াশিংটনের অধীনে আমেরিকার প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ১৭৯৬ সালের নির্বাচনে বন্ধু থমাস জেফারসনকে পরাজিত করে আমেরিকার দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। তার প্রেসিডেন্সিকালে বৃটেন ও ফ্রান্সের মধ্যে যুদ্ধ বাঁধলে এ নিয়ে মার্কিন-ফ্রান্স সম্পর্কে অবনতি ঘটে।

এসময় উত্তেজনা দেখা দিলেও তিনি কোনরূপ যুদ্ধ ঘোষণা করেন নি। যদিও বিদেশি শক্তি ও সরকারের সমালোচকদের বিরুদ্ধে শরিক আইনের প্রয়োগ করলে তার জনপ্রিয়তা হ্রাস পায়। পরিণতিতে ১৮০০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বন্ধু জেফারসনের কাছে পরাজিত হন এবং জেফারসন তৃতীয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।

তিনি ২৯ বছর বয়সে অ্যাবিগাইল স্মিথকে বিয়ে করেন এবং তাদের ছয়জন সন্তান ছিলো। রাষ্ট্রপতি পদ হারানোর পর তিনি খুব একান্তেই স্ত্রীর সাথে কুইন্সি শহরে থাকতেন। এসময় বন্ধু জেফারসনের সাথে নিয়মিত যোগাযোগও রাখতেন।

১৮২৬ সালের ৪ঠা জুলাই আমেরিকার ৫০তম স্বাধীনতা বার্ষিকিতে একই দিনে অ্যাডামস ও তাঁর বন্ধু জেফারসন মারা যান। মৃত্যুকালে তার শেষ কথাটি ছলো-“থমাস জেফারসন বেঁচে থাক”।

পরবর্তীতে তাঁরই পুত্র জন কুইন্সি অ্যাডামস আমেরিকার ষষ্ঠ প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।

ফেনীতে ফাঁসির মঞ্চ নেই, কুমিল্লা ও চট্টগ্রামে যাচ্ছে নুসরাতের খুনিরা

ফেনীতে ফাঁসির মঞ্চ নেই, কুমিল্লা ও চট্টগ্রামে যাচ্ছে নুসরাতের খুনিরা

মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ এস এম

তুরিনের অভিযোগ: ‘আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়নি’

তুরিনের অভিযোগ: ‘আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়নি’

তুরিন আফরোজ বলেন, ‘আমাকে কোনো তদন্তের ভেতর দিয়ে নিয়ে যাওয়া

চবিতে অন্ধ ছাত্রকে ছাত্রলীগ কর্মীর বেধড়ক পিটুনি

চবিতে অন্ধ ছাত্রকে ছাত্রলীগ কর্মীর বেধড়ক পিটুনি

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার (১০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের

জাতীয়

শতভাগ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ তিন চার বছরের মধ্যে: প্রতিমন্ত্রী

শতভাগ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ তিন চার বছরের মধ্যে: প্রতিমন্ত্রী

‘দক্ষিণ কোরিয়া তাদের দেশে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে সময় নিয়েছে ৫০ বছর। আমাদের অতটা সময় লাগবে না। আমি কখনোই বলিনি যে সারা দেশে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পেরেছি। তবে আমরা ৩ থেকে ৪ বছরের মধ্যে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারব’।

রাজনীতি

সব স্তরের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান: কাদের

সব স্তরের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান: কাদের

দলের পাশাপাশি রাষ্ট্র ও সমাজের সব স্তরের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান বিস্তৃত করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আইন আদালত

মানবাধিকার কমিশন ঘুমাচ্ছে: হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ

মানবাধিকার কমিশন ঘুমাচ্ছে: হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ

২০১৩ সালে খাদিজাকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় একটি জাতীয় পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মানবাধিকার সংগঠন ‘চিলড্রেন চ্যারিটি ফাউন্ডেশন’-এর পক্ষ থেকে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে চিঠি দেওয়া হয়। এরপর পাঁচ বছর কেটে গেলেও কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ায় ২০১৮ সালের ২২ ডিসেম্বর হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।

রাজনীতি

পীরগঞ্জ উপজেলা আ. লীগের সদস্য হলেন জয়

পীরগঞ্জ উপজেলা আ. লীগের সদস্য হলেন জয়

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। কমিটিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা ও তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে এক নম্বর সদস্য করা হয়েছে।

জাতীয়

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজকে অপসারণ   

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজকে অপসারণ  

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে প্রসিকিউটর ড. তুরিন আফরোজকে অপসারণ করা হয়েছে। পেশাগত অসদাচরণ, শৃঙ্খলা ও আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে তাকে অপসারণ করা হয়েছে।

বিনোদন

‘শ্রোতাদের কাছে আরও ঋণী হয়ে গেলাম’

‘শ্রোতাদের কাছে আরও ঋণী হয়ে গেলাম’

বাংলাদেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আঁখি আলমগীর। ১৯৮৪ সালে চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ার সময় বাবার সাথেই প্রয়াত আমজাদ হোসেন পরিচালিত ‘ভাত দে’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন তিনি। সেই সিনেমাতে অভিনয়ের পর শিশু শিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন আঁখি।