• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭

বাংলাদেশে ব্যবসা বাড়াতে চায় স্লোভেনিয়া

বাংলাদেশে ব্যবসা বাড়াতে চায় স্লোভেনিয়া

সেন্ট্রাল ডেস্ক১৫ এপ্রিল ২০১৯, ০৭:৩৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক বাড়াতে আগ্রহী স্লোভেনিয়া। বাংলাদেশে নিযুক্ত স্লোভেনিয়ার রাষ্ট্রদূত যোজেফ ড্রোফেনিক সোমবার কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে সচিবালয়ে তার অফিসকক্ষে সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেন।

বাসস জানায়, এ সময় উভয়ের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক নানা বিষয়ে আলোচনা হয়। বাংলাদেশের উন্নয়নে স্লোভেনিয়ার কাজ করার আগ্রহের কথাও জানান রাষ্ট্রদূত।

কৃষিমন্ত্রী বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক জোরদার করতে স্লোভেনিয়ার ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরামর্শ দিবেন।

বাংলাদেশ থেকে স্লোভেনিয়া তৈরি পোশাক, শাকসবজি ও ফল আমদানি করতে পারে। তেমনি স্লোভেনিয়া থেকে বাংলাদেশ কৃষি-যন্ত্রপাতি আমদানি করতে পারে। খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশের স্বনির্ভরতা অর্জনসহ আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে সরকার গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম এবং নানা অর্জন সম্পর্কে কৃষি মন্ত্রী রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন।

কৃষি মন্ত্রী বলেন, দেশ এখন এগিয়ে চলছে উন্নয়নের পথে। বর্তমান সরকার উন্নয়নের পথ মসৃণে সবরকম পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

দেশে একশটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল তৈরির কথা উল্লেখ করে আব্দুর রাজ্জাক বলেন, যেখানে ইতোমধ্যে অনেক দেশের বিনিয়োগকারীরা শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনসহ বিনিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছে। এছাড়া দেশে এখন কোনো বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সমস্যাও নেই। যে কোনো শিল্প কলকারখানা স্থাপনের জন্য বাংলাদেশ এখন আদর্শ স্থান। বাংলাদেশ থেকে স্লোভেনিয়া সিরামিক, উচ্চ মানসম্পন্ন ওষুধসহ কৃষি পণ্য আমদানি করতে পারে বলেও মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

১৯৯৬ সালে স্লোভেনিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা পেলেও দু’দেশের সম্পর্ক বেশ পুরনো। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের পর যুদ্ধাহত অনেক মুক্তিযোদ্ধা চিকিৎসার জন্য তৎকালীন যুগোস্লাভিয়ার অন্তর্ভুক্ত দেশটিতে গিয়েছিলেন।

 

টাইমস/এসআই

চালের দাম নির্ধারণ করে দিল সরকার

চালের দাম নির্ধারণ করে দিল সরকার

ভালো মানের ৫০ কেজি ওজনের এক বস্তা মিনিকেট চালের দাম

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ, চুল দাড়ি কেটে লম্পটের ছদ্মবেশ!

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ, চুল দাড়ি কেটে লম্পটের ছদ্মবেশ!

তারেকুল ইসলাম ওরফে তারেক আহমদ। কয়েকদিন আগেও তার বড় বড়

কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ’র মৃত্যু

কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ’র মৃত্যু

কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল-আহমেদ আল-সাবাহ মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি

অর্থনীতি

প্রথম চালানে মিয়ানমার থেকে এলো ৫৮ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

প্রথম চালানে মিয়ানমার থেকে এলো ৫৮ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

মিয়ানমার থেকে আমদানি করা দুই কনটেইনারে ৫৮ মেট্রিক টন পেঁয়াজ চট্টগ্রাম বন্দরে এসে পৌঁছেছে। ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার পর বিকল্প বাজার থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের প্রথম চালানটি এটি।

জাতীয়

করোনায় আরও ২৬ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ১৪৮৮

করোনায় আরও ২৬ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ১৪৮৮

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচ হাজার ২১৯ জনে। এই সময়ে নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ৪৮৮ জন। ফলে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল তিন লাখ ৬২ হাজার ৪৩ জনে।

জাতীয়

যশোরে দিন-দুপুরে বোমা ফাটিয়ে ‘১৭ লাখ টাকা’ ছিনতাই

যশোরে দিন-দুপুরে বোমা ফাটিয়ে ‘১৭ লাখ টাকা’ ছিনতাই

যশোর থানার একশ গজের মধ্যে দিনে-দুপুরে বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ও ছুরি মেরে ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১৭ লাখ টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার দুপুরে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার পাশে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবি) সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুইজন আহত হয়েছেন।

জাতীয়

টিকটক মডেল বানানোর ফাঁদে সিরিয়াল ধর্ষণ, ৪ ছাত্রীর সর্বনাশ!

টিকটক মডেল বানানোর ফাঁদে সিরিয়াল ধর্ষণ, ৪ ছাত্রীর সর্বনাশ!

টিকটকের কথিত মডেল দেওয়ান রসুল হৃদয়। তিনি মডেল বানানোর ফাঁদে ফেলে ছাত্রীদের সিরিয়াল ধর্ষণের ঘটনার জন্ম দিয়েছেন। একে একে তিনি ৪ ছাত্রীর

আইন আদালত

মাস্ক কেলেঙ্কারি: পাঁচ দিনের রিমান্ডে জেএমআই চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক

মাস্ক কেলেঙ্কারি: পাঁচ দিনের রিমান্ডে জেএমআই চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক

নকল এন ৯৫ মাস্ক ও নিম্নমানের চিকিৎসা সরঞ্জাম কেনার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় গ্রেপ্তার জেএমআই’র চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাকের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মতামত

গার্লফ্রেন্ডের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে ৩৮ বছর ধরে অপেক্ষা!

গার্লফ্রেন্ডের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে ৩৮ বছর ধরে অপেক্ষা!

ছবির লোকটাকে দেখে প্রথমেই কী ধারণা আসছে আপনার মনে? রাস্তা থেকে ধরে ছবি তুলছি মনে হয়? নাকি প্রান্তিক শ্রেণির কর্মজীবী মনে হয়?