• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭

ইলিয়াস কাঞ্চনকে অপমানের প্রতিবাদে রাস্তায় শিল্পীরা

ইলিয়াস কাঞ্চনকে অপমানের প্রতিবাদে রাস্তায় শিল্পীরা

ফাইল ছবি

বিনোদন প্রতিবেদক২৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

ঢালিউড সিনেমার কিংবদন্তী অভিনেতা ও ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন। তাকে পরিবহন শ্রমিকদের নোংরা ভাষায় অপমান ও হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৮টি সংগঠন।

ঘটনার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাতে সোমবার দুপুর ১২টায় এফডিসির গেটের সামনে মানববন্ধন করেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন, শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান প্রমুখ।

মানববন্ধনে শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন, ইলিয়াস কাঞ্চন আমাদের কাছে একজন সম্মানী লোক, সম্মানী শিল্পী। দেশের মানুষের রাস্তায় নিরাপদে চলাচলের জন্য ২৫ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। মানুষের কল্যাণেই নিবেদিত এক প্রাণ।

ইলিয়াস কাঞ্চনকে অপমান করা মানে শিল্পী সমাজকেই অপমান করা। আমরা তার অপমান সহ্য করবো না। শিল্পীদের রাস্তায় নামতে বাধ্য করবেন না। সেইসঙ্গে অবিলম্বে নতুন সড়ক আইন বাস্তবায়ন করারও দাবি তোলেন তিনি।

পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, আমরা ইলিয়াস কাঞ্চনের পাশে আছি। তিনি বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের রাস্তায় নিরাপদে চলতে কাজ করে যাচ্ছেন। যারা পরিবহন শ্রমিক তাদের নিরাপত্তার জন্যও তার দাবি ভূমিকা রাখবে। তাহলে তাকে কেন অপমান করা হচ্ছে? আমরা চাই, ইলিয়াস কাঞ্চনকে কেউ ভুল না বুঝে তার দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে সেগুলো বাস্তবায়নে সহমত পোষণ করুক।

২৫ বছর ধরে ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের জন্য সুপারম্যানের মতো একাই লড়ে যাচ্ছেন ইলিয়াস কাঞ্চন। ১৯৯৩ সালে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় স্ত্রী জাহানারার মৃত্যুর পর থেকে তিনি নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। এই সামাজিক আন্দোলনকে তিনি বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দিয়েছেন। দেশবাসীকে করেছেন সচেতন। রাষ্ট্রকে দিয়েছেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ।

এমনকি এই কারণে রাষ্ট্র তাকে একুশে পদকে সম্মানিত করেছে। এমন প্রিয় ব্যক্তিত্বের ওপর পরিবহন শ্রমিকদের নোংরা ভাষায় অপমান ও হামলার হুমকিতে ক্ষেপেছেন চলচ্চিত্রের মানুষেরা। ঘটনার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাতে মাঠে নামলেন তারা।

মানববন্ধনের ডাক দেওয়া ১৮ সংগঠনের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক, শিল্পী, নৃত্যশিল্পী, চিত্রগ্রাহক, ফাইট ডিরেক্টর, সহকারী পরিচালকদের সমিতিগুলো।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন নায়িকা অঞ্জনা, অরুণা বিশ্বাস, চিত্রনায়ক ইমন, আলেক জান্ডার বো, মারুফ, পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান, শাহিন সুমন, ফিল্মক্লাবের সভাপতি আতিকুর রুহমান লিটন ও চলচ্চিত্র পরিবারের নেতারা।

 

টাইমস/জেকে/এইচইউ

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই, আরও ২৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই, আরও ২৯ জনের মৃত্যু

দেশে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। গত ২৪

করোনায় শারীরিক দূরত্বের ফলে বাড়ছে মানসিক চাপ

করোনায় শারীরিক দূরত্বের ফলে বাড়ছে মানসিক চাপ

দিন যত যাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ ততোই বাড়ছে। যার কোনো

করোনাকালে ইমিউনিটি বাড়াতে দূরে থাকুক চিনি

করোনাকালে ইমিউনিটি বাড়াতে দূরে থাকুক চিনি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কথা বার বার

স্বাস্থ্য

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

বিশ্বের বহু দেশেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর একটি জনপ্রিয় ব্যবস্থা হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার। বিশেষ করে চীনে, যেখান থেকে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা, সেখানেও মানুষ বায়ুর দূষণের হাত থেকে বাঁচতে হরহামেশা নাক আর মুখ ঢাকা মুখোশ পরে ঘুরে বেড়ায়। কিন্তু, অনেকক্ষণ ধরে মাস্ক ব্যবহার করলে কিংবা একাধিক মাস্ক একসঙ্গে একটির ওপর আরেকটি রেখে ব্যবহার করলে অক্সিজেনের ঘাটতি হতে পারে।

স্বাস্থ্য

বাংলাদেশের করোনা রোগীদের ওপর টিকার পরীক্ষা চালাতে চায় চীন, ইতিবাচক সারা সরকারের

বাংলাদেশের করোনা রোগীদের ওপর টিকার পরীক্ষা চালাতে চায় চীন, ইতিবাচক সারা সরকারের

চীনের রাষ্ট্রীয় ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি সিনোভ্যাক বায়োটেক লিমিটেডের তৈরি করোনাভাইরাস ঠেকাতে সম্ভাব্য একটি ভ্যাকসিন ব্রাজিলে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমতি পেয়েছে। শুক্রবার ব্রাজিলের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ আনভিসা এ অনুমোদন দেয়। ব্রাজিলের সাও পাওলো রাজ্যের সরকারি গবেষণা কেন্দ্র ইন্সটিটিউট বুটান্টানের নেতৃত্বে ভ্যাকসিনটির পরীক্ষা হবে।

স্বাস্থ্য

করোনা থাকবে, সবাইকে মানিয়ে চলতে হবে

করোনা থাকবে, সবাইকে মানিয়ে চলতে হবে

বিশ্বে করোনাভাইরাস মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ এখনও শুরু হয়নি; কারণ প্রথম ধাক্কাই এখনও কাটেনি। এ পর্যন্ত এক কোটির বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ভাইরাসটি ছড়িয়েছে বিশ্বের প্রায় সবখানেই। চীন, তাইওয়ান, ভিয়েতনামের মতো কিছু দেশ মহামারী নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এখন তাণ্ডব চলছে লাতিন আমেরিকা, দক্ষিণ এশিয়ায়। যুক্তরাষ্ট্রের মতো আরও কিছু দেশ নিয়ন্ত্রণ হারানোর পথে রয়েছে। আফ্রিকার দেশগুলো রয়েছে মহামারীর প্রাথমিক পর্যায়ে।

জাতীয়

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল, ঢাকার চার প্রকৌশলী বরখাস্ত

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল, ঢাকার চার প্রকৌশলী বরখাস্ত

ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল করার অভিযোগে ঢাকা পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ডিপিডিএস) ৪ প্রকৌশলীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া আরও ৩৬ প্রকৌশলীকে শোকজ করা হয়েছে।

জাতীয়

করোনায় স্থগিত যশোর-বগুড়ার উপনির্বাচন ১৪ জুলাই

করোনায় স্থগিত যশোর-বগুড়ার উপনির্বাচন ১৪ জুলাই

আগামী ১৪ জুলাই যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। শনিবার বিকালে কমিশন সভায় এই দুই আসনে উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর।

স্বাস্থ্য

হাই ব্লাড প্রেসারে ভয়াবহ হতে পারে কোভিড সংক্রমণ

হাই ব্লাড প্রেসারে ভয়াবহ হতে পারে কোভিড সংক্রমণ

দীর্ঘদিন ধরে রক্তচাপজনিত অসুখ বা হাই ব্লাড প্রেসারের সমস্যায় ভুগছেন, এসব ব্যক্তির ক্ষেত্রে লিঙ্গ, বয়স নির্বিশেষে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটাই বেশি। তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকি কেন বেশি, এই নিয়ে ক্লিনিক্যাল মেডিসিন জার্নালের রিসার্চ বলছে, উচ্চ রক্তচাপ মানেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। তাই ভাইরাস যুদ্ধে জয়ের সম্ভাবনাও কম।