• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

করোনার শুরু থেকেই গৃহবন্দী অর্ষা যে কারণে ‘বিষণ্ণ’

করোনার শুরু থেকেই গৃহবন্দী অর্ষা যে কারণে ‘বিষণ্ণ’

নাজিয়া হক অর্ষা

বিনোদন প্রতিবেদক২০ মে ২০২০, ০১:১৯এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

লাক্সতারকা নাজিয়া হক অর্ষা। ছোট পর্দার কাজ নিয়ে প্রায়ই ব্যস্ত সময় কাটান তিনি। তবে এখন একেবারেই ফ্রি অর্ষা! কাজ বলতে নিজের বাসা গুছানো, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও নিজেকে সময় দেয়া ছাড়া আর কিছু নেই।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে অর্ষা এখন পুরোপুরি গৃহবন্দী আছেন নিজ ঘরে। এক সেকেন্ডের জন্যই বের হচ্ছেন না তিনি। এমনকি ঈদের কোন কেনাকাটাও করেননি এবার।

এই প্রসঙ্গে অর্ষার ভাষ্য, ‘পুরোপুরি নতুন এক মহামারির কবলে আমরা। আর আগে এ ভাইরাস সম্পর্কে কেউই কিছুই জানতাম না। এমনকি পুরো বিশ্ব স্থবির হয়ে পড়েছে ভাইরাসটিতে। কোনো দেশ এর প্রতিষেধকও তৈরি করতে পারেনি। ফলে এমন পরিস্থিতিতে ঝুঁকি নিয়ে বাইরে যাওয়ার কোনো মানে নেই।

সবকিছুর আগে জীবন পরে কাজ। এই কারণে দেশে করোনার প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে ঘরবন্দি আছি। নিজের কথা ভেবে, পরিবারের কথা ভেবে পুরোপুরি বাসায় থাকছি।’

তবে এসময় একটা বিষয় নিয়ে বিষণ্ণ অর্ষা। বলেন, ‘‘লকডাউনের আগেই ‘সুন্দরী’ নামে নতুন একটি ওয়েব সিরিজের শুটিং শুরু করেছিলাম। যার মাত্র দুই দিনের কাজ বাকি ছিল। কিন্তু টানা লকডাউন থাকায় কাজটি আটকে গেছে। ’’

অর্ষা আরও বলেন, ‘‘৭ পর্বের এই ওয়েব সিরিজের গল্পটি দারুণ। আমরা উৎসাহ নিয়েই কাজটি শুরু করেছি। কিন্তু শেষ করার সুযোগ মিলেনি। করোনাভাইরাসের কারণে শুটিং বন্ধ হয়ে যায়। তাই মনটা বিষণ্ণ। তবে লকডাউন খোলার পরপরই এর শুটিং শেষ করা হবে বলে জেনেছি।’’

ওয়েব সিরিজটির গল্প প্রসঙ্গে অর্ষা বলেন, ‘‘একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে এর গল্প আবর্তিত হয়েছে। গত মার্চের প্রথম দিকে এর কাজ শুরু করেন পরিচালক সানিয়াত হোসেন। শ্রীমঙ্গলে শুটিং করে ঢাকায় ফেরার পরই লকডাউনে পড়ে শুটিং টিম।’’

এদিকে করোনাকালে আরো তিনটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন অর্ষা। ‘সেন্ড মি নুডস’, ‘দ্বিতীয় কৈশোর’ ও ‘হারেস’, প্রত্যেকটিতে ভিন্ন ভিন্ন রূপে দেখা যাবে তাকে।

এদিকে অর্ষা অভিনীত ‘ভদ্রপাড়া’ নাটকটি বাংলাভিশনে প্রচার হচ্ছে। এটি পরিচালনা করেছেন সকাল আহমেদ।

 

টাইমস/জেকে

‘করোনায় অযথা দামি ইনজেকশন নয়, খরচ মাত্র ১০০ টাকা’

‘করোনায় অযথা দামি ইনজেকশন নয়, খরচ মাত্র ১০০ টাকা’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন করোনাভাইরাসে

সব পাবলিক-প্রাইভেট ভার্সিটি ১৫ জুন পর্যন্ত ছুটি

সব পাবলিক-প্রাইভেট ভার্সিটি ১৫ জুন পর্যন্ত ছুটি

সব পাবলিক ও প্রাইভেট ভার্সিটিতে ছুটি বৃদ্ধি করা হয়েছে। আগামী

অন্যদের বাঁচাতে প্লাজমা দিলেন করোনাজয়ী ভাই-বোন

অন্যদের বাঁচাতে প্লাজমা দিলেন করোনাজয়ী ভাই-বোন

করোনা ভাইরাসকে জয় করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী মাহপারা তাসনীম ও তার

জাতীয়

প্রেমিককে আটকে ছাত্রীকে ধর্ষণ, মুক্তিপণ চেয়ে আটক বখাটেরা!

প্রেমিককে আটকে ছাত্রীকে ধর্ষণ, মুক্তিপণ চেয়ে আটক বখাটেরা!

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ার পটিখালঘাটায় প্রেমিককে আটকে রেখে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয় তাদের আটকে রেখে মুক্তিপণও

আন্তর্জাতিক

করোনাভাইরাসে ১৮ দেশে ৭১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

করোনাভাইরাসে ১৮ দেশে ৭১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

করোনাভাইরাসে দেশের বাইরেও মৃত্যুর মিছিল থামছে না। এপর্যন্ত আমেরিকাসহ ১৮ দেশে ৭১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে

জাতীয়

করোনা: একদিনে রেকর্ড ২৫২৩ জন শনাক্ত, ২৩ জনের মৃত্যু

করোনা: একদিনে রেকর্ড ২৫২৩ জন শনাক্ত, ২৩ জনের মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৫২৩ জন। যা একদিনে আক্রান্তের হিসেবে সর্বোচ্চ। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪২ হাজার ৮৪৪। একই সময়ে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ২৩ জন। এতে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৮২ জনে।

জাতীয়

করোনায় আক্রান্ত পুলিশের ৪৫৪৪ সদস্য, সুস্থ ১৫৬৩

করোনায় আক্রান্ত পুলিশের ৪৫৪৪ সদস্য, সুস্থ ১৫৬৩

মহামারী করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ চার হাজার ৫৪৪ জন সদস্য। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৫৬৩ জন। সুস্থ হওয়াদের মধ্যে বেশির ভাগ পুলিশ সদস্যই পুনরায় কাজে যোগ দিয়েছেন।

জাতীয়

প্রাথমিকের প্রশ্ন যাবে বাড়িতে, অভিভাবকদের সামনে পরীক্ষা!

প্রাথমিকের প্রশ্ন যাবে বাড়িতে, অভিভাবকদের সামনে পরীক্ষা!

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দিনে দিনে বাড়ছে। এরই মাঝে দেশে লকডাউন শিথিল করে দেয়া হচ্ছে। খুলছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। গাড়ি চলাচলও ধীরে

বিনোদন

যেসব শর্তে আবার শুরু হচ্ছে নাটকের শুটিং

যেসব শর্তে আবার শুরু হচ্ছে নাটকের শুটিং

কিছুদিন আগে গত ১৭ মে ৬ শর্ত মেনে নিজ দায়িত্বে শুটিং শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল টিভি নাটকের শীর্ষ সংগঠনগুলো। যদিও এই সিদ্ধান্তের একদিন পরই নিজেদের মধ্যে মতের মিল না হওয়ায় দূরে সরে আসে সংগঠনগুলো।