• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ইনফেকশনের তিন মাসের মধ্যে হৃদরোগ!

ইনফেকশনের তিন মাসের মধ্যে হৃদরোগ!

ফিচার ডেস্ক০১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:২০পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

ইনফেকশনের সঙ্গে হৃদরোগের সম্পর্কে খুঁজে পেয়েছেন গবেষকরা। দেখা গেছে, ব্যক্তির ইনফেকশন হওয়ার তিন মাসের মধ্যে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

হার্টঅ্যাটাক, হৃদরোগ, স্ট্রোক, হাইপারটেনশন ও হৃদযন্ত্রের কার্যহীনতাকে সামষ্টিকভাবে বলা হয় কার্ডিওভাসকুলার ডিসিস বা সিভিডি।

গবেষণায় দেখা গেছে, আমেরিকার প্রায় ৮৪ মিলিয়ন লোক কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত। যেখানে প্রতিদিন গড়ে দুই হাজার ২০০ লোক এ রোগে মারা যায়।

কার্ডিওভাসকুলার ডিসিস (সিভিডি) রোগের পেছনে বেশ কিছু উপাদান জড়িত।

এরমধ্যে ধূমপান, উচ্চমাত্রার কোলেস্টেরল ও উচ্চ রক্তচাপ ইত্যাদি যা মানুষ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। অন্যান্য উপাদান যেমন লিঙ্গ, বয়স, জাতি ও পারিবারিক ইতিহাস ইত্যাদি মানুষ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না।

তবে সাম্প্রতিক কিছু গবেষণায় আরও কিছু উপাদান পাওয়া গেছে যা পরোক্ষভাবে কার্ডিওভাসকুলার রোগের জন্য দায়ী।

কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, ইনফেকশন ও নিউমোনিয়া থেকেও হার্ট অ্যাটাক কিংবা স্ট্রোক হবার ঝুঁকি রয়েছে।

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, ইনফেকশনের সঙ্গে কার্ডিওভাসকুলার রোগের সম্পর্ক রয়েছে।

মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. লক্ষীনারায়ন বলেন, গবেষণায় কার্ডিওভাসকুলার ডিসিসে আক্রান্ত এক হাজার ৩১২ জন রোগীকে পরীক্ষা করা হয়েছে, যাদের ৭২৭ জন রক্তস্বল্পতা জনিত স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এসব রোগীদের অনেকেই ইনফেকশনে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বলে তিনি জানান।

গবেষণায় দেখা গেছে, এসব রোগী কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত হবার ১-২ বছর আগে বিভিন্ন ধরনের ইনফেকশনে ভুগেছিলেন।

আক্রান্ত রোগীদের অধিকাংশের ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন, নিউমোনিয়া ও শ্বাসতন্ত্রের ইনফেকশন হয়েছিল বলে গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়।

গবেষণায় দেখা যায়, হৃদরোগে আক্রান্তদের প্রায় ৩৭ ভাগ তিনমাস ধরে বিভিন্ন ধরনের ইনফেকশনে ভুগছিলেন।

এক্ষেত্রে ইনফেকশনে আক্রান্ত হবার প্রথম দুই মাসে স্ট্রোক বা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।

 

সূত্র: মেডিকেল নিউজ টুডে।

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৩৮১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৩৮১

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ

অগ্নিগর্ভ যুক্তরাষ্ট্র: চার্চে আগুন-ভাংচুর-সংঘর্ষ (ভিডিও)

অগ্নিগর্ভ যুক্তরাষ্ট্র: চার্চে আগুন-ভাংচুর-সংঘর্ষ (ভিডিও)

শেতাঙ্গ পুলিশের নির্যাতনে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তির মৃত্যুর

এসএসসিতে সাফল্য, ঢাবিতে পড়তে চান গোল্ডেন বুটজয়ী আঁখি

এসএসসিতে সাফল্য, ঢাবিতে পড়তে চান গোল্ডেন বুটজয়ী আঁখি

জাতীয় দলের ফুটবলার আঁখি খাতুন এসএসসি পাস করেছেন। খেলার ফাঁকে

রাজনীতি

বাস মালিকদের স্বার্থে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

বাস মালিকদের স্বার্থে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

বাস মালিকদের স্বার্থেই বাসভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। করোনার দোহায় দিয়ে বাসের ভাড়া বৃদ্ধি করা জনগনের জন্য ‘মড়ার ওপর খাড়ার ঘাঁ’ বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

খেলাধুলা

গার্লফ্রেন্ড প্রেগন্যান্ট, বিয়ের আগেই বাবা হচ্ছেন হার্দিক পান্ডিয়া!

গার্লফ্রেন্ড প্রেগন্যান্ট, বিয়ের আগেই বাবা হচ্ছেন হার্দিক পান্ডিয়া!

ভারতের তারকা অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া এবার নতুন চমক নিয়েই হাজির হয়েছেন। চোটের কারণে জাতীয় ক্রিকেট দলের বাইরে ওই ক্রিকেটারের

জাতীয়

বাসভাড়া ৬০% বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট

বাসভাড়া ৬০% বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট

করোনাভাইরাসের পরিস্থিতিতে বাসভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের হয়েছে। সোমবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হুমায়ন কবির পল্লব হাইকোর্ট বিভাগে এই রিট করেন।

আন্তর্জাতিক

ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস

ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস

ইতালির জ্যেষ্ঠ এক চিকিৎসক দাবি করেছেন, ক্ষমতা হারিয়ে ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। সে কারণে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি আর সেভাবে গুরুতর পরিস্থিতিতে পড়ছেন না।

জাতীয়

প্লাজমা থেরাপিতেও বাঁচলেন না ঢাবির সাদা মনের প্রফেসর

প্লাজমা থেরাপিতেও বাঁচলেন না ঢাবির সাদা মনের প্রফেসর

প্লাজমা থেরাপি দিয়েও বাঁচানো গেল না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদা মনের প্রফেসর প্রফেসর ড. শাকিল উদ্দিন আহমদকে। করোনাভাইরাসে

স্বাস্থ্য

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

ইন্টারনেটে যেকোনো তথ্য কিংবা ভিডিও জনপ্রিয় হওয়ার পেছনে রহস্যময় কোনো না কোনো কারণ থাকতে পারে, কিন্তু সঠিক তথ্য প্রদানের সাথে এর কোনো যোগসূত্র নেই বলে মনে করছেন গবেষকরা। বিএমজে গ্লোবাল হেলথ কর্তৃক সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, সার্স-কোভ-২ নিয়ে আলোচনা করা সর্বাধিক দেখা প্রতি চারটি ইউটিউব ভিডিওর মধ্যে একটিতে বিভ্রান্তিমূলক বা ভুল তথ্য রয়েছে।