• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

করোনাভাইরাস অবতার, আমিষভোজীরা ক্ষমা চান: হিন্দু মহাসভা

করোনাভাইরাস অবতার, আমিষভোজীরা ক্ষমা চান: হিন্দু মহাসভা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৬:৪৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

করোনাভাইরাসে নাস্তানাবুদ চীন। সে দেশে এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছুঁইছুঁই। এই ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। এমন পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাস নিয়ে এবার আজব তত্ত্ব প্রকাশ করেছে ভারতের হিন্দু মহাসভা।

সম্প্রতি হিন্দু মহাসভার সর্বভারতীয় সভাপতি চক্রপাণি বলেছেন, করোনাভাইরাস আসলে অবতার। আমিষ ভোজীদের শাস্তি দিতে ও ক্ষুদ্র প্রাণিকুল রক্ষার জন্যই ভাইরাসের আদলে তিনি আবির্ভূত হয়েছেন। আমিষভোজীদের শাস্তি দিতেই তিনি এসেছেন। তাই আমিষভোজীদের উচিত অবতার করোনাভাইরাসের কাছে ক্ষমা চাওয়া।

এতটুকু বলেই থেমে যাননি চক্রপাণি, তিনি আমিষাশীদের আক্রমণ করে বলেন, অবতার করোনাভাইরাস আমিষাশীদের একটা বার্তা দিতে এসেছে। যারা এসব ক্ষুদ্র প্রাণিগুলোকে মেয়ে খেয়ে ফেলছে, তাদের চরম শাস্তি দিতেই অবতার করোনাভাইরাসের আগমন। এর থেকে আমিষাশী ও চীনাদের শিক্ষা নেয়া উচিত।

এছাড়া চক্রপাণি চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির উপায় হিসেবে সে দেশে করোনাভাইরাসের একটি মূর্তি নির্মাণ করার পরামর্শ দিয়েছেন। আর সেই মূর্তিকে পূজো করে আমিষভোজীদের দিয়ে ক্ষমা চাইতে বলেছেন হিন্দু মহাসভার প্রধান।

এর আগেও হিন্দু মহাসভার প্রধান চক্রপাণি করোনাভাইরাস নিয়ে হাস্যকর মন্তব্য করে বলেছিলেন, গরুর গোবর গায়ে মাখলে আর গোমূত্র পান করলে করোনাভাইরাস সেরে যাবে। তার ওই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে চক্রপাণির তত্ত্বগুলো। তারপরও তিনি নিজের মুখে লাগাম না দিয়ে করোনাভাইরাস নিয়ে একের পর এক কাণ্ডজ্ঞানহীন বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। আর এতে চক্রপাণি ও তার প্রচারিত আদর্শ নিয়ে মানুষ হাস্যরস ও সমালোচনা করছে।

ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের দাবি, চক্রপাণির বক্তব্যের মাধ্যমে তার সংগঠনের হিন্দুত্ববাদই প্রমাণ হয়েছে। এছাড়া আমিষাশীরাই যে হিন্দুদের প্রধান বিরোধী ও টার্গেটে পরিণত হয়েছে এটাও স্পষ্ট হয়ে গেছে। তবে এধরণের বক্তব্যের মাধ্যমে তিনি হাস্যকর ব্যক্তিত্বেই পরিণত হয়েছেন।

 

টাইমস/এসএন/এইচইউ

করোনা ধারণার চেয়েও ভয়ঙ্কর : নিউ ইয়র্ক গভর্নর

করোনা ধারণার চেয়েও ভয়ঙ্কর : নিউ ইয়র্ক গভর্নর

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কেন্দ্রস্থল নিউ ইয়র্ক। মঙ্গলবার অঙ্গরাজ্যটির গভর্নর অ্যান্ড্রু

ছুটি ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়বে: প্রধানমন্ত্রী

ছুটি ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়বে: প্রধানমন্ত্রী

মরণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিপূর্ণভাবে ঠেকাতে সব ধরণের ছুটি (সরকারি-বেসরকারি) আরও

কোভিড-১৯ এর চিকিৎসা হবে রোগটি থেকে সেরে ওঠা ব্যক্তির রক্তে

কোভিড-১৯ এর চিকিৎসা হবে রোগটি থেকে সেরে ওঠা ব্যক্তির রক্তে

করোনাভাইরাস সংক্রমিত হবার পর যারা সুস্থ হয়ে উঠেছেন, তাদের রক্তের

উক্তি প্রতিদিন

“ক্ষুধাতুর শিশু চায় না স্বরাজ, চায় দুটো ভাত একটু নুন”

“ক্ষুধাতুর শিশু চায় না স্বরাজ, চায় দুটো ভাত একটু নুন”

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম। ১৮৯৯ সালের ২৪ মে পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার চুরুলিয়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বিদ্রোহী কবি নামে খ্যাত। ১৯৭৪ সালের ৯ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কবিকে সম্মানসূচক ডি.লিট উপাধিতে ভূষিত করে। ১৯৭৬ সালের জানুয়ারি মাসে নজরুলকে বাংলাদেশ সরকার নাগরিকত্ব প্রদান করে। একই বছরে তাকে একুশে পদকে ভূষিত করা হয়।

মতামত

করোনা কি বিশ্বজুড়ে শ্রমিক শ্রেণীকে বিদ্রোহী করে তুলবে?

করোনা কি বিশ্বজুড়ে শ্রমিক শ্রেণীকে বিদ্রোহী করে তুলবে?

করোনাভাইরাসের মহামারী ছড়িয়ে পড়ার ফলে ইতিমধ্যে গৃহবন্দী হয়ে পড়েছেন বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় দুই পঞ্চমাংশ, বুধবার পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে আট লাখ। এই পরিস্থিতিতে সব থেকে বেশি ঝুঁকিতে আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি; বিশ্বের আপামর শ্রমিক শ্রেণী, খেটে খাওয়া দিনমজুর আর স্বল্প আয়ের লোকজন। দেশে দেশে কল কারখানাগুলি বন্ধ হয়ে পড়ছে, খেটে খাওয়া মানুষের আয়ের পথ রুদ্ধ হয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্র কর্তৃক ঘোষিত গৃহবন্দীর ফলে ঘরে আটকে থাকতে হচ্ছে দিন এনে দিন খাওয়া এসব লোকের।

জাতীয়

বাড়ির মালিকদের সহানুভূতিশীল হওয়ার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

বাড়ির মালিকদের সহানুভূতিশীল হওয়ার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

করোনাভাইরাসের কারণে শ্রমিকদের বাড়িভাড়া বিবেচনা করার জন্য বাড়ির মালিকদের সহানুভূতিশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। মঙ্গলবার মন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

আন্তর্জাতিক

গণহারে মাস্ক ব্যবহার বন্ধ করুন: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

গণহারে মাস্ক ব্যবহার বন্ধ করুন: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

গণহারে মাস্ক পরা থেকে বিরত থাকার নির্দেশনা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটি জানিয়েছে, সবাই গণহারে মাস্ক পরার কারণে গুরুত্বপূর্ণ এই চিকিৎসা সরঞ্জামের দাম বিশ্বব্যাপী বেড়ে যেতে পারে। ফলে চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যারা রোগাক্রান্ত অথবা যারা চিকিৎসা সেবা প্রদানের সঙ্গে জড়িত তারাই শুধু মাস্ক ব্যবহার করুন। অন্যদের মাস্ক পরার প্রয়োজনীয়তা নেই।

বিনোদন

সুরে সুরে করোনা প্রতিরোধের নিয়ম শোনাবেন মমতাজ

সুরে সুরে করোনা প্রতিরোধের নিয়ম শোনাবেন মমতাজ

কণ্ঠশিল্পী ও সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম। এবার করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ডাক দিলেন তিনি। ব্র্যাকের উদ্যোগে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে গানটি গেয়েছেন এই শিল্পী।