• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

দুই বছর মাঠে চাষাবাদ করতে হয় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের

দুই বছর মাঠে চাষাবাদ করতে হয় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:০০পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

তিন বছরের স্নাতক স্তর। তার মধ্যে দু’বছরই মাঠে চাষাবাদ করতে হয় শিক্ষার্থীদের। এমনটাই নিয়ম ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের জন্য। চাষিদের সঙ্গে অনেক সময় মাঠেই দিনের পর দিন কাটাতে পর্যন্ত হয় তাদের। বিগত ১০ বছর ধরে এটাই চলে আসছে।

কথা হচ্ছে বেইজিংয়ের চায়না এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি নিয়ে। ২০০৯ সাল থেকে এই নিয়ম চালু করেছে এই বিশ্ববিদ্যালয়। কেন এমন নিয়ম?

আপাতদৃষ্টিতে যা বেশ বিস্ময়কর মনে হচ্ছে, তা কিন্তু বাস্তবে ভীষণই ফলপ্রসূ। এর ফলে চীনের শস্য উৎপাদন কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

চায়না এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি পড়ুয়াদের শুধুমাত্র পাঠ্যবইয়ে আটকে না রেখে, বরং হাতেনাতে প্রশিক্ষিত করার জন্যই এই পরিকল্পনা নিয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

২০০৯ সালে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রথম এই প্রজেক্ট চালু করেন হেবেই প্রদেশের বাইঝাইয়ে। তখন থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এই প্রজেক্টের ফলে হেক্টর প্রতি গম উৎপাদন ৫,৬৭০ কিলোগ্রাম থেকে বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৭,২৭০ কিলোগ্রামে। আর ভুট্টা উৎপাদন ৬,৪৩৫ কিলোগ্রাম থেকে বেড়ে হয়েছে প্রতি হেক্টরে ৯,১০৫ কিলোগ্রামে।

এই সাফল্যে চাষিরাও অবাক হয়ে গিয়েছেন। চাষীরা জানান, প্রথম যখন শিক্ষার্থীরা তাদের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করতে শুরু করেন, তখন তা ভালোভাবে মানতে পারেননি। তাদের মনে হয়েছিল, এতে তাদের কাজের ক্ষতি হবে। চাষের ক্ষতি হবে। কিন্তু হয়েছে উল্টো।

জানা গেছে, শিক্ষার্থীরা নিজেদের পড়াশোনা কাজে লাগিয়ে প্রথমে জমির মাটি পরীক্ষা করে নেন। মাটির প্রকৃতি অনুযায়ী, কোন ধরনের বীজ বপন করা উচিত তা প্রথমে চাষিদের জানান তারা। সেই মতো কোন জমিতে কী শস্য চাষ হবে তার একটা তালিকা বানান।

এর আগে চাষিরা নিজেদের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে চাষাবাদ করতেন ঠিকই, কিন্তু তাতে অনেক গলদ থেকে যেত। কোন সময়ে কোন বীজ কোন জমিতে দেয়া উচিত তা জানতেনই না চাষিরা। এভাবে বিজ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে সফল হয়েছেন তারা। হাতেনাতে চাষাবাদ শেখার ফলে অভিজ্ঞতাও অনেকে বেড়েছে পড়ুয়াদের


টাইমস/এএইচ/এসআই

বান্দরবানে ইউপি নির্বাচনে বিজিবির গুলিতে নিহত ২

বান্দরবানে ইউপি নির্বাচনে বিজিবির গুলিতে নিহত ২

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, ফাত্রাঝিরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়...

দ্রুত সময়ের মধ্যে আবরার হত্যার বিচার, মা-বাবাকে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস

দ্রুত সময়ের মধ্যে আবরার হত্যার বিচার, মা-বাবাকে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস

এর আগে বিকেলে ৫ টার দিকে গণভবনে আবরার ফাহাদের বাবা...

দিরাইয়ের শিশু হত্যা: স্বজনদের সম্পৃক্ততা পেয়েছে পুলিশ

দিরাইয়ের শিশু হত্যা: স্বজনদের সম্পৃক্ততা পেয়েছে পুলিশ

পুলিশ সুপার জানান, ‘তুহিন হত্যাকাণ্ডে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বাবা...

আন্তর্জাতিক

জেরুজালেমের গভর্নরকে তুলে নিয়ে গেছে ইসরায়েল

জেরুজালেমের গভর্নরকে তুলে নিয়ে গেছে ইসরায়েল

পবিত্রভূমি জেরুজালেমের গভর্নর আদনান গাইথকে তুলে নিয়ে গেছে ইহুদিবাদী ইসরায়েলের পুলিশ বাহিনী। সোমবার ভোরে অভিযান চালিয়ে তাকে আটকের পর তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। প্যালেস্টাইন প্রিজনার্স সোসাইটি এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছ। তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, জেরুজালেমের সিলওয়ান এলাকার নিজ বাড়ি থেকে গভর্নর আদনান গাইথকে আটক করা হয়। এসময় ইসরায়েলের পুলিশ তার বাড়ি ও আশপাশের সড়কগুলো নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়। 

জাতীয়

‘শিবির’ সন্দেহেই আবরার হত্যা:মনিরুল

‘শিবির’ সন্দেহেই আবরার হত্যা:মনিরুল

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ১৯ আসামির মধ্যে চারজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আসামিদের জবানবন্দিতে বলা হয়, মূলত শিবির সন্দেহেই আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আসামিদের জবানবন্দিতে হত্যার কারণ হিসেবে এমনটাই উঠে এসেছে’

জাতীয়

দুদক প্রধানের পদত্যাগ চাইলেন সাংসদ তাপস

দুদক প্রধানের পদত্যাগ চাইলেন সাংসদ তাপস

শেখ পরিবারের সদস্য এই সংসদ সদস্য বলেন, বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারির ঘটনার মামলায় বাচ্চুকে আসামি করে চার্জশিট দিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের নির্দেশনা ছিল। কিন্তু দুদক সে নির্দেশনা মানেনি। কী কারণে দুদক এ রকম কাজ করেছে, এটি জাতি জানতে চায়।

জাতীয়

প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

সোমবার মেয়েটি স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে বিলাশখান এলাকায় রিফাত তার পথরোধ করে। একপর্যায়ে রিফাত ওই ছাত্রীকে মারধর শুরু করে। এক পর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসী মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। ভুক্তভোগী মেয়েটির মা বলেন, ‘মেয়েকে বিয়ে করার জন্য রিফাত দীর্ঘদিন থেকে উত্ত্যক্ত করছিল। মাঝে কিছুদিন মেয়ের পড়ালেখাও বন্ধ রেখেছিলাম। বিষয়টি রিফাতের পরিবারকে জানানো হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি’। 

আন্তর্জাতিক

অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন এক ভারতীয়সহ তিনজন

অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন এক ভারতীয়সহ তিনজন

বৈশ্বিক দারিদ্র্য লাঘবে অবদান রাখায় চলতি বছর অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন এক ভারতীয়সহ তিন অর্থনীতিবিদ। তারা হলেন- অভিজিৎ ব্যানার্জি, এস্তার ডুফলো ও মাইকেল ক্রেমার।

স্বাস্থ্য

কাজে মানসিক চাপ সামলাবেন যেভাবে

কাজে মানসিক চাপ সামলাবেন যেভাবে

শারীরিক সমস্যা নিয়ে আমরা সবাই কম বেশি সচেতন। শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য আপ্রান কত চেষ্টাই না করি। কিন্তু শরীরের পাশাপাশি মনের সুস্থতাও যে জরুরী, সে খেয়াল রাখি ক’জনে?